হিন্দুদের ‘গোমূত্র পানকারী জীব’ বলে মন্তব্য, পাক মন্ত্রীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন ইমরান খান

একটি সাংবাদিক সম্মেলনের সময় এই মন্ত্রী হিন্দুদেরকে ‘গোমূত্র পানকারী জীব’ (cow urine-drinking people) হিসাবে উল্লেখ করেন। মন্ত্রী বলেন, “আমরা মুসলমান এবং আমরা একটি ধ্বজা রয়েছে, মৌলা আলিয়ার সাহসী পতাকা, এবং হজরত উমরার বীরত্বের ধ্বজা। আপনাদের কাছে এই ধ্বজা নেই।” 

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
হিন্দুদের ‘গোমূত্র পানকারী জীব’ বলে মন্তব্য, পাক মন্ত্রীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন ইমরান খান

মন্ত্রী ফায়াজুল হাসান (Fayyazul Hassan Chohan) হিন্দুদেরকে ‘গোমূত্র পানকারী জীব’ (cow urine-drinking people) হিসাবে উল্লেখ করেন


ইসলামাবাদ: 

পাঞ্জাবের তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রী (Punjab Information and Culture Minister) ফায়াজুল হাসান চৌহান (Fayyazul Hassan Chohan) হিন্দুদের বিরুদ্ধে কৌতুকপূর্ণ মন্তব্য করায় তাঁর দল,পাকিস্তানের ক্ষমতাসীন তেহরিক-ই-ইনসাফের বরিষ্ঠ সদস্যদের তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছেন। গত মাসেই একটি সাংবাদিক সম্মেলনের সময় এই মন্ত্রী হিন্দুদেরকে ‘গোমূত্র পানকারী জীব' (cow urine-drinking people) হিসাবে উল্লেখ করেন। মন্ত্রী বলেন, “আমরা মুসলমান এবং আমরা একটি ধ্বজা রয়েছে, মৌলা আলিয়ার সাহসী পতাকা, এবং হজরত উমরার বীরত্বের ধ্বজা। আপনাদের কাছে এই ধ্বজা নেই।” 

নিহত সেনার মায়ের পা ছুঁয়ে শ্রদ্ধা জানালেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারমন

সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে যাওয়া এক ভিডিওতে মন্ত্রী ফায়াজুল হাসান চৌহান বলেন, “এই বিভ্রান্তিতে থাকবেন না যে আপনি আমাদের চেয়ে সাতগুণ ভালো! আমাদের যা আছে তা আপনাদের নেই, আপনারা মূর্তি পুজো করেন।” জম্মু ও কাশ্মীরের পুলওয়ামাতে সন্ত্রাসী হামলার পর ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে উত্তেজনা বাড়ার পরেই মন্ত্রীর এমন মন্তব্য প্রকাশ্যে আসে।

সংখ্যালঘুদের উপর আক্রমণের প্রতিক্রিয়ায় মানবাধিকার বিষয়ক মন্ত্রী শিরীন মাজারী মন্ত্রী ফায়াজুল হাসান চৌহানের বক্তব্যের নিন্দা জানিয়ে বলেন, “কারও ধর্মের উপর হামলা করার অধিকার কারো নেই। আমাদের হিন্দু নাগরিকরাও দেশের জন্য নিজেদের উৎসর্গ করেছে। আমাদের প্রধানমন্ত্রীর বার্তা সবসময় সহনশীলতা ও শ্রদ্ধার পক্ষেই এবং আমরা ধর্মীয় ঘৃণা ছড়াতে চাই না।"

ফিরে আসুক ঘন্টার সঙ্গে আজানের সুর, পুলওয়ামাতে মন্দির সংস্কারে হাত মেলালেন কাশ্মীরি মুসলিমরা

একইভাবে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের রাজনৈতিক বিষয়ক বিশেষ সহযোগী নেতা নঈমুল হক, তাঁর টুইটে বলেন, “ফায়াজুল চৌহানের হিন্দু সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে অপমানজনক ও অশোভনীয় মন্তব্যের জন্য তাঁর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি উঠেছে। সরকার এই ধরণের অসভ্যতা সহ্য করবে না, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে পরামর্শের পর ব্যবস্থা নেয়া হবে।”

অর্থমন্ত্রী আসাদ উমরও বলেন, পাকিস্তানের পতাকা শুধুই সবুজ নয় এবং এই পতাকায় সংখ্যালঘুদের প্রতিনিধিত্বকারী সাদা অংশও রয়েছে, যেটা ছাড়া আমাদের পতাকা সম্পূর্ণ নয়। ফায়াজুলের পদত্যাগের দাবি তুলেছেন লেখক মেহর তারার। রিপোর্ট অনুযায়ী পাকিস্তানের মোট জনসংখ্যার অন্তত ১.৬ শতাংশ হিন্দু এবং হিন্দুধর্মই এই দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্ম। সরকারের জাতীয় সংসদের কমপক্ষে সাতজন হিন্দু সদস্য এবং পাঞ্জাব পরিষদের চারজন সংখ্যালঘু সদস্য রয়েছেন।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................