আন্তর্জাতিক সম্পর্ক পরিচালনা করতে জানেনই না ইমরান খান, কটাক্ষ ভারতের

রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সমাবেশে (UN General Assembly) উস্কানিমূলক ও দায়িত্বজ্ঞানহীন মন্তব্য করার জন্য ইমরান খানের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ বিদেশ মন্ত্রকের।

আন্তর্জাতিক সম্পর্ক পরিচালনা করতে জানেনই না ইমরান খান, কটাক্ষ ভারতের

পাক প্রধানমন্ত্রীর মন্তব্যে নিন্দার ঝড় বয়ে গিয়েছে আন্তর্জাতিক মহলে।

নয়াদিল্লি:

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান (Imran Khan) জানেন না কীভাবে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক পরিচালনা করতে হয়। শুক্রবার এই অভিযোগ করল ভারতের বিদেশ মন্ত্রক (Foreign Ministry)। রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সমাবেশে (UN General Assembly) উস্কানিমূলক ও দায়িত্বজ্ঞানহীন মন্তব্য করার জন্য তাঁর বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছে মন্ত্রক। পাকিস্তানের পাশাপাশি মালয়েশিয়ার দিকেও আঙুল তুলেছে ভারত। সমাবেশে কাশ্মীর প্রসঙ্গ তুলেছে মালয়েশিয়া। সেপ্রসঙ্গ তুলে ভারত বলে তাদের মাথায় রাখা উচিত ভারতের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের কথা। বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র রভীশ কুমার বলেন, ‘‘উনি উস্কানিমূলক ও দায়িত্বজ্ঞানহীন বক্তব্য রেখেছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সমাবেশে। আমার মনে হয় উনি জানেন না কীভাবে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক পরিচালনা করতে হয়।''

কোন ৫৮ টি দেশ জম্মু ও কাশ্মীর ইস্যুতে তাঁদের সমর্থন করেছে, প্রশ্ন শুনে মেজাজ হারালেন পাক বিদেশমন্ত্রী

তিনি আরও বলেন, ‘‘সবচেয়ে সিরিয়াস ব্যাপার হল উনি খোলাখুলি ভারতের বিরুদ্ধে জিহাদের ডাক দিয়েছেন, যা স্বাভাবিক নয়।''

সমাবেশে কাশ্মীর প্রসঙ্গ তোলার জন্য মালয়েশিয়া ও তুর্কিকেও কড়া বার্তা দেন মুখপাত্র। তিনি বলেন, ‘‘দুই দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের কথা মাথায় রাখা উচিত মালয়েশিয়া সরকারের। এবং এই ধরনের মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকা উচিত।''

পাক হেলিকপ্টার ভেবে নিজেদের হেলিকপ্টারকে গুলি করে নামানোর সিদ্ধান্ত "বড় ভুল" ছিল, বললেন বায়ুসেনা প্রধান

তুর্কি সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘‘আমরা তুর্কি সরকারকে বলব পরবর্তী সময়ে এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করার আগে বিষয়টি সম্পর্কে সঠিক জ্ঞান আহরণ করতে। এটা এমন এক বিষয়, যা সম্পূ্র্ণ ভাবেই ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়।''

ওই সমাবেশে পাকিস্তান বারবার কাশ্মীর ইস্যু উত্তাপন করেছে। সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করে দিয়ে ভারত জম্মু ও কাশ্মীরকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে ঘোষণা করেছে।

ইমরান খান জানিয়েছেন, দুই পরমাণু শক্তিধর দেশ যুদ্ধ করলে তার প্রভাব সারা বিশ্বে পড়বে। পাক প্রধানমন্ত্রীর এহেন মন্তব্যে নিন্দার ঝড় বয়ে গিয়েছে আন্তর্জাতিক মহলে।

ভারত জানিয়েছে, রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সমাবেশে এই ধরনের ব্যবহার সাধারণ দেখা যায় না।

দেখুন ভিডিও

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com