পাঁচিল টপকে ঢুকলেন সিবিআই তদন্তকারীরা, গ্রেফতার P Chidambaram

গ্রেফতার পি চিদাম্বরম। বুধবার রাতে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীকে গ্রেফতার করে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
New Delhi: 

হাইলাইটস

  1. "কোনও অপরাধেই অভিযুক্ত নই", বললেন পি চিদাম্বরম
  2. আইন থেকে পালিয়ে বেড়ানোর অভিযোগে হতবাক চিদাম্বরম
  3. প্রার্থনা করি তদন্তকারী সংস্থাগুলো আইনকে উপযুক্ত সম্মান দেবে: চিদাম্বর

গ্রেফতার পি চিদাম্বরম। বুধবার রাতে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীকে গ্রেফতার করে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। শাসক বিরোধী দড়ি টানাটানির মধ্যেই সন্ধ্যায় কংগ্রেস অফিসে উপস্থিত হন NX Media দুর্নীতিতে অভিযুক্ত পি চিদাম্বরম। বলেন, তিনি কোনও অপরাধে অভিযুক্ত নন। তার পরিবারও দুর্নীতিতে যুক্ত নয়।আদালতে সিবিআই বা ইডি তাঁর বিরুদ্ধে কোনও চার্জশিট দেয়নি বলেও দাবি করেন তিনি। কংগ্রেস দফতর থেকে বাড়ি ফিরে যান প্রাক্তন মন্ত্রী। তাঁকে ধাওয়া করে সিবিআই টিম-ও। পরে পাঁচিল টপকে চিদাম্বরমের বাড়িতে প্রবেশ করে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার কর্তারা। তখন প্রাক্তন মন্ত্রীর বাড়ির সামনে মোতায়েন ছিল কেন্দ্রীয় বাহিনী ও পুলিশ। তার মিনিট কয়েকের মধ্যেই গ্রেফতার করা হয় পি চিদাম্বরমকে।

চিদাম্বরম পুত্র কার্তি বলেন, ''রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত পদক্ষেপ। ২০১৭ থেকে তদন্তে নেমেও কেন চার্জশিট দেওয়া হল না? দেশবাসীর দৃষ্টি ঘোরাতেই এই ধরণের আচরণ করা হচ্ছে।''

সুপ্রিম কোর্টে চিদাম্বরমের আবেদনের প্রেক্ষিতে শুনানি পিছিয়ে গিয়েছে শুক্রবার পর্যন্ত। মঙ্গলবার হাইকোর্টের নির্দেশের পর থেকেই নিখোঁজ ছিলেন পি চিদাম্বরম। লুক আউট নোটিস জারি করে ইডি। সন্ধ্যায় হঠাৎই  দলের দফতরে বসে তিনি বলেন, ''কেউ পালিয়ে যাচ্ছে না। সবাই শুনানি চাইছে। '' এছাড়াও বিবেক ও মূল্যবোধের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, "আইন থেকে আমি পালিয়ে বেড়াচ্ছি এটা শুনে আবাক হয়েছি। উল্টে আমি ন্যায় বিচারের পক্ষে। আমি বিবেক নিয়ে এই লড়াই চালিয়ে যাবো। মাথা উঁচু করে লড়বো। প্রার্থনা করি তদন্তকারী সংস্থাগুলো আইনকে উপযুক্ত সম্মান দেবে।" তাঁর সাফ কথা, জীবন ও স্বাধীনতার মধ্যে দ্বিতীয়টিকেই বেছে নেবেন তিনি। এরপরেই কংগ্রেস দফতর ছেড়ে চলে যান প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। গতকাল থেকে খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীর। যদিও তাঁর আইনজীবী কংগ্রেস নেতা কপিল সিব্বল দাবি করেন, ''ফেরার হওয়ার কোনও প্রশ্নই নেই।'' সন্ধেয় নিজের অফিসেই ছিলেন চিদম্বরম। এদিন দিল্লিতে কংগ্রেসের সদর দফতরে উদয় হলেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী।

মঙ্গলবার দিল্লি হাইকোর্ট INX-দুর্নীতিতে অভিযুক্ত, প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমকে আগাম জামিন দিতে অস্বীকার করে। সে দিন রাতেই সিবিআই তাঁর বাড়িতে হানা দেয়, কিন্তু তাঁকে পাওয়া যায়নি বাড়িতে। যত দ্রুত সম্ভব প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে সংস্থার দফতরে যোগাযোগ করতে বলা হয়।

এর পরে হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে বুধবার সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছিলেন চিদম্বরম। সুপ্রিম কোর্টে সেই আবেদনের ওপরে শুনানি হবে শুক্রবার। অর্থাৎ এখনই আগাম জামিন পাচ্ছেন না প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী। INX-দুর্নীতির মামলায় তাঁকে খুঁজছে এনফোর্সমেন্ট ডায়রেক্টরেট ও সিবিআই। তিনি যাতে বিমানে দেশের বাইরে পালাতে না পারেন, সে জন্য লুক আউট নোটিসও জারি করা হয়েছে।

সকালে বিচারপতি রমনের এজলাসে চিদাম্বরমের মামলা ওঠে। কিন্তু মামলার শুনানির দিনক্ষণ নির্ধারণের জন্য কপিল সিব্বলদের প্রধান বিচারপতির কাছে পাঠান তিনি। অযোধ্যা মামলা নিয়ে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ ব্যস্ত থাকায় আবেদন নথিভুক্ত করার সুযোগ পাননি কপিল সিব্বলরা।

দ্বিতীয়বারের জন্য বিচারপতি এন ভি রমনের কাছে দ্বারস্থ হলে কপিল সিব্বলকে বিচারপতি জানান, তাঁদের আবেদনে ত্রুটি রয়েছে। জরুরী ভিত্তিতে পিটিশন নথিভুক্ত করার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা চালান বর্ষীয়য়ান আইনজীবী কপিল সিব্বল। তিনি বলেন, ত্রুটি শুধরে নেওয়া হয়েছে। পিটিশন নথিভুক্ত করা হোক। তবে বিকেল চারটে অযোধ্যা মামলা শুনানি শেষে প্রধান বিচারপতি এজলাস ছাড়ায় চিদাম্বরমের আবেদনটি আদলতে ওঠেনি। ফলে স্পষ্ট হয় তাঁর গ্রেফতারির বিষয়টি।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................