বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে গিয়ে এখনও নিখোঁজ ২৪ মৎসজীবী,উদ্ধার ১

বাংলাদেশের ভেসেল উদ্ধার করেছে ওই মৎস্যজীবীকে, বাকিদের খোঁজে চলছে তল্লাশি

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে গিয়ে এখনও নিখোঁজ ২৪ মৎসজীবী,উদ্ধার ১

শনিবার থেকে এই নিয়ে ৫০ জন মৎস্যজীবীকে উদ্ধার করা হয়েছে। (প্রতীকি ছবি)


কলকাতা: 

গত সপ্তাহে বঙ্গোপসাগরের মাছ ধরতে গিয়ে নিখোঁজ হয়ে যান পশ্চিমবঙ্গের (West Bengal) ২৫ জন মৎস্যজীবী (Fisherman), তাঁদের মধ্যে মাত্র একজনকে বাংলাদেশ থেকে ভেসেলের মাধ্যমে উদ্ধার (Rescue) করা সম্ভব হয়েছে। এখনও নিখোঁজ রয়েছেন আরও ২৪ জন মৎস্যজীবী (24 fisherman missing) । বৃহস্পতিবার ওই মৎস্যজীবীর উদ্ধারের খবর পিটিআইকে দিয়েছেন রাজ্যের এক মন্ত্রী। বুধবার রবীন্দ্রনাথ দাস নামে ওই মৎসজীবীকে গভীর সমুদ্র থেকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী মন্টুরাম পাখিরা (Sundarban Development Minister Manturam Pakhira) জানিয়েছেন, মায়ানমার থেকে বাংলাদেশে ফেরার সময় গভীর সমুদ্র থেকে ওই মৎস্যজীবীকে উদ্ধার করে একটি ভেসেল। শনিবার থেকে এই নিয়ে ৫০ জন মৎস্যজীবীকে উদ্ধার করা হয়েছে। লাইফ জ্যাকেট পরে থাকায় গভীর সমুদ্রে ভেসেছিলেন রবীন্দ্রনাথ দাস নামের উদ্ধার হওয়া ওই মৎসজীবী। তাঁকে বাংলাদেশের ভেসেলটি উদ্ধার করে চট্টগ্রামের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানান ওয়েস্ট বেঙ্গল ইউনাইটেড ফিশারম্যান অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য বিজন মাইতি।

চাষের কাজে অনিচ্ছুক, জমি বিক্রি করে দিচ্ছেন সিঙ্গুরের কৃষকরা: মমতা

এই উদ্ধার হওয়া মৎস্যজীবীর উদাহরণ তুলে ধরে সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী বলেন "রাজ্য সরকার বারবার মৎস্যজীবীদের লাইফ জ্যাকেট পরে সমুদ্রে যেতে বলে। তবে মৎস্যজীবীরা প্রায় সময়েই লাইফ জ্যাকেট পরার ব্যাপারে গড়মসি করেন। কিন্তু যদি তাঁরা এই সতর্কতা গ্রহণ করেন, তবে সমুদ্রে মাছ ধরতে যাওয়ার সময় ঘটা এই ধরণের দুর্ঘটনার সংখ্যা কমিয়ে আনা যেতে পারে"।

এফবি নয়ন নামের মাছ ধরার ট্রলারটিতে ছিলেন উদ্ধার হওয়া ওই মৎস্যজীবী, যদিও ওই ট্রলারটির সন্ধান এখনও মেলে নি।ওই ট্রলারের আরও ১৫ জন মৎস্যজীবী এখনও নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানান ওয়েস্ট বেঙ্গল ইউনাইটেড ফিশারম্যান অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য বিজন মাইতি। গত বৃহস্পতিবার প্রশাসনের বিনা অনুমতিতেই পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার নামখানা থেকে ৪টি ট্রলার এফবি নয়ন, এফবি দশভুজা, এফবি বাবাজি ও এফবি জয় যোগীরাজ মাছ ধরতে গভীর সমুদ্রের উদ্দেশ্যে রওনা হয়।

শ্যুটিং যাওয়ার পথে উবের চালকের হাতে নিগৃহীত অভিনেত্রী স্বস্তিকা, গ্রেফতার চালক

এফবি দশাবুজা থেকেও ৯ জন মৎস্যজীবী এখনও নিখোঁজ রয়েছেন।এফবি দশভূজার ৬ জন মৎস্যজীবীকে উদ্ধার করে গত সোমবার সকালেই কাকদ্বীপে নিয়ে আসা হয়।এফবি যোগীরাজ ও এফবি বাবাজি থেকেও ১৫ জন করে মৎস্যজীবীকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

অন্য ট্রলারে থাকা আরও ১৩ জন মৎস্যজীবী যাঁরা প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণে বাংলাদেশের জলসীমায় ঢুকে পড়েছিলেন, গত শনিবার প্রতিবেশী দেশ ও ভারতের উপকূলরক্ষীবাহিনীর যৌথ অভিযানের সাহায্যে তাঁদের উদ্ধার করা হয়েছে।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................