এক যুবককে হিড়হিড় করে টেনে এনে কষিয়ে থাপ্পড় মারলেন পুলিশ কর্মী !

প্রাথমিক ভাবে জানা গেছে, উত্তরপ্রদেশের Siddharth Nagar-এর বাসিন্দা ওই যুবক ট্র্যাফিক আইন লঙ্ঘন করেছেন এই অভিযোগ খণ্ডাতে পুলিশ কর্মীর সঙ্গে তর্ক করেন।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

Uttar Pradesh: দুই পুলিশ কর্মীকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে এবং বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।


লখনউ: 

সম্প্রতি দেশে আরও কড়া হয়েছে ট্রাফিক আইন, নিয়ম লঙ্ঘন করলে দেওয়া হয়েছে মোটা জরিমানার বিধান। কিন্তু তারপর থেকেই দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে ট্রাফিক পুলিশ কর্মীদের দুর্ব্যবহারের বিভিন্ন খবর সামনে আসছে। এ যেন অনেকটা ধরে আনতে বললে বেঁধে আনার মত বিষয়।  ট্রাফিক আইন লঙ্ঘন করেছেন এই অভিযোগে পূর্ব উত্তর প্রদেশের (Uttar Pradesh) সিদ্ধার্থ নগর (Siddharth Nagar) জেলার নেপালের সীমান্তের কাছে এক যুবককে ব্যাপক মারধর করেন পুলিশ কর্মীরা, ক্যামেরায় ধরা পড়ে কীভাবে দুই পুলিশ কর্মী (Uttar Pradesh Police) যুবককে রাস্তায় টেনে নিয়ে গিয়ে থাপ্পড় মারছে।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, ওই যুবককে যখন নির্মমভাবে মারধর করছেন পুলিশ কর্মীরা তখন সেখানে দাঁড়িয়ে আতঙ্কিত হয়ে পুরো ঘটনাটি প্রত্যক্ষ করছে একটি ছোট্ট ছেলে। জানা গেছে, হেনস্থা হওয়া ওই যুবক আসলে ছেলেটির কাকা হন। 

ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পরে দুই পুলিশ কর্মীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে এবং বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তবে ওই হামলার কারণ এখনও পরিষ্কার নয়। প্রাথমিক ভাবে দেখা গেছে যে মোটরসাইকেলে আরোহী রিঙ্কু পান্ডের সঙ্গে কথা কাটাকাটিতে জড়িয়ে পড়েন ওই পুলিশ কর্মীরা। বৃহস্পতিবার বিকেলে পুলিশকর্মীরা তাঁর মোটর সাইকেলের কাগজপত্র যাচাই করতে চাইলে তাতে তিনি বাধা দিলে বিতর্ক বাঁধে।

ভিডিওতে ওই যুবককে হিন্দিতে  পুলিশের উদ্দেশে বলতে শোনা যায়,"যদি এটি আমার দোষ হয় তবে আপনি আমাকে জেলে বন্দী করতে পারেন।"

ভিডিওটির শেষের দিকে, পুলিশ কর্মীরা ওই যুবকের কাছ থেকে তাঁর মোটর সাইকেলের চাবি ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করায় লোকটি ওই চাবি দিতে অস্বীকার করে। "বলুন, আমার দোষ কী?" তিনি জিজ্ঞাসা করেন পুলিশ কর্মীদের।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................