সমস্ত রেস্তোরাঁ বন্ধ,২০ জনের বেশি জমায়েত করা যাবে না দিল্লিতে: কেজরিওয়াল

সমস্ত বাস ডিপোতে এই পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করার কাজ চলবে। যারা নিজেদের বাহন গুলির জীবাণুমুক্তকরণ করাতে চান, তারাও যেতে পারেন এই জায়গাগুলিতে।

সমস্ত রেস্তোরাঁ বন্ধ,২০ জনের বেশি জমায়েত করা যাবে না দিল্লিতে: কেজরিওয়াল

কুড়ি জনের বেশি একত্রিত হওয়া যাবে না

হাইলাইটস

  • সমস্ত রেস্তোরাঁ বন্ধ,২০ জনের বেশি জমায়েত করা যাবে না দিল্লিতে
  • দিল্লিতে জরুরী পরিষেবা সবই জারি থাকবে
  • ৩১ শে মার্চ পর্যন্ত দিল্লির সমস্ত রেস্তোরাঁ বন্ধ থাকছে
নয়াদিল্লি:

কুড়ি জনের বেশি একত্রিত হওয়া যাবে না। পাশাপাশি সমস্ত রেস্তোরাঁ বন্ধ থাকবে । টেক অ্যাওয়ে বা হোম ডেলিভারি পরিষেবা চালু থাকবে। তবে রেস্তোরাঁয় বসে খাওয়া যাবে না। আগামী ৩১ শে মার্চ পর্যন্ত এই নিয়ম চলবে দিল্লিতে। জানিয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল করোনাভাইরাস(Coronavirus) সঙ্গে মোকাবিলা করার জন্য সমস্ত পদক্ষেপ সরকারের তরফ থেকে নেওয়া হচ্ছে। এখনও পর্যন্ত ১০ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন দিল্লিতে। তার মধ্যে দুজন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। একজনের মৃত্যু হয়েছে। ৩১ শে মার্চ পর্যন্ত দিল্লির সমস্ত রেস্তোরাঁ বন্ধ থাকছে। খাবার নিয়ে যেতে পারবেন কিন্তু বসে খাওয়ার ব্যবস্থা বন্ধ থাকবে পুরোপুরি, জানিয়েছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal) জানিয়েছেন যে পৃথকীকরণ করার জন্য আমাদের কাছে ৭৬৮ টি বেড আছে, যার মধ্যে এই মুহূর্তে ৫৭ টিতে পৃথকীকরণ করে রাখা হয়েছে আক্রান্ত সন্দেহে। বাকি ৭১১ টি ফাঁকা রয়েছে। আইসোলেশনে রাখার জন্য এবং রোগের চিকিৎসা করার জন্য ৫৫০ টি বেড রয়েছে । যার মধ্যে ৪০ টি এই মুহূর্তে ভর্তি রয়েছে।

যাদের পৃথকীকরণ করে রাখা হচ্ছে, তাদেরকে স্ট্যাম্প দেওয়া হচ্ছে। মানুষ যদি নিয়ম না মানেন সেক্ষেত্রে গ্রেফতার করা হতে পারে। এমন কী এফআইআর দায়েরও হতে পারে তাদের বিরুদ্ধে। বেসরকারি গাড়িগুলোকেও জীবাণুমুক্ত করা হবে।জানিয়েছেন তিনি। মানুষের কাছে আবেদন করা হচ্ছে অতি প্রয়োজন ছাড়া তারা যেন বাড়ি থেকে না বের হন। যারা বয়স্ক তারা একেবারেই বাড়ি থেকে বেরোবেন না। পঞ্চাশ জনের বেশি একত্রিত হতে পারবেন এই নিয়মকে আরও কড়া করে সংখ্যাটা  ২০ করা হল।

অর্থাৎ কুড়ি জনের বেশি একত্রিত হতে পারবেন না। দিল্লি সরকারের সমস্ত ভেন্টিলেটর ঠিকঠাক কাজ করছে। মেশিন গুলি যাতে কাজ করার জন্য একেবারে তৈরি থাকে, সেই নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।

সফদর জঙ্গ হাসপাতালে কাল একটি আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। মানুষকে বলছি আপনারা ভয় পাবেন না, কারণ করোনা ভাইরাসে (Coronavirus)আক্রান্ত হয়ে অনেকেই সুস্থ হয়ে উঠছেন। সবার কাছে আবেদন রাখছি কোনও জায়গায় একসঙ্গে জড়ো হবেন না। দিল্লিতে জরুরী পরিষেবা সবই জারি থাকবে। যেগুলি অতি প্রয়োজনীয় নয় এমন পরিষেবা সম্পর্কে আগামীকাল সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন যে এতদিন পর্যন্ত দুটি শিফটে জীবাণুমুক্ত করার কাজ করা হচ্ছিল।সকাল ১০.০০ টা থেকে ১২.০০ টা এবং বিকেল ৪.৩০ টে থেকে ৬.৩০ টা পর্যন্ত। এবার থেকে সকাল ১০.০০ টা থেকে সন্ধ্যে ৬.০০ টা পর্যন্ত পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ও জীবাণুমুক্ত করার কাজ চলবে। সমস্ত বাস ডিপোতে এই পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করার কাজ চলবে। যারা নিজেদের বাহন গুলির জীবাণুমুক্তকরণ করাতে চান, তারাও যেতে পারেন এই জায়গাগুলিতে।