This Article is From Apr 15, 2020

লুডো খেলতে গিয়ে কাশি! করোনা আতঙ্কে খেলতে খেলতেই বন্ধুকে গুলি এক ব্যক্তির

লুডোর দান দিতে দিতে কেশে ফেলেন এক বন্ধু! আর এই ঘটনায় করোনা আতঙ্কে ওই বন্ধুকে গুলি করে দেয় অন্যজন! অবিশ্বাস্য হলেও এমনই ঘটেছে নয়ডার ওই গ্রামে।

লুডো খেলতে গিয়ে কাশি! করোনা আতঙ্কে খেলতে খেলতেই বন্ধুকে গুলি এক ব্যক্তির

বন্ধু করোনা ছড়াচ্ছে এই আতঙ্কে লুডো খেলতে খেলতেই গুলি করে দেয় অপরজন

মঙ্গলবার রাত তখন গভীর। লকডাউনের জেরে স্তব্ধ চারপাশ। নয়ডার জারচার গ্রাম দয়ানগরে সময় কাটাতে লুডো খেলছিলেন চার বন্ধু। হঠাৎই লুডোর দান দিতে দিতে কেশে ফেলেন এক বন্ধু! আর এই ঘটনায় করোনা আতঙ্কে ওই বন্ধুকে গুলি করে দেয় অন্যজন! অবিশ্বাস্য হলেও এমনই ঘটেছে নয়ডার ওই গ্রামে। আহত ব্যক্তির আঘাত গুরুতর, তিনি গ্রেটার নয়ডার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। পুলিশ আধিকারিক (তৃতীয় জোন) রাজেশ কুমার সিং জানিয়েছেন, দয়ানগরে গতকাল রাতে জয়, বীরু ওরফে গুল্লু, প্রবেশ আর প্রশান্ত- এই চার বন্ধু মন্দিরের কাছে বসে লুডো খেলছিলেন।

এরই মাঝে আচমকা কেশে ফেলেন প্রশান্ত। এই দেখেই গুল্লু এবং অন্য বন্ধুরা তাকে বলে যে, কাশির মাধ্যমে করোনাভাইরাস ছড়াচ্ছেন প্রশান্ত। এর পরেই সকলের মধ্যে বাগবিতণ্ডা শুরু হয়ে যায়। তিনি জানান যে, প্রচণ্ড রেগে গিয়ে গুল্লু প্রশান্তের দিকে লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি চালিয়ে দেন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে গ্রেটার নয়ডার একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশও এই ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করেছে।

উল্লেখ্য, ভারতবর্ষে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশই বাড়ছে। বুধবার স্বাস্থ্য মন্ত্রকের জানানো তথ্যানুসারে, ভারতবর্ষে করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১১,৪৩৯। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্তের ১,০৭৬ টি নতুন ঘটনা দেখা গিয়েছে এবং ৩৮ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে। দেশে এখনও পর্যন্ত করোনায় মৃতের সংখ্যা ৩৭৭। সুখবর একটাই, সেরে গিয়েছেন ১৩০৬ জন।

করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়ার জন্য সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে দেশব্যাপী লকডাউন ৩ মে অবধি বাড়ানো হয়েছে। লকডাউনের প্রথম দফা সম্পন্ন হয়েছে ১৪ এপ্রিল, মঙ্গলবার। তারপরেই ১৫ এপ্রিল থেকে ৩ মে অবধি শুরু হয়েছে দ্বিতীয় পর্যায়ের লকডাউন। প্রধানমন্ত্রী মোদি জানিয়েছেন ২০ এপ্রিল পর্যন্ত সব জেলা, শহর এবং থানায় জোরকদমে চলবে খোঁজখবর ও পরীক্ষা নিরীক্ষা। ২০ এপ্রিলের পরে কিছু ক্ষেত্রে শিথিল হতে পারে নিষেধাজ্ঞা।