"এখন কেউ আমাকে ছুঁতেও পারবে না": বললেন ধর্ষণে অভিযুক্ত নিত্যানন্দ, দেখুন ভাইরাল সেই ভিডিও

"এখন আর কেউ আমাকে ছুঁতে পারবে না, আমি তোমাকে সত্যিটা বলি, আমি পরম শিব, বুঝেছো?" স্ব-ঘোষিত ধর্মগুরু Nithyananda একটি ভিডিওতে একথা বলেন

নিত্যানন্দের ভিডিওটি ২২ নভেম্বর থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে

হাইলাইটস

  • "এখন কেউ আমাকে ছুঁতেও পারবে না": বললেন ধর্ষণে অভিযুক্ত নিত্যানন্দ
  • সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হল সেই ভিডিও
  • তাঁর বিরুদ্ধে একাধিক ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনের অভিযোগ রয়েছে
নয়া দিল্লি:

ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনে অভিযুক্ত স্ব-ঘোষিত ধর্মগুরু নিত্যানন্দের একটি ভিডিও সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে। যে ভিডিওতে তিনি (Nithyananda)সকলের সামনে ঘোষণা করেছেন যে, "কেউ আমাকে ছুঁতে পারবে না" । পাশাপাশি দেশের কোনও আদালতও তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করতে পারবে না বলেও চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন তিনি। ওই বিতর্কিত ধর্মগুরুকে আমেদাবাদ আশ্রমে শিশুদের অপহরণ ও জোর করে আটকে রাখার মামলায় খুঁজছে গুজরাট পুলিশ। "আমি তোমাদের কাছে বাস্তবতা এবং সত্যের প্রকাশ করে আমার অখণ্ডতা প্রদর্শন করব। এখন আর কেউ আমাকে ছুঁতে পারবে না, আমি তোমাকে সত্যিটা বলি, আমি পরম শিব, বুঝেছো? কোন আদালত সত্য প্রকাশের জন্যে আমার বিচার করতে পারবে না। আমি পরম শিব", পাগড়ি এবং ধর্মগুরুর সাজে সজ্জিত নিত্যানন্দকেও ওই কথা বলতে শোনা যায়।

নির্ভয়া কাণ্ডে দোষীকে করুণার আবেদন প্রত্যাখ্যান করুন রাষ্ট্রপতি, সুপারিশ কেন্দ্রের

নিত্যানন্দের ভিডিওটি ২২ নভেম্বর থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে কোনও অজ্ঞাত স্থান থেকে ওই দাবি করছেন তিনি।

"এখানে যারা উপস্থিত হয়ে আমার প্রতি নিজেদের আন্তরিকতা এবং আনুগত্যের প্রকাশ করছে... আমি প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি, তোমাদের সকলের আর কখনই মৃত্যু হবে না", নিজের অনুগামীদের উদ্দেশ্য করে বলতে শোনা যায় স্বঘোষিত ধর্মগুরু নিত্যানন্দকে।

৪১ বছর বয়সী ওই ধর্মগুরু সম্প্রতি ঘোষণা করেন যে তাঁর "দেশ" আসলে কৈলাশ এবং আর এখানে "বৃহত্তম হিন্দু জাতি" থাকে। নিত্যানন্দ এত কিছু বলছেন অথচ কোনও এক অজ্ঞাত কারণে পুলিশ নাকি তাঁর সন্ধান পাচ্ছে না।

"নিজেকেই যেন ধর্ষক মনে হচ্ছিল": নির্ভয়া মামলার প্রসঙ্গে বললেন প্রাক্তন পুলিশ কর্তা

শুক্রবার, কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে তাঁর পাসপোর্ট বাতিল করা হয় এবং নতুন করে পাসপোর্টের জন্যে তাঁর করা আবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে বিদেশ মন্ত্রক। বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র রভীশ কুমারও বলেন যে, তিনি নিত্যানন্দকে শনাক্ত করার জন্যে বিদেশের সমস্ত জায়গায়ও সতর্কবার্তা পাঠিয়েছেন।

নিত্যানন্দ দাবি করেছেন যে তিনি হলেন তামিলনাড়ুর মাদুরাই অধীনম মুটের আধ্যাত্মিক প্রধান। ২০১০ সালে ধর্ষণের অভিযোগে তাঁকে হিমাচল প্রদেশ থেকে গ্রেফতারও করা হয়। জানা গেছে, কোনও এক অভিনেত্রীর সঙ্গে তাঁকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখা যাওয়ার ভিডিও ফুটেজও মিলেছে।

দেখে নিন আজকের অন্যান্য খবর:

More News