Nirbhaya Case:"রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে এই ঘটনাকে ব্যবহার করা হচ্ছে": ভেঙে পড়লেন নির্ভয়ার মা

Delhi Gang Rape: ৪ সাজাপ্রাপ্তের ফাঁসি কার্যকর করতে দেরি হওয়া নিয়ে বিজেপি ও আম আদমি পার্টির মধ্যে বিবাদের পরিপ্রেক্ষিতেই ওই মন্তব্য করেন তিনি

রাজনীতির কারণেই নির্ভয়া কাণ্ডের সাজাপ্রাপ্তদের ফাঁসি দিতে দেরি হচ্ছে, অভিযোগ করলেন নির্ভয়ার মা Asha Devi

হাইলাইটস

  • নির্ভয়া মামলা নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে, ভেঙে পড়লেন নির্ভয়ার মা
  • যাঁরা এক সময় দোষীদের ফাঁসি চেয়েছিল তাঁরাই এখন দেরি করছে, অভিযোগ তাঁর
  • ২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর নির্ভয়াকে ধর্ষণ করে ৬ জন
নয়া দিল্লি:

রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে ব্যবহার করা হচ্ছে দিল্লি গণধর্ষণ কাণ্ডের (Nirbhaya Case) মতো নৃশংস ঘটনাকে, এমন বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন নির্ভয়ার মা আশা দেবী। ২০১২ সালের ডিসেম্বরে একটি চলন্ত বাসে আশা দেবীর মেয়েকে গণধর্ষণ (2012 Delhi Gang Rape) ও নির্যাতন করে দিল্লির রাস্তায় ফেলে দেওয়া হয়, পরে হাসপাতালে মৃত্যু হয় নির্ভয়ার। "যারা আমার মেয়েকে নির্যাতন করেছে তাদের জন্যে এক হাজার বিকল্প দেওয়া হচ্ছে, কিন্তু আমাদের কোন অধিকার নেই? এখনও অবধি আমি কখনও রাজনীতির কথা বলিনি, তবে এখন আমি বলতে বাধ্য হচ্ছি যে, ২০১২ সালে যারা রাস্তায় এই ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন, আজ সেই তারাই কেবল রাজনৈতিক ফায়দার জন্য আমার মেয়ের মৃত্যুকে নিয়ে খেলা করছেন", চোখের জল মুছতে মুছতে সংবাদ সংস্থা এএনআইকে এ কথা বলেন নির্ভয়ার (Nirbhaya) মা।

দিল্লির ওই গণধর্ষণ ও হত্যার দায়ে দোষী সাব্যস্ত ৪ ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করতে বিলম্বের কারণে দিল্লির আপ সরকার এবং কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন বিজেপি একে অপরকে দোষারোপ করছে। এই দোষারোপের রাজনীতির পরিপ্রেক্ষিতেই ওই মন্তব্য করেন নির্ভয়ার মা।

Nirbhaya Case: সাজাপ্রাপ্তের প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজ করলেন রাষ্ট্রপতি

দিল্লি গণধর্ষণ কাণ্ডের ৪ অপরাধীর ফাঁসি কার্যকর করতে গা ছাড়া ভাব দেখাচ্ছে দিল্লি সরকার। বৃহস্পতিবার সে রাজ্যের আপ সরকারকে এভাবেই কাঠগড়ায় তোলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা প্রকাশ জাভড়েকর। ওই পরিবারকে ন্যায় দিতে অযথা দেরি করেছে আপ, এমন অভিযোগ তুলে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, "আড়াই বছর ধরে কেন চার অপরাধীকে বলা হয়নি প্রাণভিক্ষার জন্য দরবার করতে?" 

বিজেপির এই অভিযোগের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী তথা আপ নেতা মণীশ সিসোদিয়া বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার যদি রাজধানীর আইনশৃঙ্খলা ব্যবস্থা তার সরকারের হাতে ২ দিনের জন্যেও তুলে দিত তবে তৎক্ষণাৎ ফাঁসি কার্যকর করে দেখিয়ে দিতেন তাঁরা।

বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠকে জাভড়েকর বলেন, ‘‘আপ সরকারের অবহেলাতেই ২০১২ সালে নির্ভয়া ধর্ষণ-খুন কাণ্ডের দোষীদের ফাঁসিতে দেরি হচ্ছে। কেন আড়াই বছর ধরে দিল্লির সরকার দোষীদের প্রাণভিক্ষার আর্জি জানানোর জন্য নোটিস ধরায়নি।''

‘‘কেন আমাকে ভুগতে হবে'': জেলের তরফে ফাঁসির নতুন তারিখ চাওয়ার পর নির্ভয়ার মা

আইন অনুযায়ী ফাঁসির আসামীর সমস্ত আইনি বিকল্প শেষ হওয়ার পরেও ১৪ দিনের সময় দিতে হয়। সেই আইন অনুযায়ীই আপ সরকার আদালতে জানিয়েছিল, ২২ জানুয়ারি ফাঁসি কার্যকর করা সম্ভব নয়। কিন্তু আদালত সেই যুক্তি খারিজ করে জানিয়ে দেয়, মৃত্যু পরোয়ানা জারির মধ্যে কোনও গলদ নেই। তবে দায়রা আদালতে মৃত্যু পরোয়ানা খারিজের আর্জি জানাতে পারে অভিযুক্তরা।

এদিকে শুক্রবারই নির্ভয়া কাণ্ডে সাজাপ্রাপ্তের প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজ করে দেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। নির্ভয়া কাণ্ডে দোষী সাব্যস্ত ৪ আসামিকে আগামী সপ্তাহে ফাঁসিতে ঝোলানোর আগে অন্যতম দোষী মুকেশ কুমার সিংয়ের প্রাণভিক্ষার আবেদন দেশের রাষ্ট্রপতির  কাছে পাঠায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্ট তার এবং বিনয়ের দায়ের করা কিউরিটিভ পিটিশন খারিজ করার পরে মুকেশ কুমার সিং রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে করুণার আবেদন করে। বিনয় শর্মা, মুকেশ কুমার সিং, অক্ষয় কুমার সিং এবং পবন গুপ্তাকে আগামী বুধবার সকাল সাতটায় তিহার জেলে ফাঁসি দেওয়া হবে, এর আগে ট্রায়াল কোর্টের বিচারক এই বিধান দেন। 

২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর রাতে ২৩ বছরের এক তরুণী তাঁর বন্ধুর সঙ্গে একটি সিনেমা দেখতে গিয়েছিলেন দক্ষিণ দিল্লিতে। ফেরার পথে তাঁরা বাসের জন্য দাঁড়িয়েছিলেন। এই সময় একটি ফাঁকা বেসরকারি বাসে তাঁদের তুলে নেওয়া হয়। বাসে ছিল ছ'জন ব্যক্তি। এরপর তারা ওই তরুণীকে ধর্ষণ ও লোহার রড দিয়ে নির্যাতন করে কয়েক ঘণ্টা ধরে। তারপর রাস্তায় ছুঁড়ে ফেলে দেয়। তাঁর সঙ্গীও আহত হন। ২৯ ডিসেম্বর মৃত্যু হয় ওই তরুণীর। গোটা দেশ রাগে, ক্ষোভে গর্জে উঠেছিল এমন অমানুষিক বর্বরতার বিরুদ্ধে। 

সেই সময় এই ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি ও আপ, দুই দলের নেতারাই। ওই ঘটনাকে হাতিয়ার করে সেই সময় দিল্লি এবং কেন্দ্র দু'জায়গাতেই ক্ষমতায় থাকা কংগ্রেস দলকে লক্ষ্য করে আক্রমণ শানান তাঁরা।

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com