গোমাংস- গুজব, মুসলমান দম্পতি সহ চার জনকে বেধড়ক মারধর মধ্যপ্রদেশে, গ্রেফতার পাঁচ

সেই ভিডিওটি আপাতত সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে মহিলা সহ তিন পুরুষকে বেধড়ক মারধর করছেন কয়েকজন।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
গোমাংস- গুজব, মুসলমান দম্পতি সহ চার জনকে বেধড়ক মারধর মধ্যপ্রদেশে, গ্রেফতার পাঁচ

এই ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।


ভোপাল: 

হাইলাইটস

  1. গোমাংস- গুজব, মুসলমান দম্পতি সহ চার জনকে বেধড়ক মারধর মধ্যপ্রদেশে
  2. এক প্রত্যক্ষদর্শী গোটা ঘটনাটি মোবাইলে ধরে রেখেছেন
  3. সেই ভিডিওটি আপাতত সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে

আবার গোরক্ষকদের বর্বরতা। এবার ঘটনাস্থল মধ্যপ্রদেশের সিওনি (Madya Pradesh)। গরুর মাংস নিয়ে যাওয়ার সময় এক মুসলমান দম্পতি সহ ৪ জনকে মারধর করার অভিযোগ উঠল কয়েকজন যুবকের বিরুদ্ধে। এক প্রত্যক্ষদর্শী গোটা ঘটনাটি মোবাইলে ধরে রেখেছেন।  সেই ভিডিওটি আপাতত সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে মহিলা সহ তিন পুরুষকে বেধড়ক মারধর করছেন কয়েকজন। তাদের জয় শ্রী রাম ধ্বনিও উচ্চারণ করতে শোনা যাচ্ছে। ভিডিওতে স্পষ্ট ধরা পড়েছে মহিলা কে জুতা দিয়ে মারা হচ্ছে। তিন যুবককে গাছের সঙ্গে বেঁধে মারধর করা হচ্ছে। এই ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

8eel8d8g

এমনই ছবি  ধরা পড়েছে ভাইরাল হওয়া ভিডিও৬তে।    

স্থানীয় এক পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন ভিডিওটি চার দিন আগে তোলা এবং এই ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। স্থানীয় আদালত তাদেরকে জেল হেফাজতে থাকার নির্দেশ দিয়েছে। তিনি বলেন এই ঘটনায় আরও একজন জড়িত আছে। তাকে খুঁজে বার করার কাজ শুরু হয়েছে। এই ঘটনায় জড়িত এক যুবকেরর নাম শুভম সিং। তাঁর ফেসবুক অ্যাকাউন্টেই প্রথম ভিডিওটি পোস্ট হয়। ফেসবুক-ই সে রাম সেনা নামে একটি সংগঠনের সদস্য। নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার দিন ভিডিওটি তাঁর ফেসবুকে পোস্ট করা হয় বলে পুলিশ জানতে পেরেছে। কিন্তু সমস্যা দানা বাঁধছে বুঝতে পেরেই ভিডিওটি ডিলিট করে দেয় শুভম।

জানা গিয়েছে ঘটনাটি ২২ তারিখের। এক মুসলমান দম্পতিসহ চারজন অটো করে যাচ্ছিলেন। তাঁদের সঙ্গে গোমাংস ছিল। সে সময় কয়েকজন যুবক তাদের পথ আটকে দাঁড়ায় এবং জয় শ্রীরাম ধ্বনি দিতে থাকে ।তখনই ভিডিও টা তোলা হয়। তাতে দেখা যায় অটো ধরে বিক্ষোভ চলছে এবং মারধর শুরু হয়েছে।জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি ঘটনার সমালোচনা করেছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি লিখেছেন এ ধরনের ঘটনা আতঙ্কের সঞ্চার করে। আশাকরি মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথ খুব দ্রুত বিচার করবেন। এর আগেও একাধিক বার এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে।

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................