প্রবল বর্ষণে ব্যাহত হল মুম্বাইয়ের যান চলাচল, ট্রেন এবং বিমান চলাচলেও বিপত্তি

পরপর দু'দিনে দু'বার বজ্রবিদ্যুৎ-সহ প্রবল বৃষ্টি মুম্বাই শহরকে সোমবার রাতে প্রায় অচল করে দিল। ব্যাপকভাবে ব্যাহত হল বিমান এবং ট্রেন চলাচল। 

প্রবল বর্ষণে ব্যাহত হল মুম্বাইয়ের যান চলাচল, ট্রেন এবং বিমান চলাচলেও বিপত্তি

মুম্বাই শহর এবং পার্শ্ববর্তী শহরতলিতে বৃষ্টিতে প্রবল জল জমে গিয়েছে বলে খবর।

মুম্বাই: পরপর দু'দিন বজ্রবিদ্যুৎ-সহ প্রবল বৃষ্টি মুম্বাই শহরকে সোমবার রাতে প্রায় অচল করে দিল। ব্যাপকভাবে ব্যাহত হল বিমান এবং ট্রেন চলাচল।  দক্ষিণ মুম্বাই, পূর্ব মুম্বাই এবং পশ্চিমের শহরতলি ভেসে গেল প্রবল বর্ষণে। এছাড়া, রায়গড়, থানে, রত্নগিরি, পালঘরের মতো জেলাও বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্ত হল প্রবলভাবে।

শহর এবং শহরতলির বিভিন্ন প্রান্ত থেকে জল জমার খবর এসেছে। যার ফলে শহর ও শহরতলির বিভিন্ন রাস্তা এবং দুটো হাইওয়েতে যান চলাচল ব্যাহত হয়। 

এই দুর্যোগের কারণে ছত্রপতি শিবাজি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অন্তত ন'টি বিমানের অবতরণ সম্ভব হয়নি। তাদের আহমেদাবাদ সহ একাধিক বিমানবন্দরের দিকে ঘুরিয়ে দেওয়া হয়।

বিমান অবতরণ নিয়ে এই সমস্যাটি প্রায় রাত 11:30 অবধি চলবে বলে ভাবা হয়েছিল।
সেন্ট্রাল রেলওয়ের হারবার লাইনে কিছু যান্ত্রিক ত্রুটির জন্য লোকাল ট্রেন পরিষেবাও যথেষ্ট বাধাপ্রাপ্ত হয়।
থানে এবং অম্বরনাথের দিকে কয়েকটি এলাকায় গাছ পড়ে যাওয়ায় দীর্ঘক্ষণ অন্ধকার ছিল।
আইএমডি’র মুম্বাই অফিস থেকে ঝোড়ো হাওয়া এবং বজ্রবিদ্যুৎ-এর পূর্বাভাষ দেওয়া হয়েছে। যা, মঙ্গলবার থানে এবং পার্শ্ববর্তী এলাকায় আছড়ে পড়তে পারে।

(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদিত করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে.)