হাতে ভোট গুণতে গিয়ে ইন্দনেশিয়ায় প্রাণ গেল ২৭২ জনের

দিন দশেক আগে গোটা বিশ্বের সংবাদমাধ্যম এবং  রাজনৈতিক মহলকে অবাক করে একদিনে ২৬০ মিলিয়ন মানুষের ভোট নেওয়ার ব্যবস্থা করেছিল ইন্দোনেশিয়া।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
 
জাকার্তা: 

হাইলাইটস

  1. হাতে ভোট গুণতে গিয়ে ইন্দনেশিয়ায় প্রাণ গেল ২৭২ জনের
  2. একদিনে ২৬০ মিলিয়ন মানুষের ভোট নেওয়ার ব্যবস্থা করেছিল ইন্দোনেশিয়া
  3. এটাই একদিনে হওয়া পৃথিবীর ইতিহাসের সবচেয়ে বড় নির্বাচন

দিন দশেক আগে গোটা বিশ্বের সংবাদমাধ্যম এবং  রাজনৈতিক মহলকে অবাক করে একদিনে ২৬০ মিলিয়ন মানুষের ভোট নেওয়ার ব্যবস্থা করেছিল ইন্দোনেশিয়া। এটাই একদিনে হওয়া পৃথিবীর ইতিহাসের  সবচেয়ে বড় নির্বাচন। কিন্তু ভোট গণনা করতে গিয়ে এ পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছেন ২৭২ জন কর্মী। চিকিৎসকরা বলছেন হাতে ভোট গুনতে হচ্ছে বলে অনেকটা সময় লাগছে। আর তা থেকেই অবসাদে ভুগছেন কর্মীরা। সেই কারণেই তাদের মৃত্যু হচ্ছে। শুধু ২৭২ জনের মৃত্যু নয় এ যাবৎ প্রায় ১৯০০ কর্মী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।গোটা ঘটনায় ইন্দোনেশিয়ার প্রশাসন নড়েচড়ে বসেছে

শুধু মার্চ থেকে এপ্রিলের মধ্যে দেশে বৃষ্টি ঘাটতির পরিমাণ ২৭ শতাংশ!

 মৃত এবং অসুস্থ ভোট কর্মীদের পরিবার যাতে ক্ষতিপূরণ পায় তা নিশ্চিত করার চেষ্টা হচ্ছে। পাশাপাশি দেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে অসুস্থ ভোট কর্মীদের চিকিৎসার সমস্তরকম বন্দোবস্ত করা হয়েছে। বেশ  কিছু জায়গায় কাজ করছে বিশেষজ্ঞ  চিকিৎসকদের টিম। এভাবে হাতে ভোট গোনার ব্যবস্থা করে বিভিন্ন মহলের তোপের মুখে পড়েছে দেশের নির্বাচন কমিশন।

১৭ তারিখ ইন্দোনেশিয়ার ১৯৩ মিলিয়ন মানুষ ভোট দিয়েছিলেন। প্রত্যেককে ৫টি করে ব্যালট পেপারে ভোট দিতে হয়েছিল সেদিন।  নির্বাচন ঘিরে তেমন কোনও অশান্তির ঘটনা ঘটেনি।  একসঙ্গে এত বড় একটা নির্বাচন অনুষ্ঠিত করে গোটা পৃথিবীর কাছে সম্ভ্রমও আদায় করেছিল ইন্দোনেশিয়া। কিন্তু তারপর থেকেই দ্রুত বদলাতে থাকে পরিস্থিতি। ভোটকর্মীদের মৃত্যুর সংখ্যা ক্রমশ বাড়তে থাকে। এখন অবস্থা যা তাতে আরও বেশ  কিছু মানুষ নিজেদের জীবন হারাতে পারেন বলেই আশঙ্কা করা হচ্ছে। প্রায় তিন হাজার মাইল এলাকা বিশিষ্ট ইন্দোনেশিয়ার বিভিন্ন জায়গার ৮ লাখ নির্বাচনী কেন্দ্র তৈরি করা হয়েছিল সেখানেই হয়েছিল ভোট গ্রহণ প্রক্রিয়া।

এই ঘটনায় নির্বাচন কমিশনকে কাঠগড়ায় তুলেছে বিরোধীপক্ষ। বিরোধীদের রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী আহমেদ মাজানি বলেছেন কর্মীদের যাতে শরীর খারাপ না হয় বা মৃত্যু না হয় তা নিশ্চিত করতে ব্যর্থ হয়েছে কমিশন ।এই দায় তাদের নিতেই হবে।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................