সম্মতির ভিত্তিতেই সম্পর্ক , বিদেশি সাংবাদিকের অভিযোগে প্রেক্ষিতে বললেন এম জে

দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট পত্রিকার সাংবাদিক পল্লবী অভিযোগ করেন এম জে  তাঁকে ধর্ষণ করেন। প্রায় 23  বছর আগে  এশিয়ান এজে পত্রিকার সম্পাদক থাকার  সময় এমজে এই কাজটি করেছেন  বলে ওই মহিলা সাংবাদিকের দাবি

সম্মতির ভিত্তিতেই সম্পর্ক , বিদেশি সাংবাদিকের অভিযোগে প্রেক্ষিতে বললেন এম জে

হাইলাইটস

  • এম জে আকবরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনেছেন বিদেশি সাংবাদিক
  • এম জে বলেছেন ওই মহিলার সঙ্গে সম্মতির ভিত্তিতেই তাঁর সম্পর্ক হয়েছিল
  • তাঁর বিরুদ্ধে এক ডজনের বেশি মহিলা যৌন নির্যাতনের অভিযোগ এনেছেন
নিউ দিল্লি:

প্রাক্তন বিদেশ প্রতিমন্ত্রী এম জে আকবরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনেছেন বিদেশি সাংবাদিক। এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সংবাদ সংস্থা এএনআইকে এম জে বলেছেন ওই  মহিলার সঙ্গে  সম্মতির ভিত্তিতেই তাঁর  সম্পর্ক হয়েছিল। প্রাক্তন মন্ত্রীর মতে শেষটা ভাল হয়নি।  তাঁর কথায়, ‘1994 সালে পল্লবী গগৈ এবং আমি সম্মতির ভিত্তিতে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ি। তা নিয়ে নানা মহলে আলোচনা শুরু হয় এমনকী আমার পারিবারিক জীবনেও  সমস্যা দেখা দেয়। কিন্তু আমাদের সম্পর্কের শেষটা  ভালভাবে হয়নি বোধহয়।'

"মানসিকভাবে সম্পূর্ণ ভেঙে পড়েছিলাম", ফের ধর্ষণের অভিযোগ এম জে আকবরের বিরুদ্ধে

অন্য একটি প্রসঙ্গে প্রাক্তন মন্ত্রীকে বলতে শোনা যায়, ‘ যারা আমার সঙ্গে কাজ করেছেন এবং আমাকে  আর পল্লবীকে চেনেন তাঁরা নিজেদের বক্তব্য আদালতে জানাতে পারেন। সেটা থেকেই বিষয়টি স্পষ্ট  হবে।'              

দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট পত্রিকার সাংবাদিক পল্লবী অভিযোগ করেন এম জে  তাঁকে ধর্ষণ করেন। প্রায় 23  বছর আগে  এশিয়ান এজে পত্রিকার সম্পাদক থাকার  সময় এমজে এই কাজটি করেছেন  বলে ওই মহিলা সাংবাদিকের দাবি। সমস্তটাই অস্বীকার করেছেন এম জে। তাঁর পাল্টা দাবি সত্য  প্রকাশ্যে নিয়ে  আসার সময় এসেছে।

ভারতে মিটু আন্দোলন শুরু হয়েছে কয়েক মাস আগে। বলিউড থেকে রাজনীতি বিভিন্ন মহল  তোলপাড় হয়ে যাচ্ছে পুরনো অভিযোগ প্রকাশ্যে আসায়। এরই মধ্যে  অভিযুক্ত হয়েছেন এম জে। তাঁর বিরুদ্ধে এক ডজনের বেশি মহিলা যৌন নির্যাতনের অভিযোগ  এনেছেন।  বিতর্কের মাঝে পড়ে মন্ত্রিত্ব ছাড়তে হয়েছে এমজেকে।                                                                              

 

More News