মেধাতালিকা নিয়ে যাদবপুর কর্তৃপক্ষকে ভাবনাচিন্তা করতে বললেন পার্থ

রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বললেন, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের ভেবে দেখা উচিত যে, ইতিহাসের নতুন মেধা তালিকায় স্থান পাওয়া পড়ুয়াদের নম্বর বদলালে তা প্রতিষ্ঠানের উচ্চতা কোনওভাবে বৃদ্ধি করবে কি না।

মেধাতালিকা নিয়ে যাদবপুর কর্তৃপক্ষকে ভাবনাচিন্তা করতে বললেন পার্থ

সংশোধিত মেধা তালিকা প্রকাশ করা হবে 21-22 অগস্ট।     

কলকাতা:

ফের বিতর্কে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বললেন, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের ভেবে দেখা উচিত যে, ইতিহাসের নতুন মেধা তালিকায় স্থান পাওয়া পড়ুয়াদের নম্বর বদলালে তা প্রতিষ্ঠানের উচ্চতা কোনওভাবে বৃদ্ধি করবে কি না। স্নাতকস্তরের নতুন ও সংশোধিত মেধা তালিকার 70’টি নামের মধ্যে নতুন নাম এসেছে  15’টি। গতকাল পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, “এমন একটি ঘটনার কথা আমার কানে এসেছে যে, গত মেধা তালিকায় যে শূন্য পেয়েছিল, এই নতুন ও সংশোধিত মেধা তালিকায় তার নম্বরই হয়ে দাঁড়িয়েছে নব্বই। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের একবার ভেবে দেখা উচিত যে, এমন ঘটনা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম কোনওভাবে উজ্জ্বল করবে কি না”।

শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, “ঠিক এই কারণেই আমি বরাবর বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাডমিশন প্রক্রিয়ায় সমরূপতা বজায় রাখার কথা বলে এসেছিলাম।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার চিরঞ্জীব ভট্টাচার্য বলেন, “ইতিহাসের মেধা তালিকা প্রকাশের পর কয়েকজন অভিভাবকের কাছ থেকে অভিযোগ পাই আমরা। তারপরই যে তিনশো চুয়াল্লিশজন পড়ুয়া অ্যাডমিশন টেস্টে বসেছিল, তাদের প্রত্যেকের উত্তরপত্র পুনরায় মূল্যায়ন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়”।

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকস্তরের ইতিহাসের সংশোধিত মেধা তালিকা প্রকাশ করা হবে 21-22 অগস্ট।     

More News