This Article is From Oct 16, 2018

#Me too: কাজে যোগ দিলেন বিদেশ প্রতিমন্ত্রী এম জে আকবর

কাজে  যোগ  দিলেন বিদেশ প্রতিমন্ত্রী এম জে আকবর। সরকারি কাজে বিদেশে থাকার সময় তাঁর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ উঠেছে।

#Me too: কাজে  যোগ  দিলেন  বিদেশ প্রতিমন্ত্রী এম জে আকবর

8 অক্টোবর সাংবাদিক প্রিয়া রামানি  টুইটারে  প্রথম অভিযোগ করেন।

হাইলাইটস

  • কাজে যোগ দিলেন বিদেশ প্রতিমন্ত্রী এম জে আকবর
  • সকালে বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের সঙ্গে একটি বৈঠকে যোগ দেন এম জে
  • বিদেশে থাকার সময় তাঁর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ উঠেছে
নিউ দিল্লি:

কাজে  যোগ  দিলেন বিদেশ প্রতিমন্ত্রী এম জে আকবর। সরকারি কাজে বিদেশে থাকার সময় তাঁর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ উঠেছে। ধীরে ধীরে বিরাট আকার ধারন করা  মিটু (#Me too) অন্দোলনের অঙ্গ হিসেবে প্রায় এক ডজন মহিলা সাংবাদিক এম জে-র বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ  করেন। দেশে  ফিরে  রবিবারই মন্ত্রী বুঝিয়ে দেন পদত্যাগ করবেন না।  পাশাপাশি আইনি  ব্যবস্থা  নেওয়ার কথাও বলেন  দেশের একাধিক প্রথমসারির সংবাদপত্রকে নেতৃত্ব  দিয়ে আসা আকবর।  আজ সকালে বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের সঙ্গে প্রসার ভারতী দিন সংক্রান্ত একটি বৈঠকে যোগ দেন এম জে।

রবিবার দেশে ফিরে সংবাদ  মাধ্যমে বিবৃতি জারি করে  আকবর বলেন, আমার  বিরুদ্ধে  তোলা অশালীন আচরণের অভিযোগ  মিথ্যা। এরপর তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলা প্রিয়া  রামানি থেকে শুরু করে আরও  কয়েকজনের নাম করে কয়েকটি তথ্য দেন আকবর।

8 অক্টোবর সাংবাদিক প্রিয়া রামানি  টুইটারে  প্রথম অভিযোগ করেন।  পরে প্রেরণা সিং বিন্দ্রা, ঘাজালা ওয়াহাব, সুতপা পাল, অঞ্জু ভারতী, সুপর্ণা শর্মা, সুষমা রাহা, মালিনী ভূপ্তা, কণিকা গহলত, কাদম্বরী এম ওয়াদেও  অভিযোগ করেছেন। 

মিটু  অভিযোগ ঘিরে  সংবাদ মাধ্যমে  হৈ চৈ শুরু হলেও রাজনৈতিক শ্রেণি খুব একটা  ভাবিত নয় । দু একটি দল বাদ  দিলে বেশিরভাগ রাজনৈতিক দলই  এ ব্যাপারে  নীরব। আর শুধু এম জে নয় কাজ চালাচ্ছেন একই অভিযোগে  অভিযুক্ত কংগ্রেসের ছাত্র সংগঠনের প্রধান ফ্যারোজ খান। দলীয় সূত্র  বলছে তাঁর বিরুদ্ধে  তদন্ত শুরু হয়েছে।

আরও পড়ুন: #MeToo: সাংবাদিক প্রিয়া রামানির বিরুদ্ধে মানহানির মামলা দায়ের করলেন আকবর

 

 

NDTV থেকে প্রকাশিত কোনো তথ্য যদি আপনার শেয়ার করতে ইচ্ছা করে, তাহলে দয়া করে মেল করুন worksecure@ndtv.com