‘তিন তালাক’ বিলের বিরোধিতা করেও বিল পাশের সময় মেহবুবা মুফতির দলের আশ্চর্য পদক্ষেপ

মেহবুবা মুফতি এর আগেই তিন তালাক বিলের বিরোধিতা করেছিলেন। তাঁর দাবি ছিল বিজেপি ‘‘আমাদের ঘরে ঢুকে পড়ছে’’।

‘তিন তালাক’ বিলের বিরোধিতা করেও বিল পাশের সময় মেহবুবা মুফতির দলের আশ্চর্য পদক্ষেপ

প্রথম থেকেই এই বিলের বিরোধিতা করে আসছেন মেহবুবা

হাইলাইটস

  • রাজ্যসভায় পাশ হয়ে গেল তিন তালাক বিল
  • মেহবুবা মুফতির পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টি অংশ নেয়নি ভোটে
  • এই সুযোগে সংখ্যাগুরু হয়ে যায় বিজেপি
নয়াদিল্লি:

মঙ্গলবার রাজ্যসভায় (Rajya Sabha) পাশ হয়ে গেল নরেন্দ্র মোদি সরকার (Narendra Modi Goverment) প্রস্তাবিত বিতর্কিত তিন তালাক বিল (Triple Talaq bill)। বহু সাংসদের অনুপস্থিতি, ওয়ার্ক আউটের মধ্যে দিয়েই সেটি পাশ হল। তাদের মধ্যে অন্যতম ছিল মেহবুবা মুফতির পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টি। তাঁর দলের দুই সাংসদ বিল সম্পর্কে বিরত থাকলেন। কেননা তাঁদের দলের নেতারা জানিয়ে দিয়েছিলেন তাঁরা কোনওভাবেই বিজেপির পাশে থাকবেন না। উচ্চ কক্ষে বহু অনুপস্থিতির সুযোগে সংখ্যাগুরুর সংখ্যা কমে যায়। ফলে পক্ষে ৯৯টি ও বিপক্ষে ৮৪টি ভোট পড়ায় পাশ হয়ে গেল বিল। প্রথম বারের মোদি সরকার রাজ্যসভায় এই বিলটি পাশ করতে পারেনি। অবশেষে তারা সাফল্য পেল।

মেহবুবা মুফতি এর আগেই তিন তালাক বিলের বিরোধিতা করেছিলেন। তাঁর দাবি ছিল বিজেপি ‘‘আমাদের ঘরে ঢুকে পড়ছে''।

‘তিন তালাক' বিল পাশ রাজ্যসভায়, 'ঐতিহাসিক দিন', বলল কেন্দ্র

মঙ্গলবার তিনি টুইট করেন, ‘‘বুঝতে পারছি না তিন তালাক বিল পাশ করানোর প্রয়োজনীয়তা কী, বিশেষ করে যখন সুপ্রিম কোর্টই আগেই এটাকে বেআইনি ঘোষণা করেছে। মুসলিমদের শাস্তি দিতে অন্যায্য হস্তক্ষেপ। অর্থনীতির বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে সবাই জানে, সেটাই কি অগ্রাধিকার পাওয়া উচিত নয়?''

তবে মেহবুবা এটা জানাননি কেন, তাঁর দলের সাংসদরা উচ্চ কক্ষে নিবৃত থাকলেন। মেহবুবার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ওমর আবদুল্লা পাল্টা টুইট করেছেন।

“ভারতবর্ষ আজ আনন্দিত”, তিন তালাক বিল পাশে প্রতিক্রিয়া প্রধানমন্ত্রীর

তিনি তাঁর টুইটে লিখেছেন, ‘‘মেহবুবা মুফতিজি, টুইট করার আগে আপনার দেখা উচিত আপনার সদস্যরা কী রকম ভোট দিল এই বিলের ব্যাপারে। আমি বুঝি তাঁদের নিস্পৃহতাই সরকারকে সাহায্য করল বিল পাশের জন্য সংখ্যা গরিষ্ঠ হতে। আপনি সরকারকে সাহায্য করবেন না অথচ ‘তিন তালাক বিল পাশ করানোর প্রয়োজনীয়তা কী' সেটা বুঝলেন না!''

গত বছরের জুন পর্যন্ত বিজেপির জোটসঙ্গী পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টি জম্মু ও কাশ্মীরের সরকার চালিয়েছিল। কিন্তু ভিন্ন আদর্শের কারণে শেষ পর্যন্ত অত্যন্ত তিক্ততার মধ্যে দিয়ে সেই জোট ভেঙে যায়।

ওমর আবদুলাল আরও একটি টুইট করেছেন। সেখানে তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, ‘‘@jkpdp সরকারকে সংসদে সমর্থন করছে। খরগোশদের সঙ্গে দৌড়ে শিকারীদের সঙ্গে শিকার?''

আরটিআই বিলের বিরুদ্ধেও তাঁদের মতামত জানিয়েছিলেন মেহবুবা। কিন্তু রাজ্যসভায় বিলটি পাশ হয়ে যাওয়ার পরে শোনা যায় তাঁর দল নাকি বিলটি পাশ করতে সাহায্য করে।

More News