“একসঙ্গে সমস্যার সমাধান করতে হবে”, শাহিনবাগের বিক্ষোভকারীদের বললেন মধ্যস্থতাকারীরা

সংবাদমাধ্যমের বাইরে বিক্ষোভকারী মহিলাদের সঙ্গে কথা বলতে চান মধ্যস্থতাকারীরা

দিল্লির শাহিনবাগে (Shaheen Bagh) সুপ্রিম নিযুক্ত মধ্যস্থতাকারী সঞ্জয় হেগরে এবং সাধনা রামচন্দ্রন

নয়াদিল্লি:

বুধবার দিল্লির শাহিনবাগে(Shaheen Bagh)  নাগরিকত্ব সংশোধন আইনের (Citizenship Amendment Act) বিরুদ্ধে প্রায় ২ মাস ধরে বিক্ষোভরত মহিলাদের সঙ্গে দেখা করতে গেলেন সুপ্রিম নিযুক্ত মধ্যস্থতাকারী সঞ্জয় হেগরে (Sanjay Hegde) এবং সাধনা রামচন্দ্রন (Sadhana Ramachandran) । সেখানে বিক্ষোভরত মহিলাদের সঙ্গে কথা বলতে যান তাঁরা। দুমাস ধরে বিক্ষোভ চলার কারণে, মূল রাস্তা আটকে থাকা এবং আইনশৃঙ্খলার পরিস্থিতির কথা একাধিকবার তুলে ধরেছে বিজেপি। সংবাদমাধ্যমের বাইরে বিক্ষোভকারী মহিলাদের সঙ্গে কথা বলতে চান মধ্যস্থতাকারীরা। যদিও সাংবাদিকদের উপস্থিতিতেই কথা বলতে চান বিক্ষোভরত মহিলারা। সাধনা রামচন্দ্রন সাংবাদিকদের বলেন, “সুপ্রিম কোর্ট আপনাদের প্রতিবাদের অধিকার বহাল রেখেছেন। আমরা সবার কথা শুনব। আমাদের এমন একটা সমাধান করতে হবে, যা সারা বিশ্বের কাছে উদাহরণ হয়ে থাকবে”।

সোমবার এই দুই বর্ষীয়ান আইনজীবীকে মধ্যস্থকারী হিসেবে নিয়োগ করে সুপ্রিম কোর্ট। অন্য জায়গায় যাতে তাঁরা বিক্ষোভ করেন, যাতে রাস্তাটি আর আটকে না থাকে, এবং পথচারীদের কোনও সমস্যা না হয়, সে ব্যাপারে শাহিনবাগে বিক্ষোভরত মহিলাদের রাজি করাতে বলা হয়েছে দুই আইনজীবীকে।

আদালত বলে, “প্রতিবা, মানুষের মৌলিক অধিকার”। পাশাপাশি শীর্ষ আদালত আরও বলে, “তবে তার পথ এবং সীমা আছে...সবাই যদি রাস্তা অবরোধ শুরু করে, সাধারণ মানুষ কোথায় যাবেন”?

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com