আদৌ জেলে নেই, জৈশ-এর সদর দফতরে বহাল তবিয়তে মাসুদ আজহার, জানাচ্ছে সূত্র

জঙ্গি নেতা মাসুদ আজহার (Masood Azhar) জেলে নেই। জৈশ-ই-মহম্মদের (Jaish-e-Mohammed) সদর দফতরে বহাল তবিয়তে রয়েছে সে। এমনটাই জানাচ্ছে সূত্র।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
আদৌ জেলে নেই, জৈশ-এর সদর দফতরে বহাল তবিয়তে মাসুদ আজহার, জানাচ্ছে সূত্র

যাচ্ছে, জৈশ-ই-মহম্মদের সদর দফতর ‘মার্কাজ সুভানাল্লাহ’-তে এই মুহূর্তে রয়েছে আজহার।


নয়াদিল্লি: 

হাইলাইটস

  1. জৈশ-ই-মহম্মদের সদর দফতরে এই মুহূর্তে রয়েছ আজহার
  2. শারীরিক অবস্থার উন্নতি হলেও এখনই ধর্মীয় বক্তৃতা দিয়ে নারাজ সে
  3. যদিও পাকিস্তান (দাবি জানিয়েছিল, গ্রেফতার করা হয়েছে তাকে

জঙ্গি নেতা মাসুদ আজহার (Masood Azhar) জেলে নেই। জৈশ-ই-মহম্মদের (Jaish-e-Mohammed) সদর দফতরে বহাল তবিয়তে রয়েছে সে। পাকিস্তানের বাহওয়ালপুরে অবস্থিতি ওই সদর দফতর। যদিও পাকিস্তান (Pakistan) দাবি জানিয়েছিল, গ্রেফতার করা হয়েছে বহু জঙ্গি হামলার মাথা এই নেতাকে। সরকারি সূত্র থেকে জানা যাচ্ছে, জৈশ-ই-মহম্মদের সদর দফতর ‘মার্কাজ সুভানাল্লাহ'-তে এই মুহূর্তে রয়েছে আজহার। শারীরিক অবস্থার উন্নতি হলেও এখনই ধর্মীয় বক্তৃতা দিয়ে নারাজ সে। অভিযোগ, পাকিস্তান জঙ্গিদে‌র এখনও আশ্রয় দিচ্ছে। সেদেশের মাটিতেই চলছে প্রশিক্ষণ। তারপর সেখান থেকে জম্মু ও কাশ্মীরে পাঠানো হচ্ছে তাদের। যদিও এমন অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

গত ফেব্রুয়ারিতে পুলওয়ামায় জঙ্গি হানায় ৪০জন সেনা শহিদ হন। সেই হামলারও মূল চক্রী ছিল আজহার। ভারত তাকে বহুদিন ধরেই সন্ত্রাসবাদী বলে চিহ্নিত করতে চেয়েছে। কিন্তু পাকিস্তানের সঙ্গ দিয়ে এসেছে চিন। অবশেষে গত মে মাসে চিন প্রতিবাদের পথ থেকে সরে দাঁড়ানোয় রাষ্ট্রসঙ্গে সন্ত্রাসবাদী হিসেবে চিহ্নিত করা গিয়েছে আজহারকে।

“প্রত্যেকটি অবৈধ অনুপ্রবেশকারীকে তাড়ানো হবে”, অসমে বললেন অমিত শাহ

২৬/১১ মুম্বই হামলার মূল চক্রী আজহার। গত সপ্তাহে ইউপিএ আইনের বলে আজহারকে জঙ্গি হিসেবে চিহ্নিত করেছে।

পাকিস্তানের বাহওয়ালপুরে অবস্থিত ওই সদর দফতর। যদিও পাকিস্তান দাবি জানিয়েছিল, গ্রেফতার করা হয়েছে বহু জঙ্গি হামলার মাথা এই নেতাকে। সরকারি সূত্র থেকে জানা যাচ্ছে, জৈশ-ই-মহম্মদের সদর দফতর ‘মার্কাজ সুভানাল্লাহ'-তে এই মুহূর্তে রয়েছে আজহার। শারীরিক অবস্থার উন্নতি হলেও এখনই ধর্মীয় বক্তৃতা দিয়ে নারাজ সে। পাকিস্তান জঙ্গিদে‌র আশ্রয় দিচ্ছে। সেদেশের মাটিতেই চলছে প্রশিক্ষণ। তারপর সেখান থেকে জম্মু ও কাশ্মীরে পাঠানো হচ্ছে তাদের। এমন অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

জম্মু ও কাশ্মীরের তরুণ প্রজন্মকে ব্যবসায় উৎসাহিত করতে আর্মির পদক্ষেপ

জানা যাচ্ছে, জৈশ-এর এই নতুন দফতর ‘মার্কাজ সুভানাল্লাহ'সমস্ত আধুনিক সুযোগসুবিধাসম্পন্ন এক বিল্ডিং কমপ্লেক্স। এখানেই দল‌ের শীর্ষনেতারা মিলিত হয়। আজহার ছাড়াও তার ভাই ও অন্যান্য আত্মীয়রা এখানে রয়েছে।

জম্মু ও কাশ্মীর থেকে স্পেশাল স্ট্যাটাস তুলে নেওয়ার পরে পাকিস্তান জৈশ ও অন্যান্য বড় জঙ্গি সংগঠনগুলিকে ওই রাজ্যে আবার উত্তেজনা তৈরি করতে গিয়ে, এমনটাই শোনা যাচ্ছে।

ভারতীয় নেভি সূত্রে খবর পাওয়া গিয়েছে, কচ্ছ এলাকা দিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছে পাক জঙ্গিরা। সমুদ্রপথে গুজরাতে ঢুকে কোনও সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা ঘটানো বা জঙ্গি হানা চালানোর চেষ্টা করতে পারে তারা। নেভি চিফ অ্যাডমিরাল করমবীর সিংহ জানাচ্ছে, তিনি গোয়েন্দাদের রিপোর্ট থেকে জানতে পেরেছেন জৈশ জলের তলায় আক্রমণ করার প্রশিক্ষণ দিচ্ছে তাদের জঙ্গিদের। তিনি জানাচ্ছেন, এমন কোনও হামলার মোকাবিলা করার জন্ট প্র্স্তুত ভারতীয় সেনা।

জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল জানিয়েছেন, ‘‘অন্তত ২৩০ জন জঙ্গি কাশ্মীরের বিভিন্ন অংশে ঢুকতে চাইছে।''

তিনি এও জানান, বিপুল অস্ত্রশস্ত্র চোরাচালান করা হয়েছে। কাশ্মীরের নাগরিকদের সমস্যা তৈরি করতে উস্কানি দিচ্ছে জঙ্গিরা।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................