বাড়ি ফিরল শৌচাগারের আগুন্তুক অজগর

নিজের বাড়ির শৌচাগারেই এত সতর্ক কেন থাকতে হয় তাঁকে ?

বাড়ি ফিরল শৌচাগারের আগুন্তুক অজগর

ছবি সহ নিজের অভিজ্ঞতাঁর কথা ফেসবুকে লিখেছন জেমস।

সে রাতের পর চিন্তা ভাবনায় এসেছে বদল জেমস হুপাররে। এখন শৌচাগারে ঢুকলে আগে সব দিক ভাল করে পরীক্ষা করে নেন ভার্জিনিয়ার বাসিন্দা জেমস। নিজের বাড়ির শৌচাগারেই এত সতর্ক কেন থাকতে হয় তাঁকে ? নাব জেমসের গল্পটা জানলে তাঁকে  দোষ দেওয়া বা অতি সাবধানী বলার কোনও অবকাশই থাকবে না। জানা গিয়েছে কয়েকদিন আগে রাতে এই শৌচাগারেই ঘাপটি মেরে বসেছিল একটি অজগর সাপ! না কোনও বিপদ ঘটানোর আগেই জেমস সেটিকে পাকড়াও করেছেন। কিন্তু সাবধান থাকতে বাধা কোথায়?                

 
 

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের দাবি প্রথমবার অজগরটিকে দেখে তাঁর মনে হয়েছিল এটি নকল। তাঁকে ভয় পাইয়ে মজা দেখতেই কেউ এমনটা করেছে। কিন্তু একটু বাদেই  বুঝতে পারেন যা ভাবছেন সেটা ঠিক নয়। অজগর ধীরে ধীরে মাথা দোলাচ্ছে দেখেই সবটা বোঝা হয়ে যায় জেমসের। সাহায্যের জন্য ডাকেন বন্ধু কেনিকে। দুজনে আলাপ আলোচনা করে ঠিক করেন কী করতে হবে। সেই মতো অজগরকে বাইরে বের করে নিয়ে আসা হয়। খবর পেয়ে সেটিকে উদ্ধার করে নিয়ে যান সরকারি কর্মীরা। ছবি সহ নিজের অভিজ্ঞতার কথা ফেসবুকে লিখেছন জেমস।  এই পোস্ট শুধু যে গোটা দুনিয়ার কাছে জেমস ও তাঁর বন্ধুর  ‘বীরত্ব’ তুলে ধরেছে তা নয়, হারিয়ে যাওয়া আস্তানাও খুঁজে পেয়েছে অজগর। জানা গিয়েছে এটি এক ব্যক্তির কাছে থাকত।  কোনও ভাবে সেখান থেকে বাইরে চলে আসে। জেমসের পোস্ট দেখে ওই ব্যক্তি বুঝতে পারেন গোটা ব্যাপারটা। এরপরই  সরকারি দপ্তরের সঙ্গে যোগাযোগ করেন তিনি। বাড়ি ফিরে আসে অজগর।  

Newsbeep