তোষণের রাজনীতি করেন বলেই জয় শ্রী রাম শুনে প্রতিক্রিয়া দিচ্ছেন মমতাঃ বাবুল

তিনি বলেন, ‘জয় শ্রীরাম ধ্বনি শুনে মমতা যেভাবে রেগে যাচ্ছেন তা আসলে তাঁর তোষণের রাজনীতির (Politics Of Appeasement ) একটা দিক।’

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
তোষণের রাজনীতি করেন বলেই জয় শ্রী রাম শুনে প্রতিক্রিয়া দিচ্ছেন মমতাঃ বাবুল

আসানসোল থেকে জিতে এসে এবারও মোদী মন্ত্রিসভায় জায়গা হয়েছে বাবুল সুপ্রিয়র।


কলকাতা: 

হাইলাইটস

  1. জয় শ্রী রাম বিতর্ক নিয়ে জল ঘোলা হয়েই চলেছে, এবার আসরে বাবুল
  2. তোষণের রাজনীতি করেন বলেই জয় শ্রী রাম শুনে মমতা রেগে যানঃ বাবুল
  3. এ সব করে সংখ্যালঘুদের পাশে থাকার বার্তাই দেন মমতাঃ বাবুল

জয় শ্রী রাম (Jai Shree Ram)  বিতর্ক  নিয়ে জল ঘোলা হয়েই চলেছে।  এবার আসরে নামলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriyo) । তিনি বলেন, ‘জয় শ্রীরাম ধ্বনি শুনে মমতা যেভাবে রেগে যাচ্ছেন তা আসলে তাঁর তোষণের রাজনীতির (Politics Of Appeasement ) একটা দিক।' সাংবাদিকদের বাবুল বলেন, ‘যেভাবে জয় শ্রীরাম বলা হচ্ছে সেভাবেই যদি আল্লাহু আকবর বলা হত তাহলে কি মমতা দিদি গাড়ি থেকে নেমে যারা স্লোগান দিচ্ছে তাঁদের  ধাওয়া করতেন? আমরা তো মুখ্যমন্ত্রীকে ইফতারে অংশ নিতে দেখি। গোটা বিষয়টির নেপথ্যে আছে  তাঁর তোষণের রাজনীতির। 

সৌজন্যে দলবদল! আনুষ্ঠানিকভাবে ভাটপাড়া পুরসভা দখল করল বিজেপি, নজরে আরও তিন

আসানসোল থেকে জিতে এসে এবারও মোদী মন্ত্রিসভায় জায়গা হয়েছে বাবুল সুপ্রিয়র। আগে ছিলেন ভারী শিল্প দফতরের রাষ্ট্রমন্ত্রী। এখন হয়েছেন বন এবং পরিবেশ দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী। তৃণমূলের কড়া সমালোচক হিসেবে রাজনৈতিক মহলের পরিচয় রয়েছে বাবুলের। ফের একবার স্বমহিমায় তিনি বলেন, ‘এভাবে আচরণ করে মমতা আসলে সংখ্যালঘুদের বোঝানোর চেষ্টা করছেন তিনি তাদের পাশে রয়েছেন। কোনও অবস্থাতেই তিনি তাঁদের ছেড়ে যাবেন না।'

জয় শ্রী রাম ধ্বনি ঘিরে তৈরি হওয়া বিতর্কের বয়স  মাসখানেকেরও বেশি। লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে মেদিনীপুর চন্দ্রকোণায় গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সে সময় তাঁর গাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে কয়েকজন জয় শ্রীরাম বলতে থাকে। গাড়ি থেকে নেমে তাদের দিকে এগিয়ে যান মমতা। এরপর তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ। একই ঘটনা ঘটে উত্তর চব্বিশ পরগনার ভাটপাড়ায়। শুধু মুখ্যমন্ত্রী নন রাজ্য মন্ত্রিসভার অন্য সদস্যদের দেখেও জয় শ্রীরাম ধ্বনি দেওয়া হচ্ছে। আর তা ঘিরেও পরিস্থিতির রণক্ষেত্রের চেহারা নিয়েছে ওই ভাটপাড়াতেই। 

রামের টিআরপি কমে গিয়েছে বলেই নতুন স্লোগান দিচ্ছে বিজেপি, কটাক্ষ অভিষেকের

এ নিয়ে রাজনৈতিক চাপানউতোর চলছে। পাশাপাশি প্রতিক্রিয়া দিয়েছে অন্য কয়েকটি মহলও। গতকাল এনডিটিভিকে দেওয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে অপর্ণা সেন জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রীর এ ধরনের আচরণ তাঁর ভালো লাগে না। অভিনেত্রী মনে করেন ধর্মের সঙ্গে রাজনীতিকে গুলিয়ে ফেলা উচিত নয়। কিন্তু ভারত একটি গণতান্ত্রিক দেশ। সেখানে কেউ জয় শ্রীরাম স্লোগান দিতে পারে, কেউ আল্লাহু আকবার বলতেই পারে। তাদের আটকানোর কোনও পথ নেই। তাঁকে বলতে শোনা যায় এ ধরনের আচরণ করে মমতা আসলে নিজের কবর নিজেই খুঁড়ছেন।  



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................