"না বলাটা আরো শক্তিশালী বলা": অযোধ্যা রায়ের দিন “না বলা” কবিতা লিখলেন মমতা

অনেকে আবার বলছেন “কথা ব্যথার উদ্রেক করে যা মানসিক দূষণ বাড়ায়...” এই পংক্তিতে কবি মুখ্যমন্ত্রী আসলে বলতে চেয়েছেন অযোধ্যার রায়ের পরে মন্তব্য করে মানসিক শান্তির ব্যাঘাত ঘটাতে চাইছেন না তিনি।

কলকাতা:

কবিতা লিখতে বরাবরই ভালোবাসেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর কাব্যপ্রতিভার কথা কারও অজানা নয়। ছবি আঁকা হোক বা সুরুচির থিম সং লেখা বরাবরই বিভিন্ন প্রাসঙ্গিক মুহূর্তে প্রাসঙ্গিক কথা নিজের তুলিতে বা কলমে ধরেন মমতা। সম্প্রতি আবার কলমে জোয়ার এসেছে মুখ্যমন্ত্রীর। সারা দেশ যখন অযোধ্যা মন্দির মসজিদ রায় নিয়ে তুলকালাম, রায় ঘোষণার সন্ধ্যাতেই মমতার কলম প্রসব করল নতুন এক কবিতা। না বলা..... কী বলতে পারছেন না মুখ্যমন্ত্রী? অথবা না বলতে চেয়েও কী বলছেন তৃণমূল সুপ্রিমো? অযোধ্যা মামলার রায় ঘোষণার পরেই রাজ্যের প্রধান বিরোধী দলের তরফে মামলার রায় নিয়ে তৃণমূলের ‘নীরবতা' নিয়ে প্রশ্ন তোলেন বিজেপির দিলীপ ঘোষ। প্রশ্ন উঠছে, মমতার এই কবিতা কি সেই প্রশ্নেরই জবাব? কী লিখেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়?

আরও পড়ুনঃ Viral Video: ‘বহুরূপে সম্মুখে'! বাড়ির পুজোয় কষিয়ে ভোগ রাঁধছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

“অনেক সময় কথা না বলেও অনেক কথা বলা হয়ে যায়। কিছু বলার থেকে না বলাটা আরো শক্তিশালী বলা....” মুখ্যমন্ত্রীর কবিতা পড়ে রাজনৈতিক মহলের একাংশ বলছে অযোধ্যা রায়ের পরেই এই কবিতা প্রমাণ করছে রায়ে আসলে ব্যথিত মুখ্যমন্ত্রী। অনেকে আবার বলছেন “কথা ব্যথার উদ্রেক করে যা মানসিক দূষণ বাড়ায়...” এই পংক্তিতে কবি মুখ্যমন্ত্রী আসলে বলতে চেয়েছেন অযোধ্যার রায়ের পরে মন্তব্য করে মানসিক শান্তির ব্যাঘাত ঘটাতে চাইছেন না তিনি। তবে অনেকে এও বলছেন, কবিতায় তো অযোধ্যা বা সেই বিষয়ের নামগন্ধই নেই, এ নিছক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অব্যক্ত ভাবনার বহিঃপ্রকাশ।

আরও পড়ুনঃ মালা রায়ের সমর্থকদের হাতে লাঞ্ছিত বিদ্যুৎমন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়!

তবে শুধু বাংলায় নয়, একই কবিতা ইংরেজিতেও লিখেছেন তিনি। “The intensity of pain, Is realised when, You are in deep sorrow. When you are Unable to express your thoughts, It creates a pain,” Unsaid নামের ওই কবিতায় লিখেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

মুখ্যমন্ত্রীর কবিতার বইও বাজারে রয়েছে। এছাড়াও নিজের ফেসবুক ও টুইটার পেজে কিছু লিখলেই তা পোস্ট করেন তিনি। আর মানুষও প্রশংসায় ভরিয়ে তোলেন তাঁকে। যেমন তার এই কবিতাতেই ছন্দের প্রশংসা করেছেন এক ব্যক্তি অথবা সমর্থক। আরেক অনুরাগীও এই কঠিন সময়ে কলম ধরার জন্য অভিনন্দন জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রীকে।

More News