মুখ্যমন্ত্রীর মিম কাণ্ডে ধৃতকে ছাড়তে দেরি কেন! রাজ্যকে শো কজ নোটিশ সুপ্রিম কোর্টের

ওই মামলার অভিযুক্ত বিজেপি কর্মীকে শীর্ষ আদালতের নির্দেশের পরেও জামিনে মুক্তি দিতে দেরি করে রাজ্য

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
মুখ্যমন্ত্রীর মিম কাণ্ডে ধৃতকে ছাড়তে দেরি কেন! রাজ্যকে শো কজ নোটিশ সুপ্রিম কোর্টের

মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের মিম বানানোয় প্রিয়ঙ্কা শর্মাকে গ্রেফতার করে রাজ্য পুলিশ


কলকাতা: 

সোশ্যাল মিডিয়ায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee meme case)  মিম বানিয়ে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে গত মাসে ধৃত বিজেপি কর্মীকে (BJP activist) মুক্তি দিতে দেরি করায় বিপাকে রাজ্য সরকার। আদালত অবমাননার অভিযোগে পশ্চিমবঙ্গ সরকারকেই শোকজ নোটিশ (show cause notice) ধরাল সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court)। পিটিশনে বলা হয়, প্রিয়ঙ্কা শর্মা (Priyanka Sharma) নামের ওই বিজেপি কর্মীকে অবিলম্বে মুক্তি দেওয়ার সুপ্রিম নির্দেশের পরেও তাঁকে ছেড়ে দিতে দেরি করে রাজ্য। আর এই ঘটনাতেই আদালত অবমাননা হয়েছে বলে মনে করছে শীর্ষ আদালত। প্রিয়ঙ্কার ভাই রাজীব শর্মার আবেদনের ভিত্তিতে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বে সুপ্রিম কোর্টের ওই বেঞ্চ এই পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্য সরকার ও অন্যদের বিরুদ্ধে ওই নোটিশ জারি করে। 

গাড়ি ভাঙচুর করে তৃণমূল নেতা উদয়ন গুহকে হেনস্থার অভিযোগ; কাঠগড়ায় বিজেপি

বিজেপি যুব মোর্চার নেত্রী প্রিয়ঙ্কা শর্মাকে গত ১০ মে ভারতীয় দণ্ডবিধির ধারা ৫০০ (মানহানি) এবং তথ্য প্রযুক্তি আইনের বিধান অনুসারে গ্রেফতার করে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ। স্থানীয় এক তৃণমূল নেতার অভিযোগের ভিত্তিতেই গ্রেফতার করা হয় ওই বিজেপি নেত্রীকে (BJP activist)।

অভিনেত্রী প্রিয়ঙ্কা চোপড়ার একটি ফ্যাশন অনুষ্ঠানের ছবির সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (CM Mamata Banerjee) মুখ বসানো একটি মিম (meme) সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন বিজেপির যুব মোর্চার নেত্রী প্রিয়ঙ্কা শর্মা। মুহূর্তে তা ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। এরপরেই এক তৃণমূল নেতার অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে। প্রাথমিক ভাবে হাওড়া আদালত তাঁকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেয়। তবে গত ১৪ মে সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন বেঞ্চে ওই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে জামিন পেয়ে যান প্রিয়ঙ্কা।ওই বিজেপি নেত্রীকে অবিলম্বে মুক্তিদানের নির্দেশ দেয় শীর্ষ আদালত। 

এইবছর রাজ্য থেকে ১ কোটি সদস্য সংখ্যা বাড়ানোর লক্ষ বিজেপির; দিলীপ ঘোষ

তবে প্রিয়ঙ্কার দাদা সুপ্রিম কোর্টে অভিযোগ জানান, শীর্ষ আদালতের (Supreme Court) ওই নির্দেশের পরেও তাঁর বোনকে মুক্তি দিতে ২৪ ঘণ্টারও বেশি দেরি করে রাজ্য সরকার। সেই অভিযোগ খতিয়ে দেখেই রাজ্য সরকারকে ওই আদালত অবমাননার নোটিশ (show cause notice)  ধরাল সুপ্রিম কোর্ট।  



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................