Majerhat bridge collapse:- মাঝেরহাট ব্রিজে কোনও কাজ চলছিল না: পূর্বরেল

বুধবার এই ঘটনা নিয়ে একটি বিবৃতি দিয়ে পূর্ব রেল কর্তৃপক্ষ স্পষ্ট জানিয়ে দিল, দুর্ঘটনাস্থলে কোনওরকম রক্ষণাবেক্ষণের কাজ করছিল না তারা।

2 Shares
EMAIL
PRINT
COMMENTS
Majerhat bridge collapse:- মাঝেরহাট ব্রিজে কোনও কাজ চলছিল না: পূর্বরেল

এই দুর্ঘটনার সঙ্গে মেট্রো প্রকল্পের কোনও সম্পর্ক নেই, জানাল মেট্রোরেল

কলকাতা: 

শুধু রাজনৈতিক দলগুলির মধ্যেই নয়, মাঝেরহাট ব্রিজ ভেঙে পড়া নিয়ে তরজা শুরু হয়েছে অন্যান্যদের মধ্যেও। বুধবার এই ঘটনা নিয়ে একটি বিবৃতি দিয়ে পূর্ব রেল কর্তৃপক্ষ স্পষ্ট জানিয়ে দিল, দুর্ঘটনাস্থলে কোনওরকম রক্ষণাবেক্ষণের কাজ করছিল না তারা। “কয়েকটি সংবাদমাধ্যমের পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে যে মাঝেরহাট ব্রিজের একটি অংশে রেলের কাজকর্ম চলছিল। আমরা এই কথা সর্বান্তকরণে অস্বীকার করে পরিষ্কারভাবে বলতে চাই যে, মাঝেরহাট ব্রিজের রেলের কোনওরকম কাজকর্ম চলছিল না”, জানানো হয় ওই বিবৃতিটিতে। রেলের পক্ষ থেকে আরও বলা হয় যে, মাঝেরহাট ব্রিজের ভেঙে পড়া অংশটি তাদের আওতায় ছিল না এবং এই দুর্ঘটনায় রেলের কোনও যাত্রী বা কর্মী আহত অথবা নিহত হননি।

গতকাল বিকেল সাড়ে চারটের সময় মাঝেরহাট ব্রিজ ভেঙে পড়ার পর একজন নিহত হন। আহতের সংখ্যা উনিশ। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বহু গাড়ি। ভাঙা ব্রিজের তলায় একাধিক মানুষের চাপা পড়ে থাকার আশঙ্কাও করা হচ্ছে।

এই চাপানউতোরের মধ্যে রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন মাঝেরহাট ব্রিজের পাশেই মেট্রো রেলের যে কাজ চলছিল, তা ফলেই এই ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটেছে।

মেট্রো কর্তৃপক্ষ যদিও সঙ্গে সঙ্গে জানিয়ে দেয়, এই দুর্ঘটনার সঙ্গে মেট্রো প্রকল্পের কোনও সম্পর্ক নেই।

পূর্ব রেলের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এই ঘটনার ফলে সাময়িকভাবে ট্রেন চলাচল স্থগিত রাখা হয়েছিল।

“চক্ররেল পরিষেবা চালু রয়েছে বিবাদীবাগ স্টেশন থেকে দমদম জংশন স্টেশন পর্যন্ত। বজবজ-বালিগঞ্জ সেকশনের ট্রেন চলাচল সব ধরনের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করেই চালু করা হবে”, বলা হয় রেলের ওই বিবৃতিটিতে।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদিত করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে.)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর, আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

পড়ুন | Read In

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................