সুপ্রিম কোর্টে শিবসেনা, “বিজেপির পক্ষে কাজ করছেন রাজ্যপাল”, তোপ উদ্ধব ঠাকরের দলের

Maharashtra Situation: মহারাষ্ট্রে সরকার গঠনের জন্য আর সময় দিতে চাননি রাজ্যপাল, তারপরেই সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয় শিবসেনা

সুপ্রিম কোর্টে শিবসেনা, “বিজেপির পক্ষে কাজ করছেন রাজ্যপাল”, তোপ উদ্ধব ঠাকরের দলের

সরকার গঠনে এনসিপি ও কংগ্রেসকে যুক্ত করতে কঠোর পরিশ্রম করছে শিবসেনা

মুম্বই:

মহারাষ্ট্রে (Maharashtra) রাষ্ট্রপতি শাসনের সুপারিশ করেছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মন্ত্রিসভা, এই খবরের পরেই সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হল শিবসেনা (Shiv Sena) । মহারাষ্ট্র বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফলের পর (Maharashtra Assembly Election) ২০দিন কেটে গেলেও এখনও সেখানে সরকার গঠন হয়নি। সোমবার, সরকার গঠনের  জন্য ৪৮ ঘন্টার সময়সীমার শিবসেনার দাবি খারিজ করে দিয়ে সরকার গঠনের জন্য শরদ পাওয়ারের এনসিপিকে ডেকেছিলেন রাজ্যপাল ভগৎ সিং কোশিয়ারি। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এনসিপির রাত ৮.৩০ পর্যন্ত সময়সীমা শেষ হচ্ছে। এনসিপিও ৪৮ ঘন্টা সময়সীমা চেয়েছে বলে খবর। শিবসেনার অভিযোগ, “বিজেপির পক্ষে কাজ করছেন” রাজ্যপাল।

শিবসেনাকে সমর্থন কংগ্রেসের, মহারাষ্ট্রে আমন্ত্রণ পেল এনসিপি

সুপ্রিম কোর্টের আবেদনে, শিবসেনা জানিয়েছে, ৪৮ ঘন্টার মধ্যে সরকার গঠন নিয়ে তাদের কথা জানানোর জন্য বিজেপিকে সময় দিয়েছেন রাজ্যপাল, এনসিপি ও কংগ্রেসের থেকে সমর্থনপত্র জোগাড়ের জন্য তাদের মাত্র ২৪ ঘন্টা সময় দেওয়া হয়েছে।

শনিবার থেকে, পরিষদীয় দলের মেয়াদ শেষ হতেই, তিন দলকেই সরকার দাবি জানানোর জন্য আহ্বান করেন রাজ্যপাল। ক্ষমতার ভাগাভাগি নিয়ে শিবসেনার সঙ্গে তৈরি হওয়া মতবিরোধী কাটাতে ব্যর্থ হয় বৃহত্তম দল বিজেপি, শিবসেনাকে সরকার গঠনের দাবি জানানোর আহ্বান করেন রাজ্যপাল, মহারাষ্ট্রে দ্বিতীয় বৃহত্তম দল তারা।

মহারাষ্ট্রে বিজেপিকে সরকার গড়ার আহ্বান জানালেন রাজ্যপাল: দাবিতে অনড় শিবসেনা

তবে সোমবার, সময়সীমা বাড়ানোর জন্য শিবসেনার অনুরোধ খারিজ করেন রাজ্যপাল, এনসিপিকে আহ্বান করেন তিনি, শিবসেনা এবং কংগ্রেসের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে তারা। সরকার গঠনের প্রয়োজনীয় সংখ্যা নেই কংগ্রেস ও এনসিপির, ফলে সরকার গঠন করতে গেলে তাদের শিবসেনার সমর্থন নিতে হবে। দুই দলই এর আগে জানিয়েছে, বিরোধী আসনে বসতে প্রস্তুত তারা।

৫০-৫০ হারে ক্ষমতা ভাগাভাগি, এবং অর্ধেক সময়ের জন্য মুখ্যমন্ত্রী পদেরও ভাগভাগি করা নিয়ে মতবিরোধের জের বিজেপির সঙ্গে দ্বিতীয়বার বন্ধন ছিন্ন করল শিবসেনা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করেন শিবসেনার একমাত্র মন্ত্রী। শরদ পাওয়ারের এনসিপি এবং কংগ্রেসকে সঙ্গে নিয়ে মহারাষ্ট্রে নয়া জোট তৈরি করার চেষ্টা চালাচ্ছে তারা।

More News