মহারাষ্ট্রে বিজেপিকে সরকার গড়ার আহ্বান জানালেন রাজ্যপাল: দাবিতে অনড় শিবসেনা

Maharashtra government: ২৮৮ সদস্যের মহারাষ্ট্র বিধানসভায় ১০৫ টি আসন নিয়ে বিজেপি এবং ৫৬ টি আসনে সেনা সুস্পষ্ট সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

Maharashtra government: মহারাষ্ট্রে বিজেপিকে সরকার গঠনের জন্য আমন্ত্রণ জানালেন রাজ্যপাল।


মুম্বাই: 

মহারাষ্ট্রে বিজেপিকে সরকার গঠনের জন্য আমন্ত্রণ জানালেন রাজ্যপাল (Governor)। ২৮৮ সদস্যের মহারাষ্ট্র বিধানসভায় (Maharashtra assembly) ১০৫ টি আসন নিয়ে বিজেপি এবং ৫৬ টি আসনে সেনা সুস্পষ্ট সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে। তবে দেবেন্দ্র ফডনবীশকে (Devendra Fadnavis) দায়িত্বে রেখে দ্বিতীয়বারের মেয়াদে নির্বিঘ্নে সরকার গড়তে বেগ পাচ্ছে বিজেপি। কারণ, তাঁদেরই জোটসঙ্গী শিবসেনা। এই বছরের শুরুর দিকে, মে মাসে লোকসভা নির্বাচনের আগে অমিত শাহের সঙ্গে আলোচনায় ‘৫০:৫০' (50:50 formula) সমীকরণে খেলতে চেয়েছিল শিবসেনা। সমান ক্ষমতার অংশীদার হওয়ার দাবিতে এখনও স্থির রয়েছে তাঁরা। সেনাদলের মতে, জোটের পরিকল্পনা ছিল প্রতিটি দলই মুখ্যমন্ত্রীদের জন্য পাঁচ বছরের মেয়াদকে নিজেদের মধ্যে সমানভাবে ভাগ করে নেবে।

''বৈচিত্রের মধ্যে ঐক্যের'' সবচেয়ে বড়ো উদাহরণ ভারত: প্রধানমন্ত্রী মোদি

রাজ্যপালের অফিসের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, “মহারাষ্ট্রের রাজ্যপাল শ্রী ভগত সিং কোশিয়ারি আজ একক বৃহত্তম দল ভারতীয় জনতা পার্টির নির্বাচিত সদস্যদের নেতা শ্রী দেবেন্দ্র ফডনবীশকে মহারাষ্ট্রে তাঁর দলের সরকার গঠনের ইচ্ছা এবং দক্ষতার প্রকাশ করতে বলেছেন। মহারাষ্ট্র বিধানসভা নির্বাচন ২১ শে অক্টোবর অনুষ্ঠিত হয়েছিল এবং ২৪ অক্টোবর ফলাফল ঘোষণা হয়েছিল। তবে, ১৫ দিন অতিবাহিত হয়ে গেলেও কোনও দল বা জোটই সরকার গঠন করতে এগিয়ে আসেনি।"

দেবেন্দ্র ফডনবীশ শুক্রবার মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন। দেবেন্দ্র সরকার গঠনের মধ্যরাতের শেষসীমা পার হওয়ার কয়েক ঘন্টা আগে তার পদত্যাগপত্র জমা দেওয়ার জন্য রাজ্যপাল ভগত সিং কোশিয়ারির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন। মহারাষ্ট্র বিধানসভার মেয়াদ আজ, শনিবার শেষ হয়েছে।

অযোধ্যা মামলায় কেন মুসলিমদের আলাদা করে জমি দেওয়া হল? রায়ে কী বলা হয়েছে?

২০১৪ সালে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই ফডনবীশ শিবসেনার বিরুদ্ধে কড়া বক্তব্য দিয়ে এসেছেন। তিনি আরও প্রশ্ন তোলেন, যে শিবসেনা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে লাগাতার আক্রমণ করে গিয়েছে তাঁরা একসঙ্গে জোট চালিয়ে যাওয়ার আদৌ উপযুক্ত কিনা?

“বিশেষত প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তাদের বক্তব্য দেখে আমরা হতবাক ও আহত হয়েছি। বিজেপির কেউই কখনও বাল ঠাকরেকে (সেনার প্রতিষ্ঠাতা) বা উদ্ধব ঠাকরেকে লক্ষ্য করে আক্রমণ করেনি। কিন্তু সেনা মোদিজিকে যে নিরলসভাবে আক্রমণ করেছে, অমনটা আমাদের প্রতিদ্বন্দ্বীরাও করেন নি। আমরা এটা মেনে নিতে পারি না। মনে হচ্ছে শিবসেনা জোট চালিয়ে যেতে আগ্রহী নয়,” বলেন দেবেন্দ্র ফডনবীশ।

বিজেপি এবং শিবসেনা গত মাসে মহারাষ্ট্র নির্বাচনে সুস্পষ্ট সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করার কয়েক ঘন্টা পরে শুরু হয়ে যায় সরকার গড়া নিয়ে মতবিরোধ।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................