মহারাষ্ট্র নিয়ে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় রায় দেবে সুপ্রিম কোর্ট

Maharashtra: "রাজ্যপাল ১৭০ জন বিধায়কের সমর্থন দেখেছিলেন,এটি কোনও জাল চিঠি নয়, তারপরেই তিনি বিজেপিকে শপথ গ্রহণের জন্যে ডেকেছিলেন", বলেন মুকুল রোহাতগি

মহারাষ্ট্র নিয়ে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় রায় দেবে সুপ্রিম কোর্ট

Maharashtra Government Formation: শনিবার মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেন দেবেন্দ্র ফড়নবিশ, উপ মুখ্যমন্ত্রী অজিত পাওয়ার

নয়া দিল্লি:

মহারাষ্ট্র নিয়ে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় রায় দেওয়া হবে, সোমবার জানাল সুপ্রিম কোর্ট। ইতিমধ্যেই মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) অভ্যুত্থান নিয়ে শীর্ষ আদালতকে (Supreme Court) জবাব দিল কেন্দ্র।  "অজিত পাওয়ারের বিজেপিকে সমর্থন দেওয়ার চিঠিতে স্বাক্ষর রয়েছে এনসিপির ৫৪ জন বিধায়কের", সুপ্রিম কোর্টকে জানাল কেন্দ্রীয় সরকার। সোমবার সকালে আদালতের নির্দেশ মেনেই দুটি চিঠি জমা দিয়েছেন কেন্দ্রের আইনজীবী। শনিবার সকালে বিজেপির দেবেন্দ্র ফড়নবিশ যেভাবে হঠাৎ করে মহারাষ্ট্রে সরকার গঠন করেন তার বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করে শিবসেনা, কংগ্রেস এবং শরদ পাওয়ারের ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টি (NCP)। বিজেপি যেভাবে মহারাষ্ট্রে বিধানসভাকে ক্ষমতা নিয়েছে তা অসাংবিধানিক, বিরোধীদের তোলা এই অভিযোগের জবাব দেওয়ার জন্যে সলিসিটার জেনারেল তুষার মেহতা শীর্ষ আদালতের কাছে আরও সময় দেওয়ার বিষয়ে আবেদন করেছেন।

গভীর রাতে অজিত পাওয়ারের সঙ্গে বৈঠক ফড়নবিশের, কী কথা হল তাঁদের মধ্যে ?

শনিবার, সকালেই সকলকে চমকে দিয়ে এনসিপি নেতা অজিত পাওয়ারকে পাশে নিয়ে সরকার গঠন করেন দেবেন্দ্র ফড়নবিশ। অথচ কয়েক দিন ধরেই আলোচনায় ছিল যে এবার মহারাষ্ট্রে সরকার গঠন করতে চলেছে শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস এই তিনটি দলের জোট। যদিও দেখা যায়  মন্ত্রিসভার বৈঠক না করেই শনিবার ভোর ৫ টা ৪৭ নাগাদ বিশেষ ক্ষমতাবলে মহারাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি শাসন প্রত্যাহার করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আর তারপরেই সকাল ৭টা ৫০ মিনিটে সরকার গঠন করে বিজেপি। 

৪ বিধায়ককে "উদ্ধার" করা গেছে, জানাল এনসিপি, মহারাষ্ট্রে টানটান উত্তেজনা

সোমবার সলিসিটার জেনারেল শীর্ষ আদালতকে বলেছেন, অজিত পাওয়ার সমস্ত এনসিপি বিধায়কের সমর্থনের চিঠি জমা দিয়েছিলেন রাজ্যপালের কাছে। তুষার মেহতা বলেন, "অজিত পাওয়ার ২২ নভেম্বর ৫৪ জন বিধায়কের স্বাক্ষর সহ একটি চিঠি জমা দিয়েছিলেন।" এই চিঠির পরেই রাজ্যপাল ভগৎ সিং কোশিয়ারি দেবেন্দ্র ফড়নবিশকে সরকার গঠনের জন্য আমন্ত্রণ জানান।

"এই চিঠিতে বলা হয়েছে, এর আগে আমি সরকার গঠনে অপারগ এই কথা জানিয়েছিলাম। একটি স্থিতিশীল সরকারের জন্য আমরা দেবেন্দ্র ফড়নবিশকে সমর্থন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি এবং আমরা মহারাষ্ট্রের সেবা করব", আদালতকে ওই চিঠির বয়ান তুলে ধরে জানান ওই শীর্ষ আইনজীবী ।

বিজেপির হয়ে সওয়াল করা প্রাক্তন অ্যাটর্নি জেনারেল মুকুল রোহাতগি বলেন: "রাজ্যপাল ১৭০ জন বিধায়কের সমর্থন দেখেছিলেন। এটি কোনও জাল চিঠি নয়। আর তারপরেই তিনি বিজেপিকে শপথ গ্রহণের জন্যে ডেকেছিলেন"। আর এই চিঠি নিয়ে রাজ্যাপলের মনে কোনও সন্দেহের উদ্রেকও হয়নি, এমনটাও জানান রোহাতগি।

দেখুন মহারাষ্ট্রের রাজনৈতিক টানাপোড়েন সহ বিশেষ বিশেষ কিছু খবর:

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com