আসামী ধরতে 'বিয়ের কনে' মহিলা অফিসার! তারপর?

দিল্লিকা লাড্ডু খেয়ে কতটা পস্তাচ্ছেন আসামী? সেই খবর দিতে পারেনি কেউই। 

আসামী ধরতে 'বিয়ের কনে' মহিলা অফিসার! তারপর?

আসামী ধরতে বিয়ের ফাঁদ!

ফাগওয়ারা:

সবাই দাগী অপরাধীর বাড়াবাড়িতে অতিষ্ঠ। দেখলেই গ্রেফতারের হুকুমও রয়েছে। কিন্তু সব্বাইকে যেন নাকে দড়ি দিয়ে ঘোরাচ্ছে। কেউ ছুঁতে পারছে যখন ঠিক তখনই অসম্ভব সম্ভব করলেন এক মহিলা পুলিশ অফিসার। অপরাধীকে বিয়ের প্রস্তাব (matrimonial offer) দিলে রাজি হয় সে। বিয়ের কথা বলতে আসতেই হাতেনাতে গ্রেফতার হয় মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) ছত্তারপুরের রাতের ঘুম কেড়ে নেওয়া এই আসামী। 

ভোটের মধ্যেই বোমা মেরে সেতু ওড়াল মাওবাদীরা

বছর পঞ্চান্ন-র বালকৃষ্ণ চৌবে (Balkrishna Chaubey)। খুন-জখম থেকে ডাকাতি---কিছুই বাদ নেই তার। এলাকার ত্রাস এই আসামী অপরাধ করেই পালাত উত্তরপ্রদেশে। অনেকবার পুলিশের হাতে ধরা পড়তে পড়তে বেঁচে পালিয়েছে সে। শেষে বালকৃষ্ণকে ধরার দায়িত্ব দেওয়া হয় ছা্ত্তারপুরের গারোল্লি থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার মাধবী অগ্নিহোত্রীকে। এরপরেই তাকে ধরতে বিয়ের ফাঁদ পাতে প্রশাসন। মাধবী নিজের পুরনো ছবি পাঠায় গোপন ডেরায়। জানায়, পাত্রী দেখা হচ্ছে তার জন্য। বিয়ের কথা বলার জন্য ডাকাও হয় তাকে। এবং নারীর ডাক উপেক্ষা করতে না পেরে বৃহস্পতিবার উত্তরপ্রদেশের বিজোরিতে হাজির হতেই তিনজন কনস্টেবলের সাহায্যে চৌবেকে গ্রেফতার করেন মাধবী। এই তিন কনস্টেবল অতুল ঝা, মনোজ যাদব, জ্ঞান সিং।

বিজেপি সমর্থকদের উদ্দেশে পিস্তল দেখালেন কংগ্রেস প্রার্থী

পরের দিনই তাকে কোর্টে তোলা হলে জেলহাজতের নির্দেশ দেয় আদালত। দিল্লিকা লাড্ডু খেয়ে কতটা পস্তাচ্ছেন আসামী? সেই খবর দিতে পারেনি কেউই। 



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)
More News