বাচ্চাদের মতো আচরণ করে ভোট জেতা যায় না, একই মাঠে মঞ্চ নিয়ে মমতাকে তোপ মোদীর

বাচ্চার মতো আচরণ  করে ভোট জেতা  যায় না। মোদীর মঞ্চের পাশেই মমতার মঞ্চকে কটাক্ষ করে একথা বললে মোদী। ।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
বাচ্চাদের মতো আচরণ করে ভোট জেতা যায় না, একই মাঠে মঞ্চ নিয়ে মমতাকে তোপ মোদীর

পায়ের তলা  থেকে  মাটি  সরে গেলে  কী অবস্থা  হয় সেটা  দিদিকে দেখে  বোঝা যাচ্ছেঃ মোদী


কোচবিহার: 

হাইলাইটস

  1. চার দিনের ব্যবধানে রাজ্যে এসে কোচবিহারে জনসভা করলেন প্রধানমন্ত্রী
  2. আপনারা মোদী মোদী করলে স্পিড ব্রেকার দিদির রাতের ঘুম চলে যাচ্ছে
  3. ভিড় প্রমাণ করছে এ রাজ্য দিদির হাত থেকে মুক্তি চাইছেঃ মোদী

বাচ্চার মতো আচরণ  করে ভোট জেতা  যায় না। মোদীর মঞ্চের পাশেই মমতার মঞ্চকে কটাক্ষ করে একথা বললে মোদী (PM Modi)। চার দিনের ব্যবধানে  রাজ্যে এসে কোচবিহারের রাসমেলা মাঠে জনসভা করলেন  প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, বিজেপির সভায় যাতে ভিড় কম হয় তার জন্য মমতার  (Bengal CM) মঞ্চ  তৈরি করে রাখা হয়েছে।  আপনাদের ভালবাসায় আমার দায়িত্ব বেড়ে যাচ্ছে। আপনারা যতবার মোদী মোদী করেন স্পিড ব্রেকার দিদির (Speed Breaker) রাতের ঘুম চলে যাচ্ছে।  ক্ষমতা হারানোর ভয়ে মুখ্যমন্ত্রী (Chief Minister) আমাকে আর কমিশনের উপর রেগে যাচ্ছেন। আপনাদের ভিড় প্রমাণ করছে এ রাজ্য দিদির হাত থেকে মুক্তি  চাইছে। পায়ের তলা  থেকে  মাটি  সরে গেলে  কী অবস্থা  হয় সেটা  দিদিকে দেখে  বোঝা যাচ্ছে।

শিলিগুড়ির মতো এই কোচবিহার থেকেও মোদী বলেন, রাজ্যে পিসি ভাইপোর সরকার অনুপ্রবেশকারীদের সাহায্য করছেন। মানুষ (Human Trafficking ) থেকে শুরু করে পশুদের (Animal Trafficking) যারা পাচার করে তাদের সাহায্য করছে।

"বিজেপিকে খুশি করার জন্যই করা হল",পুলিশকর্তা বদলি নিয়ে কমিশনকে চিঠি মমতার

ভোট পেতে মা মাটি মানুষের কথা দিদি ভুলে গিয়েছেন ।  যাঁরা  দেশে দুজন প্রধানমন্ত্রী চান দিদি তাঁদের সমর্থন করছেন। এয়ার স্ট্রাইকের (Balakot Air Strike) প্রসঙ্গে তুলে  ধরে  প্রধানমন্ত্রী বলেন,   সমস্ত অসম্ভব এখন সম্ভব হচ্ছে। একটা সময় মনে হত ভারত জঙ্গিদের বাড়িতে ঢুকে মারতে পারবে না। এখন সেটা হয়। ২০১৪ সালে রোজ সন্ত্রাসবাদী (Terrorist Activity) হামলা হত। তখনকার সরকার জানত  কারা  এই  সন্ত্রাসবাদীদের পাঠাচ্ছে। সেনা বাহিনী বদলা নেওয়ার অনুমতি চাইলেও সরকার দিত না। প্রতিদিন জঙ্গিদের হাতে আমাদের বীর সেনা  জওয়ানদের মৃত্যু হত।  তখনকার সরকার সিদ্ধান্ত নিতে পারত না। এখন নতুন  ভারত জঙ্গিদের বাড়িতে ঢুকে মারতে প্রস্তুত। কিন্তু কিছু লোকের তাতেওই সমস্যা  হয়। মহাকাশে ভারত সাফল্য পেলে বা জঙ্গিদের বাড়ি গিয়ে মারলে দিদির কষ্ট হয়।

এদিনের সভা  থেকে আবারও মমতাকে  স্পিড ব্রেকার দিদি বলে  কটাক্ষ করেন  প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, স্পিড ব্রেকার দিদি না আটকালে রাজ্যে উন্নয়ন হত। এই নির্বাচনে দিদিকে  শিক্ষা দিতে হবে। দিদির আসল চেহেরা পৃথিবীর কাছে  নিয়ে আসতে হবে।

ভোট লুঠের পরিকল্পনা ভেস্তে গেল বলেই কি রেগে যাচ্ছেন মমতাঃ দিলীপ

 দিদি এখন সারাদিন বলেন  মোদী হাটাও। কিন্ত দেশের মহিলা  থেকে শুরু করে  যুবকরা  মোদীর রক্ষাকবচ। তাঁকে কে সরাবে? নাম না করে এসএসসি প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দিদি কি আপনাদের  বলেছেন, কেন পরীক্ষায় পাশ করার পরও বাংলার যুবক যুবতীরা চাকরি পায় না? ত্রিপুরাতেও একই জিনিস হত। এখন বামেদের  হাত থেকে ক্ষমতা আমাদের হাতে এসেছে। ত্রিপুরায় আমরা বামেদের মডেলকে নিইনি। এ রাজ্যে দিদি বামেদের রাস্তায় হাঁটছেন। আমি ভাবতে পারিনি মমতা এমন কিছু করবেন। চিটফান্ড কান্ড  নিয়ে মোদী বলেন, মা সারদাকেও সারা দেশ পুজো  করে। কিন্তু এ রাজ্যে সারদা মানে চিটফান্ড। গোলাপ বললে সবাই ফুলের কথা ভাবে। কিন্তু এখানে গরিবদের কাঁটার কথা মনে হয়। নারদ মুণি ত্রিলোকে নারায়ণ নারায়ণ করতেন। কিন্তু এখানে তাঁকেও কেলেঙ্কারিতে নামিয়ে এনেছে তৃণমূল। গরিবের টাকা কারা  লুঠ করেছে  সেটা  সবাই জানে। চৌকিদার তাদের  ছাড়বে না। অন্য একটি প্রসঙ্গে তিনি বলেন,  পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি ক্ষমতায় এলে মানব পাচারের  বিরুদ্ধে কড়া আইন তৈরি হবে। আমরা আর আপানরা মিলে এমন একটা সরকার করব যেটা বাম আর তৃণমূলের গুন্ডারাজ থেকে মুক্ত হবে।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................