বুথ ফেরত সমীক্ষার পরদিনই কংগ্রেসের সঙ্গে বৈঠক বাতিল করলেন মায়া

বহুজন সমাজ পার্টির নেত্রী দিল্লি এসে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী (Congress Chief Rahul gandhi) এবং তাঁর মা  সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে দেখা করবেন।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
বুথ ফেরত সমীক্ষার পরদিনই কংগ্রেসের সঙ্গে বৈঠক বাতিল করলেন মায়া

প্রায় দেড় মাস ধরে চলার পর রবিবার বিকেলে লোকসভা নির্বাচনের ভোট পর্ব সম্পন্ন হয়েছে।


নিউ দিল্লি: 

হাইলাইটস

  1. বুথ ফেরত সমীক্ষার পরদিনই কংগ্রেসের সঙ্গে বৈঠক বাতিল করলেন মায়া
  2. বিরোধী শিবিরের নজর ছিল দিল্লির এই বৈঠকের দিকে
  3. মায়ার দলের তরফে বলা হয়েছে তিনি লখনউতেই থাকবেন

আজ দিল্লি আসছেন না বিএসপি নেত্রী মায়াবতী ( BSP Supremo Mayawati)। তাঁর দলের তরফে একথা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। আগে ঠিক ছিল বহুজন সমাজ পার্টির নেত্রী দিল্লি এসে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী (Congress Chief Rahul gandhi) এবং তাঁর মা  সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে দেখা করবেন। বিরোধী শিবিরের নজর ছিল এই বৈঠকের দিকে। কিন্তু এখন সেটি হচ্ছে না। বিএসপির অন্যতম শীর্ষ নেতা সতীশ চন্দ্র মিশ্র সংবাদ সংস্থা  এএনআইকে জানান, মায়াবতীজির দিল্লিতে যাওয়ার কোনও  পরিকল্পনা নেই। তিনি লখনউতে থাকবেন।  বিএসপির বক্তব্য প্রকাশ্যে আসার আগে  ঠিক ছিল মায়া দিল্লি আসবেন। শুধু তাই নয় টিডিপি প্রধান তথা অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী  চন্দ্রবাবু নায়ডু কংগ্রেসের সঙ্গে বৈঠকেরও ব্যবস্থা  করেছিলেন বলে  শোনা  গিয়েছে। এর আগে  মায়াবতীর সঙ্গে চন্দ্রবাবুর দেখাও হয়েছে।      

সন্ত্রাসের অভিযোগে আটটি লোকসভা কেন্দ্রের কয়েকটি বুথে পুননির্বাচনের দাবি জানাল বিজেপি

এই বৈঠকটি শেষমেশ হলে তা  অবশ্যই তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় হত। তার কারণ প্রচারের  গোটা  সময় জুড়ে কংগ্রেসের সমালোচনাই  করে এসেছেন মায়া। যে  কোনও  প্রসঙ্গে বিজেপির সঙ্গে কংগ্রেসকেই একই আসনে  বসিয়ে  দিতেন তিনি।                           

প্রায় দেড় মাস ধরে চলার পর রবিবার বিকেলে লোকসভা নির্বাচনের ভোট পর্ব সম্পন্ন হয়েছে। আর তারপরই বিভিন্ন সংস্থা তাদের এক্সিট পোল  প্রকাশ করেছে।তার পোল অফ পোলস-এ দেখা যাচ্ছে অন্যদের পিছনে ফেলে আরেকবার সরকার করার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে বিজেপি। আর পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির ফল গতবারের তুলনায় অনেক ভাল হতে চলেছে। আসন কমতে চলেছে তৃণমূলের। স্বভাবতই এই সমীক্ষায় চাঙ্গা শাসক দল।বিরোধী শিবির আবার বোঝানোর চেষ্টা করছে এই সমীক্ষার ফল মিলবে না। এমনই রাজনৈতিক টালবাহানার মধ্যে মায়াবতীর বৈঠক বাতিল হয়েছে। 

Elections 2019: দু-অঙ্কের আসন পেতে পারে বিজেপি: পোল অফ পোলস

দীর্ঘদিন ধরেই দিল্লিতে কার সরকার হবে তা ঠিক করার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়ে থাকে উত্তরপ্রদেশ। দেশের সবচেয়ে বড় রাজ্যে লোকসভার  ৮০টি আসন থাকায় সেগুলি যার দখলে যায় সরকার তারই হয়। এবার উত্তরপ্রদেশে বিজেপি বিরোধী জোট হয়েছে। সমাজবাদী পার্টি এবং বহু জন সমাজ পার্টির সেই জোটে কংগ্রেস নেই ।  উত্তর প্রদেশের বিজেপির ফল কেমন হয় সেটা নিঃসন্দেহে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ হতে চলেছে। কতবার ৮০ টির মধ্যে একাই ৭১ টি আসন জিতেছে বিজেপি। দুটি পেয়েছিল তাদের সহযোগী দল এবার কী হয় তার জন্যই তা জানতে আরও দিন তিনেক অপেক্ষা করতে হবে।

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................