‘স্পিড ব্রেকার দিদি’ বনাম ‘ভোটার স্ট্রাইকের দ্বৈরথে সরগরম বঙ্গ রাজনীতি

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (PM Modi )  রাজ্যে এসে দুটি জনসভা  থেকে যেভাবে তৃণমূলকে আক্রমণ করেছেন তাতে উৎসাহিত  বিজেপির বঙ্গ ব্রিগেড।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

কারা ভিড় করলেন সেটাও খুব গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে  করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা


কলকাতা: 

হাইলাইটস

  1. ‘স্পিড ব্রেকার দিদি’ বনাম ‘ভোটার স্ট্রাইকের দ্বৈরথে সরগরম বঙ্গ রাজনীতি
  2. স্পিড বেকারের ভূমিকা পালন করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ঃ মোদী
  3. ভোটার স্ট্রাইক কাকে বলে তা আপনারা জানেন ? মমতা

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (PM Modi )  রাজ্যে এসে দুটি জনসভা  থেকে যেভাবে তৃণমূলকে আক্রমণ করেছেন তাতে উৎসাহিত  বিজেপির বঙ্গ ব্রিগেড। শিলিগুড়ির  কাওয়াখালির ময়দান থেকে মোদী বলেন কেন্দ্রীয় প্রকল্পের সুযোগ – সুবিধা  পৌঁছে দেওয়ার ক্ষেত্রে স্পিড বেকারের ভূমিকা পালন করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা  বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Bannerjee)  । পাশাপাশি পরিবারতান্ত্রিক রাজনীতির (Dynasty Politics ) অভিযোগও তোলেন তৃণমূলের বিরুদ্ধে। প্রধানমন্ত্রী বলেন কংগ্রেসের কায়দায় পরিবারতান্ত্রিক  রাজনীতি করছে  তৃণমূল। এই পিসি – ভাইপোর রাজনীতি বাংলাকে  শেষ করে দেবে। উত্তরববঙ্গের দিনহাটায়  গিয়ে লোকসভা নির্বাচনের (Lok Sabha Elections 2019) জন্য প্রথম সভা করার আগে শিলিগুড়িতে মোদীর সভা নিশ্চয়ই শুনেছেন মমতা। দিনহাটার সভা থেকে মমতা বলেন, আগে দিল্লি সামলান তারপর বাংলা  নিয়ে ভাববেন। মোদী সহ  বিজেপির প্রায় সমস্ত নেতা- মন্ত্রীরাই পাক অধিকৃত কাশ্মীরে বায়ুসেনার স্ট্রাইক (Balakot Air Strike) নিয়ে সরব হয়ে থাকেন। এ প্রসঙ্গে মমতা বলেন, আপনারা জানেন ভোটার স্ট্রাইক কী! শুধু আপনারাই দেশের বন্ধু আর বাকি সবাই শত্রু নাকি! আমি দেশপ্রেমিক কিনা  সেই সার্টিফিকেট আপনার থেকে নেব না!

মোদীজির সেনা' মন্তব্যের জন্য যোগীকে নোটিশ পাঠাল কমিশন

রাজ্য বিজেপির একটা বড় অংশ  মনে করছে প্রধানমন্ত্রী স্থানীয় সমস্যা নিয়ে  সরব হয়েছেন বলে ভোটারদের মধ্যে  তার ভাল প্রভাব পড়বে। শিলিগুড়িতে  চা বাগানের সমস্যা বা  কলকাতায় এসে চিটফান্ড কাণ্ড নিয়ে প্রধানমন্ত্রী সরব হয়েছেন বলে খুশি বিজেপি নেতারা।  

মোদীর ভাষণের পাশাপাশি সভার ভিড় দেখে আপ্লুত বঙ্গ ব্রিগেড। নির্বাচনের আগে  আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধিতে এই ‘বাম্পার' ভিড় কাজে দেবে বলে  মনে করে মুরলীধর সেন লেন। ভিড় দেখে প্রধানমন্ত্রী নিজেও খুশি হয়েছিলেন। ব্রিগেডের সভায় বক্তব্য শুরুর মাত্র কয়েক মিনিটের মধ্যেই মোদী বলেন, এত বড় ভিড় আগে  কখনও দেখেনি ব্রিগেড।

ভিড়ের পাশাপাশি কারা  ভিড় করলেন সেটাও খুব গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে  করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা। জঙ্গল মহল থেকে শুরু করে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলা থেকে তরুণ- তরুণীদের সভায় আসতে দেখা  যায়।

স্বভাব সিদ্ধ ঢঙে ব্রিগেডের সভা থেকে  ভিড়ের সঙ্গে  কথা  বলেন মোদী। তাতে সভার উত্তেজনা আরও বাড়ে। বিজেপি বাংলায় কত আসন পেতে  পারে তা নিয়ে চর্চাও চলেছে। তবে দিনহাটার সভা  থেকে মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, বাংলার সঙ্গে  পাঙ্গা নেবেন না!             



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................