দুবার ফোন করেছিলাম কিন্তু দিদি ধরেননি: মোদী

Lok Sabha Election 2019: ঘূর্ণিঝড় ফণী নিয়ে চিন্তায় ছিলাম। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দুবার ফোনও করেছিলাম। কিন্তু তিনি ধরেননি

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
দুবার ফোন করেছিলাম কিন্তু দিদি ধরেননি: মোদী
কলকাতা: 

হাইলাইটস

  1. ঘূর্ণিঝড় ফণী নিয়ে চিন্তায় ছিলাম।মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দুবার ফোনও করেছিলাম
  2. তৃণমূলের অভিযোগ খারিজ করে রাজ্যে এসে এমনই দাবি করলেন মোদী
  3. এত ঔদ্ধত্য যে আমার সঙ্গে কথা বলার প্রয়োজন বোধ করলেন নাঃ মোদী

ঘূর্ণিঝড় ফণী (Cyclone Fani)  নিয়ে চিন্তায় ছিলাম। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (CM Mamata Bannerjee) দুবার ফোনও করেছিলাম। কিন্তু তিনি ধরেননি। ঘূর্ণিঝড় ফণী নিয়ে রাজ্যের রাজ্যপাল (West Bengal Governor) কেশরী নাথ  ত্রিপাঠীকে ফোন করা নিয়ে তৈরি হওয়া বিতর্কের মাঝে  রাজ্যে এসে এমনই  দাবি  করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (PM Modi) । ঘূর্ণিঝড় ফণীতে রাজ্যের কতটা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা জানতে রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীকে ফোন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই ঘটনায় যারপরনাই ক্ষুব্ধ বাংলা শাসক শিবির। তারা মনে করছে এভাবে দেশের যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোকে (Federal Structure) শ্রদ্ধা করেন না প্রধানমন্ত্রী। রাজ্যের পরিস্থিতি সম্পর্কে খোঁজ নিতে তাঁর মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলার প্রয়োজন ছিল। তা না করে রাজ্যপালকে কেন ফোন করলেন সে প্রশ্নই তুলেছে তৃণমূল। এদিকে রাজ্যের যে সমস্ত এলাকার উপর দিয়ে ঘূর্ণিঝড় বয়ে গিয়েছে তার কয়েকটি জায়গায় পরিস্থিতি খতিয়ে দেখলেন রাজ্যপাল।

পঞ্চম দফার নির্বাচনেও রাজ্যে বিক্ষিপ্ত অশান্তি, আহত হলেন অর্জুন সিংহ

এ ধরনের অভিযোগের প্রেক্ষিতে মোদী বলেন, ‘স্পিড ব্রেকার দিদি (Speed Braker Didi ) ফণী নিয়ে রাজনীতি করতে চেয়েছেন। আমি ফণী নিয়ে কথা  বলতে  মমতাদিদিকে ফোন করেছিলাম। কিন্তু ওঁর এত ঔদ্ধত যে আমার সঙ্গে  কথা বলার প্রয়োজন বোধ করলেন না। আমি পরে আবার চেষ্টা করেছিলাম। পাইনি।'

নিজের বিরোধীদের পাকিস্তানি বললেন বিজেপি সাংসদ

এ ধরনের অভিযোগের প্রেক্ষিতে মোদী বলেন, ‘স্পিড ব্রেকার দিদি ফণী নিয়ে রাজনীতি করতে চেয়েছেন। আমি ফণী নিয়ে কথা  বলতে  মমতাদিদিকে ফোন করেছিলাম। কিন্তু ওঁর এত ঔদ্ধত যে আমার সঙ্গে  কথা বলার প্রয়োজন বোধ করলেন না। আমি পরে আবার চেষ্টা করেছিলাম। পাইনি।' অন্য একটি প্রসঙ্গে  প্রধানমন্ত্রী বলেন, দিদি ভগবানের নাম শুনলেও ভয় পাচ্ছেন। জয় শ্রীরাম বললেও গ্রেফতার করিয়ে জেলে পুরে দিচ্ছেন। গোটা দেশের এই সত্য জানা  উচিত। সংবাদ মাধ্যমের এই খবরও দেখানো উচিত। দিদি শুধু ভোট ব্যাঙ্কের রাজনীতি করেন। আর তাই ভোট ব্যাঙ্কের জন্য মাসুদ আজাহারের সমালোচনা করেন না দিদি। তৃণমূল তোলাবাজি ট্যাক্স ছাড়া কো কাজ হয় না। জগাই মাধাই সিন্ডিকেট আর তৃণমূল তোলাবাজি ট্যাক্সকে  আটকানোর কেউ ছিল না। এখন আছে। এখন আছে। বাংলাকে এসব থেকে  মুক্ত করতে একমাত্র বিজেপি বাড়বে।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................