Elections 2019:রাজ্যে ভোট-পরবর্তী হিংসার অভিযোগে রাজ্যপালের দ্বারস্থ বিজেপি

Elections 2019: রাজ্য বিজেপি (BJP) সভাপতি দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে ওই দলটি রাজভবনে এসে দেখা করে রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর সঙ্গে।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
Elections 2019:রাজ্যে ভোট-পরবর্তী হিংসার অভিযোগে রাজ্যপালের দ্বারস্থ বিজেপি
কলকাতা: 

মঙ্গলবার রাজ্যপাল কেএন ত্রিপাঠীর সঙ্গে দেখা করে রাজ্যের লোকসভা(Lok Sabha Elections 2019) ভোট-পরবর্তী হিংসা নিয়ে অভিযোগ দায়ের করল বিজেপির একটি প্রতিনিধি দল। পাশাপাশি তাঁরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে রাজ্যের একাংশে সেনা নিয়োগের দাবিও তুলল। রাজ্য বিজেপি (BJP) সভাপতি দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে ওই দলটি রাজভবনে এসে দেখা করে রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর সঙ্গে। প্রতিনিধি দলের পক্ষ থেকে ভোট পর্ব মিটতেই রাজ্য জুড়ে যে হিংসা শুরু হয়েছে সে ব্যাপারে অবিলম্বে পদক্ষেপ করতে বলা হয়, রাজ্যপালকে। রাজ্যে ক্ষমতা দখলের লড়াইয়ে এবার তৃণমূলের(TMC) সঙ্গে বিজেপির প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বিতা। কোনও কোনও এগজিট পোলের হিসেব অনুযায়ী, গেরুয়া দল(BJP) এবার দু'অঙ্কের আসন পাবে। আর রাজ্যের ৪২টি লোকসভা আসনে তৃণমূ‌লের আসনসংখ্যা আগের থেকে কমবে।  প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালে লোকসভায় ৩৪টি আসন পেয়েছিল তৃণমূল (TMC)। সেখানে বিজেপি পেয়েছিল মাত্র দু'টি আসন। 

বাংলায় বিশেষ পর্যবেক্ষক নিয়োগের বিরুদ্ধে রাজ্যের আবেদন খারিজ সুপ্রিম কোর্টে

দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘‘যেভাবে তৃণমূ‌ল (TMC) তাদের গুন্ডাদের ছেড়ে রেখেছে, তাতে পরিষ্কার ওরা বাংলায় নৈরাজ্য তৈরি করতে চায়। এভাবে চললে কেন্দ্র দ্রুত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে হস্তক্ষেপ করবে। প্রয়োজন পড়লে ভাটপাড়ার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে আর্মিকে ডাকা হোক। পুলিশ তৃণমূ‌লের ক্যাডারের মতো আচরণ করছে।'' 
তিনি দাবি করেন, রাজ্যপাল ধৈর্য সহকারে পুরো বিষয়টি শুনেছেন ও কথা দিয়েছেন তিনি বিষয়টি দেখবেন। 
কেবল ভাটপাড়াই নয়, তৃণমূ‌ল উত্তরবঙ্গেরও কিছু অংশে হিংসা ছড়িয়েছে আমাদের বিরুদ্ধে।  ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বিজেপি(BJP) নেতা অর্জুন সিংহ। তিনিও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে আর্মি নিয়োগ করার দাবি তুলেছেন।

Election 2019: ভোট শেষ হতেই রাজ্যজুড়ে সংঘর্ষ, আহত একাধিক

তৃণমূ‌লের(TMC) উত্তর ২৪ পরগনার জেলা সভাপতি এবং মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক অবশ্য ওই অভিযোগকে উড়িয়ে হিংসা ছড়ানো ও তৃণমূল‌ কর্মীদের মারধরের অভিযোগ তুলেছেন গেরুয়া দলের(BJP) বিরুদ্ধেই।  এক সিনিয়র আধিকারিক জানিয়েছেন, উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ায় উপ নির্বাচনকে ঘিরে তৈরি অশান্তির পরিবেশ তৈরি হওয়ার পরে নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে সোমবার সেখানে নিষেধাজ্ঞামূলক নির্দেশ জারি করা হয়।  মঙ্গলবারও ভাটপাড়ায় তৃণমূ‌ল(TMC) ও বিজেপির(BJP) মধ্যে সংঘর্ষ বজায় ছিল। নিষেধাজ্ঞাকে অমান্য করে এদিনও সেখানে অশান্তি হয়।  এক অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তি একটি বোমা ছুড়ে মারেন কাঁকিনাড়া স্টেশনের গায়ে। যদিও কেউ জখম হননি বলে জানিয়েছেন এক পুলিশ আধিকারিক। 

সন্ত্রাসের অভিযোগে আটটি লোকসভা কেন্দ্রের কয়েকটি বুথে পুননির্বাচনের দাবি জানাল বিজেপি

জানা যায়, প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ক অর্জুন সিংহ, যাঁর ভাটপাড়ায় একাধিপত্য রয়েছে তিনি বর্তমানে বিজেপিতে যোগদান করেছেন। তারই ফলস্বরূপ রবিবার উপ নির্বাচন শেষ হওয়ার আগেই ভাটপাড়া কার্যত রণক্ষেত্রের চেহারা নেয়। কাঁকিনাড়ায় সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন বিজেপি ও তৃণমূ‌ল কর্মীরা।  কাঁকিনাড়ায় শাসক দল তৃণমূ‌লের অফিসেও বোমা নিক্ষেপের কথাও জানা গিয়েছে। এর ফলে সেখানে আগুনও লেগে যায়। পরে কেন্দ্রীয় বাহিনী লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে, ওই হিংসাত্মক ঘটনায় ১৪ জন আহত হয়েছেন, বহু দোকান ও বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ও তৃণমূলের ভাটপাড়া উপ নির্বাচনের প্রার্থী মদন মিত্রের গাড়িও ভাঙচুর করা হয়েছে।

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................