মহিলা ভোটারদের জোরে বিহারে ভাল ফলের আশায় এনডিএ

নয়ের দশকে রাজনৈতিক বোদ্ধারা বলেছিলেন বিহারে লালু প্রসাদ যাদবের পরাজয় হবে। সে সময় লালু তাঁদের উদ্দেশে বলেছিলেন, ‘আমার জিনি নির্দিষ্ট সময় বেরিয়ে আসবে।’

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
মহিলা ভোটারদের জোরে বিহারে ভাল ফলের আশায় এনডিএ

২০১৪ সালে জেডিইউকে  ছাড়াই বিহারে ৩১টি আসন দখল করে এনডিএ।


পাটনা: 

হাইলাইটস

  1. মহিলা ভোটারদের জোরে বিহারে ভাল ফলের আশায় এনডিএ
  2. মহিলা ভোটার সংখ্যা ৬০ শতাংশ বা তার কাছাকাছি
  3. এ পর্যন্ত বিহারের ১৪ টি লোকসভা কেন্দ্রে ভোট হয়েছে

নয়ের দশকে রাজনৈতিক বোদ্ধারা বলেছিলেন বিহারে লালু প্রসাদ যাদবের (Lalu Prasad Yadav) পরাজয় হবে। সে সময় লালু তাঁদের উদ্দেশে বলেছিলেন, ‘আমার জিনি নির্দিষ্ট সময় বেরিয়ে আসবে।' ভোটের পর দেখা যায় রাজনৈতিক বোদ্ধাদের পূর্বাভাস মেলেনি। আবারও জয় হয়েছে লালুপ্রসাদের।  আর বিহারের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী তথা জেডিইউ প্রধান নিতিশ কুমারের (Nitish Kumar) জন্য সেই ভূমিকা পালন করতে পারেন মহিলারা। বিহারের বেশ কয়েকটি এমন কেন্দ্র রয়েছে যেখানে মহিলা ভোটার সংখ্যা ৬০ শতাংশ বা তার কাছাকাছি। এ পর্যন্ত বিহারের ১৪ টি লোকসভা কেন্দ্রে (Loksabha Election) ভোট হয়েছে। তার মধ্যে মহিলা ভোটারের  সংখ্যা পুরুষ ভোটারের থেকে বেশি। আর এই পরিসংখ্যানকে সামনে রেখেই অনেকের মনে হচ্ছে নীতিশের দল সুবিধা পেতে চলেছে। দলের মুখপাত্র সঞ্জয় সিং বলেন, ‘এটা প্রাথমিক বিশ্লেষণ। ভোট যত এগোবে ততোই বোঝা যাবে বিহারে আরো একবার ভালও ফল করতে চলেছে এনডিএ।'

চেনা মাঠে অচেনা প্রতিপক্ষর মুখোমুখি বাবুল

9i87lhs

বিহারে বরাবরই মহিলা ভোটারদের সংখ্যা বেশি

বিহারে বরাবরই মহিলা ভোটারদের সংখ্যা বেশি তার একটা কারণ পুরুষদের অনেকেই দেশের অন্যত্র গিয়ে কাজকর্ম করেন। ভোটের সময় তারা অনেকেই অনুপস্থিত থাকেন। অনেকের নামও এ রাজ্যের ভোটার তালিকায় ওঠে না। এবার এর সঙ্গে আরও একটি বিষয় যুক্ত হয়েছে। জেডিইউ মনে করছে তাদের সরকার রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা ব্যবস্থা যেভাবে ভাল করতে পেরেছে তার জের মহিলাদের আরও বেশি করে ভোট দিতে উৎসাহিত করবে। রাজনৈতিক বিশ্লেষক শৈবাল গুপ্ত কয়েকটি বিষয়ের উপর জোর দিচ্ছেন। তিনি বলছেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত ক্যারিশমা, আর্থিক ভাবে পিছিয়ে পড়া শ্রেণীর ওপর মুখ্যমন্ত্রী প্রভাব এবং গত তিনটি দফাতেই মহিলাদের উপস্থিতি বলে দিচ্ছে এবার নিয়ে পরপর তিনবার বিহারে এনবিএ খুবই ভালো ফল করতে চলেছে।' ২০০৯ সালে বিহারের ৪০টির মধ্যে ৩২টি আসনে জেতে  এনডিএ। ২০১৪ সালে জেডিইউকে  ছাড়াই বিহারে ৩১টি আসন দখল করে এনডিএ।  এবার নিতিশ কুমার ফিরে আসায় আসন সংখ্যা আরও বাড়তে চলেছে বলে মনে করা হচ্ছে।  নির্বাচন কমিশনের তথ্য বলছে যে ক'টি কেন্দ্রে ভোট হয়েছে সেখানে মহিলা ভোটারদের সংখ্যা পুরুষ ভোটারদের থেকে ৫ শতাংশ বেশি। কিন্তু ভোটার উপস্থিতির হার দেখলে খুব সহজেই বোঝা যাবে ফারাকটা আরও বেশি  হয়ে প্রতিভাত হয়েছে। সুপল কেন্দ্রে মহিলাদের ভোট পড়েছে ৭১.৬৪ শতাংশ আর পুরুষ ভোট পড়েছে ৭.১ শতাংশ। সামগ্রিকভাবে এই কেন্দ্রগুলিতে পুরুষ ভোট পড়েছে ৫৬ .৭ শতাংশ আর মহিলা ভোট পড়েছে ৬২. ৮ শতাংশ।  স্বভাবতই এই বিশ্লেষণে খুশি নয় লাল দল। আরজেডির জাতীয় মুখপাত্র শিবানন্দ তিওয়ারি বলেছেন আমাদের কাছে নির্দিষ্ট খবর আছে যে সাধারণ মানুষের মনে বিজেপির বিরুদ্ধে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে । আর মহিলা ভোটাররা কোনও একটি নির্দিষ্ট দলের ভোট দেন এমন কথা ভাবার কোন কারণ নেই। তাই এখন থেকেই এনডিএ-র ফল ভালো হবে এটা ধরে নেওয়া শিশুসুলভ আচরণ ছাড়া আর কিছুই নয়।   



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................