কংগ্রেসের তথ্য প্রযুক্তি সেলের সঙ্গে জড়িত ৬৮৭টি পেজ বন্ধ করল ফেসবুক

লোকসভা নির্বাচনের (Lok Sabha Elections 2019) আগে যাতে ভুল খবর ছড়িয়ে না পড়ে তা নিশ্চিত করতে এ রকমই পদক্ষেপ করল ফেসবুক।

কংগ্রেসের তথ্য প্রযুক্তি সেলের সঙ্গে জড়িত ৬৮৭টি পেজ বন্ধ করল ফেসবুক

এক কর্তা জানিয়েছেন এই সমস্ত পেজ গুলির মধ্যে বেশিরভাগই এখন আর ব্যবহার হয় না।

হাইলাইটস

  • কংগ্রেসের তথ্য প্রযুক্তি সেলের সঙ্গে জড়িত ৬৮৭টি পেজ বন্ধ করল ফেসবুক
  • সংস্থা জানিয়েছে একটি নির্দিষ্ট নেটওয়ার্ক এই সমস্ত পেজ ও অ্যাকউন্ট চালাত
  • কংগ্রেসের তরফে অবশ্য এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া দেওয়া হয়নি
নিউ দিল্লি:

‘ভুয়ো অ্যাকাউন্ট' (Fake Account) এবং পেজের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিল ফেসবুক (Facebook)। কংগ্রেসের তথ্য প্রযুক্তি সেলের ( IT Cell Of Congress) সঙ্গে সম্পর্কিত এমন ৬৮৭ টি পেজ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। লোকসভা নির্বাচনের (Lok Sabha Elections 2019) আগে যাতে ভুল খবর ছড়িয়ে না পড়ে তা নিশ্চিত করতে এ রকমই পদক্ষেপ করল ফেসবুক। সংস্থা জানিয়েছে একটি নির্দিষ্ট নেটওয়ার্ক (Network) এই সমস্ত পেজ ও অ্যাকাউন্ট চালাত। তবে নির্দিষ্ট কোনও  বিভ্রান্তিকর খবর (Misleading News Or Post) বা পোস্ট করার জন্য এমন পদক্ষেপ হয়নি। কিন্তু পেজে অস্বাভাবিক আচরণ করার জন্য সেগুলিকে মুছে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। কংগ্রেসের তরফে অবশ্য এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া দেওয়া হয়নি। 

সপ্তাহের প্রথম দিনেই রেকর্ড উচ্চতায় পৌঁছে গেল সেনসেক্স

ভারতে ফেসবুকের এক কর্তা জানিয়েছেন এই সমস্ত পেজ গুলির মধ্যে বেশিরভাগই এখন আর ব্যবহার হয় না (Recently Not in use)। ওই কর্তা আরও জানিয়েছেন ফেসবুকের গ্রাহকরা (Facebook Users) যাতে সমস্যায় না পড়েন বা তাঁদের কাছে যাতে ভুল খবর (Fake News) পৌঁছে না যায় সেটা নিশ্চিত করতেই পেজ গুলি মুছে দেওয়া হয়েছে। তিনি জানান কোন নির্দিষ্ট পোষ্টের জন্য পেজ গুলি মুছে দেওয়ার কাজ হয়নি। দীর্ঘদিন ধরে পেজ গুলির কাজকর্ম ঠিক ছিল না। তিনি জানান কোনও  অবস্থাতেই নির্দিষ্ট পোষ্টের জন্য ফেসবুক পেজ মুছে দেওয়া হয় না। এরকম কোনও কিছু করার আগে সমস্ত দিক খতিয়ে দেখা হয় সাম্প্রতিক কালে ফেসবুক কে নিয়ে বিতর্ক কিছু কম হয় নি। কখনো গ্রাহকদের তথ্য ফাঁস হয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে তো কখনও আবার অন্য কারণে শিরোনামে এসেছে ফেসবুক। 

যোগীর ‘মোদীজির সেনা' মন্তব্য নিয়ে তোলপাড় রাজনৈতিক মহল

এদিকে এখন ফেসবুকে রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন দেওয়া হলে কে তার জন্য অর্থ খরচ করেছে সে কথা জানিয়ে দেওয়া হয়। তাছাড়া স্বচ্ছতা আনতে নিজেদের কর্মীদের আরও পটু করার প্রক্রিয়া শুরু করেছে ফেসবুক।