Election Results 2019: ফকিরের ঝোলা ভর্তি করেছে দেশের ১৩০ কোটি নাগরিকঃ মোদী

Election Results 2019: ১৩০ কোটি ভারতীয়কে প্রণাম। সারা দেশ ফকিরের ঝোলা ভরে দিয়েছি। এই জয় বিশ্বের গণতন্ত্রের ইতিহাসে এবারের ভোটে  সবচেয়ে বেশি ভোট পড়েছে।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
Election Results 2019: ফকিরের ঝোলা ভর্তি করেছে  দেশের ১৩০ কোটি নাগরিকঃ মোদী

Election Results 2019: যেখানে অন্য দল জিতেছে সেখানেও উন্নয়নের কাজ হবে: মোদী


নিউ দিল্লি: 

হাইলাইটস

  1. ফকিরের ঝোলা ভর্তি করেছে দেশের ১৩০ কোটি নাগরিকঃ মোদী
  2. বিশ্বের গণতন্ত্রের ইতিহাসে এবারের ভোটে সবচেয়ে বেশি ভোট পড়েছে: মোদী
  3. এটা দেশের মানুষের রাজনৈতিক সদিচ্ছার প্রমাণঃ প্রধানমন্ত্রী

১৩০ কোটি ভারতীয়কে প্রণাম। সারা দেশ ফকিরের ঝোলা ভরে দিয়েছি। বিশ্বের গণতন্ত্রের ইতিহাসে এবারের ভোটে  সবচেয়ে বেশি ভোট পড়েছে। জয়ের পর এভাবেই প্রতিক্রিয়া  দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (PM Modi)। এটা দেশের মানুষের রাজনৈতিক সদিচ্ছার প্রমাণ। তীব্র গরমেও  এত বেশি ভোট পড়েছে। গণতন্ত্রে গণতন্ত্র রক্ষার জন্য যারা প্রাণ দিয়েছেন তাদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাতে চাই। নির্বাচন কমিশন (Election Commission ) খুব ভাল কাজ করেছে। মহাভারতের যুদ্ধ শেষ হওয়ার পর কৃষ্ণ বলেছিলেন আমি কারও পক্ষে লড়িনি, হস্তিনাপুরের পক্ষে লড়েছি। আজ ভারতের জনগণ সেই কাজটাই করেছে। এই ভোট দেশের জনতা লড়েছে, দল বা নেতা  লড়েনি। এই নির্বাচনে কেউ জিতলে সেটা গণতন্ত্র সেটা ভারতের জয়। আমরা জনতার উদ্দেশে জয় উৎসর্গ করছি।

বিজেপি সংবিধানে বিশ্বাস করে তাই যেখানে অন্য দল জিতেছে সেখানেও উন্নয়নের কাজ হবে। কোটি কোটি বিজেপি কর্মীকে ধন্যবাদ। বিজেপি একটা সময় দুজন সাংসদের দল ছিল তখনও আমরা আদর্শ থেকে সরিনি। আজ  দ্বিতীয় বার জিতেও আমরা আদর্শ  থেকে সরব না। এই জয়ের পর ভারতের রাজনৈতিক  পণ্ডিতদের নতুন ভাবে  ভাবতে হবে। এই  বিজয় আত্মসম্মানের জয়। এবার কোনও দল ধর্মনিরপেক্ষতার কথা বলে  মানুষকে  ভুল বোঝার চেষ্টা করেনি। এই জয় অসংগঠিত।

তিনি বলেন, বিজেপি সংবিধানে বিশ্বাস করে তাই যেখানে অন্য দল জিতেছে সেখানেও উন্নয়নের কাজ হবে। কোটি কোটি বিজেপি কর্মীকে ধন্যবাদ। বিজেপি একটা সময় দুজন সাংসদের দল ছিল তখনও আমরা আদর্শ থেকে সরিনি। আজ  দ্বিতীয় বার জিতেও আমরা আদর্শ  থেকে সরব না। এই জয়ের পর ভারতের রাজনৈতিক  পণ্ডিতদের নতুন ভাবে  ভাবতে হবে। এই  বিজয় আত্মসম্মানের জয়। এবার কোনও দল ধর্মনিরপেক্ষতার কথা বলে  মানুষকে  ভুল বোঝার চেষ্টা করেনি। এই জয় অসংগঠিত শ্রমিকের জয়। ভাষণের একদম শেষ দিকে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি দেশের নাগরিকদের বলতে চাই আপনারা জেনে রাখুন আমি কোনও অন্যায় কাজ করবো না। কাজ করতে গেলে  ভুল  হয় কিন্তু জেনে শুনে কোনও  অন্যায় করব না।

এদিকে বিজেপির জয়ের পর বাংলা নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিলেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। পাশাপাশি কংগ্রেস থেকে শুরু করে চন্দ্রবাবু নায়ডুরও সমালোচনা করেন তিনি। তিনি বলেন, বাংলায় এত অত্যাচার হয়েছে, তবু আমরা ১৮ আসন পেয়েছি। এর থেকে বোঝা যায় বাংলার সব জায়গায় বিজেপি নিজের শক্তি বাড়াবে। ৪টি বিধানসভার উপনির্বাচনেও বিজেপি জিতেছে। এই রায় প্রমাণ করে বাংলার মানুষ বিজেপিকে চায়। মোদীর হাত ধরে ঐতিহাসিক জয় এসেছে। । এটা দেশের মানুষের জয়। ৫০ বছর বাদে  পর পর দু'বার একজন মানুষ একক সংখ্যাগোরিষ্ঠতা পেয়ে ক্ষমতায় আসছেন। দেশের ১৭টি রাজ্যে ৫০ শতাংশের বেশি ভোট এসেছে। কংগ্রেস এবং অন্য  দল তোষণের রাজনীতি করে। মোদীজির জনপ্রিয়তা  সেই রাজনীতি শেষ করে দিয়েছি। পরিবারতান্ত্রিক এবং জাতির ভিত্তিতে চলা দলের গুরুত্ব থাকবে না। চন্দ্রবাবু নায়ডুকে বলছি জোট করার জন্য  না খেটে  ভোট পাওয়ার জন্য পরিশ্রম করলে  আপনি কিছু আসন জিততেন।

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................