গডসে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য, তিন নেতাকে কারণ ব্যাখ্যার নির্দেশ দিলেন অমিত

টুইট করে অমিত বলেন, ‘এ ধরনের মন্তব্যের সঙ্গে দলের কোনও যোগাযোগ নেই। তিনজনই ক্ষমা চেয়েছেন।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

একদিন আগে সাধ্বী বলেছিলেন নাথুরাম গডসে একজন দেশপ্রেমিক।


নিউ দিল্লি: 

হাইলাইটস

  1. বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ এ ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করেছেন
  2. দশ দিনের মধ্যে মন্তব্যের জন্য কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে
  3. এ ধরনের মন্তব্যের সঙ্গে দলের কোনও যোগাযোগ নেইঃ অমিত

দলের একাধিক নেতা গান্ধীজীর হত্যাকারী নাথুরাম গডসেকে (Nathuram Godse ) নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করায় নড়েচড়ে বসল বিজেপি। বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ (BJP President Amit Shah) এ ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করেছেন। দলীয় প্রার্থী সাধ্বী প্রজ্ঞা সিং ঠাকুর (Pragya Singh Thakur) , কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনন্ত কুমার ( Anant Kumar Hegde)  এবং নালিন কুমার কাতিলকে (Nalin Kumar Kateel) তাঁদের মন্তব্যের জন্য কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে। আগামী দশ দিনের মধ্যে এই তিনজনকে জানাতে হবে নাথুরাম গডসেকে নিয়ে তাঁরা ওই ধরনের কথা কেন বলেছিলেন। টুইট করে অমিত বলেন, ‘এ ধরনের মন্তব্যের সঙ্গে দলের কোনও যোগাযোগ নেই। তিনজনই ক্ষমা চেয়েছেন। কিন্তু ওই বক্তব্য দলের মতাদর্শে বিরোধী। আর তাই সেগুলি নিয়ে দলের শৃঙ্খলা রক্ষা কমিটি আলোচনা করছে।' 

প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে সংঘাতে মায়াবতী, কংগ্রেসের সমর্থন পেলেন মমতা

সাধ্বী ঠাকুর এবার ভোপাল কেন্দ্র থেকে বিজেপির হয়ে লড়াই করছেন। একদিন আগে তিনি বলেছিলেন নাথুরাম গডসে একজন দেশপ্রেমিক। অন্যদিকে বিজেপি সাংসদ রাজীব গান্ধীর সঙ্গে গডসের তুলনা করেন। এমনিতেই রাজীবকে ক্রমান্বয়ে আক্রমণ করে চলেছে বিজেপি। কর্নাটকের নেতা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আনন্ত কুমারও গডসেকে নিয়ে একাধিক মন্তব্য করেছেন। তিনিও টুইট করেছিলেন। বিতর্ক বাড়তেই সেগুল মুছে দেওয়া হয়। গত মঙ্গলবার নালিন বলেন, ‘গডসে একজনকে মেরে ছিলেন, আজমল কাসভ ৭২ জনকে মেরেছিলেন মেরেছিল এবং রাজিব গান্ধী ১৭ হাজার লোককে মেরেছিলেন। তাহলে আপনারাই বিচার করুন এদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি হিংস্র কে।' মানে দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে গডসের পাশাপাশি  মুম্বই হামলার একমাত্র জীবিত জঙ্গী আজমল কাসাবের সঙ্গেও একই সারিতে বসিয়েছিলেন এই নেতা।

 প্রধানমন্ত্রী বিদ্যাসাগরের মূর্তি করবেন, রামমন্দিরের কী হল, প্রশ্ন মমতার

এমনিতেই বিজেপি দুটি বিষয়কে সামনে নিয়ে এসে রাজীবকে আক্রমণ করেছে। খোদ প্রধানমন্ত্রী বলেছেন ভারতীয় ভারতীয় নৌসেনার যুদ্ধজাহাজে প্রমোদভ্রমণে  গিয়েছিল গান্ধী পরিবার। আবার বিজেপির তরফে বলা হয়েছে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর মৃত্যুর পর দেশজুড়ে যে শিখ  বিরোধী দাঙ্গা হয়েছিল তাতে হত্যার নির্দেশ গিয়েছিল খোদ প্রধানমন্ত্রী দপ্তর থেকে। সেই ঘটনায় দেশজুড়ে প্রায় তিন হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছিল। গোলমাল হয়েছিল প্রায় তিন দিন ধরে। এধরনের মন্তব্য নির্বাচনের একেবারে শেষ পর্বে বিজেপিকে অস্বস্তিতে ফেলেছে। আর তাই সপ্তম দফার নির্বাচনের আগে দলীয় নেতাদের থেকে ব্যাখ্যা চেয়ে পাঠালেন বিজেপি সভাপতি।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................