কিছুতেই বিজেপিকে দেশকে টুকরো করতে দেব নাঃ মমতা

লোকসভা নির্বাচনের (Lok Sabha Election 2019) আগে  আরও একবার বিজেপির বিরুদ্ধে বিভাজনের রাজনীতির অভিযোগ তুললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Bengal CM Mamata BAnnerjee)।

কিছুতেই বিজেপিকে দেশকে টুকরো করতে দেব নাঃ মমতা

হাইলাইটস

  • ক্ষমতায় থাকার অর্থ সবাইকে ভালবাসা,কারও সঙ্গে বৈষম্য না করাঃ মমতা
  • 'মানুষের হৃদয় ভাঙলে, অন্তর আত্মায় আঘাত করলে ফল উল্টো হয়ঃ মমতা
  • আমরা বাঙালি বা বিহারী বলে কাউকে আলাদা করি নাঃ মমতা
কলকাতা:

লোকসভা নির্বাচনের (Lok Sabha Election 2019) আগে  আরও একবার বিজেপির বিরুদ্ধে বিভাজনের রাজনীতির অভিযোগ তুললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Bengal CM Mamata BAnnerjee)। হোলির একটি অনুষ্ঠানে  যোগ দিয়ে বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো   বলেন, বিজেপি বিভাজনের রাজনীতি (Politics Of Division) করছে। কিন্তু আমরা কখনও দেশকে ভাগ করতে দেব না। দেশকে টুকরো করার সমস্ত অপচেষ্টা ব্যর্থ করব আমরা।  তিনি বলেন মহত্মা গান্ধী, নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু, সর্দার বল্লভ ভাই প্যাটেল, রাজেন্দ্র প্রসাদরা ভারতের নেতা। দেশের নেতা এমন হবেন যাকে নিয়ে কোনও প্রশ্ন উঠবে না, যিনি সবাইকে ভালবাসবেন।  ক্ষমতায় থাকার অর্থ সবাইকে ভালবাসা,কারও সঙ্গে বৈষম্য না করা। কিন্তু তা না করে মানুষের হৃদয় ভাঙলে,  মানুষের অন্তর আত্মায় আঘাত করলে ফল উল্টো হয়। মানুষকে তখন অন্য সিদ্ধান্ত নিতে হয়। কিন্তু আমরা বিজেপি নই। আমরা বাঙালি বা বিহারী বলে কাউকে আলাদা করি না। কোনও রকম বৈষম্যের ভাবনা আমাদের নেই। দেশের সমস্ত রাজ্যের মানুষকে এক নজরে দেখি।   

‘আমি নেহেরু-গান্ধীর সমর্থক!' অবশেষে বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেসে গেলেন শত্রুঘ্ন      

দেশের নানা প্রান্তে  বিশেষ করে বিজেপি শাসিত রাজ্যে গণপিটুনিতে (Mob Lynchinvg) মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে উল্লেখ  করে মমতা বলেন, উত্তরপ্রদেশের বহু মানুষ পশ্চিমবঙ্গে থাকেন। তাঁদের সঙ্গে কথা বলে জানুন তাঁরা কেমন আছেন? বিহারীদের জিজ্ঞেস করুন তাঁরা কেমন আছেন? আমরা মানুষে মানুষে কোনও প্রভেদ করি না।    

 .বিজেপিকে আক্রমণ করে মমতা বলেন, আপনারা রামের কথা বলেন কিন্তু পাঁচ বছরে রামমন্দির (Ram Temple Dispute) বানাতে পারেন না। আমরা রাম, রহিম থেকে শুরু করে সবার কথা বলি। বাইরে থেকে কেউ কেউ বলে বাংলায় নাকি দুর্গা পুজো হয় না। মানুষকে নাকি ধর্মাচরণ করতে বাধা দেওয়া হয়। জেনে রাখুন বাংলায় এক লক্ষেরও বেশি দুর্গা পুজো হয়। আর ক্লাব গুলিকে আর্থিক ভাবে সাহায্য করতে গেলে বিজেপি আদালতে গিয়ে মামলা করে!