কংগ্রেসকে মুকেশের সমর্থনের পরেই মোদির জনসভায় সামনের সারিতে পুত্র অনন্ত আম্বানি

Elections 2019: আমি এখানে প্রধানমন্ত্রীর কথা শুনতে এবং দেশকে সমর্থন করার জন্য রয়েছি, এনডিটিভিকে জানান ২৪ বছর বয়সী অনন্ত আম্বানি।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

Elections 2019: মোদির কথা শুনতে এসেছি; বলেন অনন্ত আম্বানি


মুম্বাই: 

হাইলাইটস

  1. মুম্বাইতে মোদির সমাবেশে সামনের সারিতেই দেখা গেল অনন্ত আম্বানিকে
  2. আমি প্রধানমন্ত্রীর কথা শুনতে এবং দেশকে সমর্থন করার জন্য এসেছি; অনন্ত
  3. অনন্তের বাবা মুকেশ আম্বানি সম্প্রতি কংগ্রেসের মিলিন্দকে সমর্থন করেন

বাবা সমর্থন করছেন কংগ্রেস নেতাকে, ছেলে যাচ্ছেন মোদির জনসমাবেশে! শুক্রবার মুম্বাইয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (Prime Minister Narendra Modi) নির্বাচনী সমাবেশে একেবারে সামনের সারিতে বসে থাকতে দেখা গেল ভারতের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি মুকেশ আম্বানির (Mukesh Ambani) পুত্র অনন্ত আম্বানিকে (Anant Ambani)। “আমি এখানে প্রধানমন্ত্রীর কথা শুনতে এবং দেশকে সমর্থন করার জন্য রয়েছি” এনডিটিভিকে জানান ২৪ বছর বয়সী অনন্ত আম্বানি। মুম্বাই দক্ষিণ লোকসভা আসনের জন্য কংগ্রেসের মিলিন্দ দেওরাকে সমর্থন করেছিলেন অনন্তের শিল্পপতি বাবা মুকেশ আম্বানি। এর ঠিক এক সপ্তাহ পরই অনন্তকে মোদির সমর্থনে দেখা গেল। সোমবার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে এই আসনে। 

পুলিশের মারেই নাকি ক্যান্সার হয়েছে সাধ্বী প্রজ্ঞার! দাবি বাবা রামদেবের!

কংগ্রেস নেতা মিলিন্দ দেওরা (Congress's Milind Deora) নিজের টুইটারে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন, যাতে দেখা যাচ্ছে, মুকেশ আম্বানি মিলিন্দের সপক্ষে বলছেন, “মিলিন্দ দক্ষিণ মুম্বাইয়ের লোক... দক্ষিণ মুম্বাইয়ের সামাজিক, অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক বাস্তুতন্ত্রের বিষয়ে মিলিন্দেরর গভীর জ্ঞান রয়েছে।” মুকেশ আম্বানি কংগ্রেসের নেতার সমর্থনে কথা বলছেন। মিলিন্দ দেওরার সমর্থনে কথা বলার অর্থ ভাই অনিল আম্বানির উলটো দিকে দাঁড়িয়ে রয়েছেন মুকেশ। কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী নিয়মিতভাবেই রাফাল ইস্যুতে অনিল আম্বানি (Anil Ambani) ও মোদির যোগসাজশ বিষয়ে আক্রমণ করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও পুঁজিবাদের অভিযোগে রাহুল গান্ধীর অভিযোগের কেন্দ্রস্থলেই রয়েছেন অনিল আম্বানি। রাহুল গান্ধী অভিযোগ করেন যে, রাফাল সৃষ্টিকর্তা দাসল্টের কাছ থেকে অফসেট চুক্তি পেতে অনিল আম্বানিকে সাহায্য করার জন্যই প্রধানমন্ত্রী মোদি ৩৬ টি রাফাল যোদ্ধা বিমান নির্ধারিত দামের চেয়ে অনেক বেশি দামে কেনেন। গত মাসেই মুকেশ আম্বানিকে এরিকসনের বকেয়া বাবদ ৪৫৮.৭৭ কোটি টাকা মিটিয়ে দিয়ে জেল যাওয়ার হাত থেকে বাঁচান ভাই মুকেশ আম্বানি। 

অনুমতি না নিয়ে সভা করার জন্য অভিযোগ দায়ের হল গৌতম গম্ভীরের বিরুদ্ধে

২০০২ সালে ধীরুভাই আম্বানির কোনও উইল ছাড়াই মারা যাওয়ার পরে এক দশকেরও বেশি সময় ধরে দুই ভাইয়ের মধ্যে বিবাদ চরমে ছিল। অনিল আম্বানি বিদ্যুৎ ও টেলিকম ব্যবসা নিয়ে নেন, অন্যদিকে তেল ও পেট্রোকেমিক্যাল ব্যবসায় দেখতে শুরু করেন মুকেশ আম্বানি। বছরের পর বছর ধরে তাদের মধ্যেকার অর্থনৈতিক ব্যবধানও চওড়া হতে থাকে। ঋণের মুখে পড়েন অনিল আম্বানি এবং মুকেশ আম্বানি এশিয়ার ধনীতম ব্যক্তি হয়ে ওঠেন।

২০১০ সালের মে মাসে তাদের মা কোকিলাবেন আম্বানি দুই ভাইয়ের মধ্যে শান্তি ফিরিয়ে আনেন। এই বছরের শুরুতেই অনিল আম্বানি ও তার স্ত্রী টিনা মুকেশ আম্বানির ছেলে আকাশ ও মেয়ের ইশার বিয়েতে উপস্থিত ছিলেন।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................