পরিবহণমন্ত্রীর আবেদনে রাজ্যে নামল বেসরকারি বাস! ভাড়াবৃদ্ধি নিয়ে রইল ধন্ধ

এই পরিস্থিতিতে এদিন পথে দেখা গেল প্রাইভেট বাস। কিন্তু সেই সংখ্যা যাত্রীদের চাহিদার তুলনায় নগণ্য

পরিবহণমন্ত্রীর আবেদনে রাজ্যে নামল বেসরকারি বাস! ভাড়াবৃদ্ধি নিয়ে রইল ধন্ধ

যতটুকু আসন, ততটুকু যাত্রী, সরকারি এই বিধি মেনে পথে মানতে চাইছিল না অনেক বেসরকারি বাস (ফাইল ছবি)

হাইলাইটস

  • বৃহস্পতিবার থেকে পথে নামল বেসরকারি বাস। এদিন জানালো বাসমালিক সংগঠন
  • ভাড়াবৃদ্ধি নিয়ে সরকারি তরফে কোনও ইঙ্গিত নেই।
  • যাত্রীদের কথা ভেবে এই সিদ্ধান্ত। জানিয়েছে বাস মালিক সংগঠন
কলকাতা:

বৃহস্পতিবার থেকে শহরের পথে নামল প্রাইভেট বাস (Private Buses in Kolkata)। পঞ্চম দফার লকডাউনে (Lockdown 5.0) একাধিক বিধি শিথিল করেছে রাজ্য। খুলে দেওয়া হয়েছে সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান। ফলে বাড়ি থেকে অফিস যেতে সমস্যায় পড়ছিলেন নিত্যযাত্রীরা। বন্ধ ট্রেন-মেট্রো। পরিবহণের সম্বল বলতে একমাত্র সরকারি বাস। তাও চাহিদার তুলনায় নগণ্য থাকায় এক-দেড় ঘণ্টা অপেক্ষা করে তবেই বাসে উঠতে হয়েছে। এমন অভিযোগ করেছেন নাগরিকরা। এদিকে, যতটুকু আসন, ততটুকু যাত্রী, সরকারি এই বিধি মেনে পথে মানতে চাইছিল না অনেক বেসরকারি বাস। এই ব্যবস্থাপনায় চলতি ভাড়ায় লোকসানের মুখে পড়বেন বাস মালিকরা। এমন অভিযোগ  সংগঠনের তরফে তোলা হয়েছিল। কিন্তু ভাড়াবৃদ্ধিতে সায় ছিল না রাজ্য সরকারের। ফলে চাক্কা জ্যামের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সোমবার সব বেসরকারি বাস মালিকদের সংগঠনের বৈঠকে স্থির হয়েছে, পরীক্ষামূলক কিছু বাছাই রুটে পথে নামবে বাস। যদিও ন্যূনতম ভাড়া  বৃদ্ধির দাবিতে তাঁরা সরব ছিলেন। সেই দাবি ভাবনাচিন্তার কোনও ইঙ্গিত আসেনি নবান্নের তরফে। এই পরিস্থিতিতে এদিন পথে দেখা গেল প্রাইভেট বাস। কিন্তু সেই সংখ্যা যাত্রীদের চাহিদার তুলনায় নগণ্য। এমনটাই দাবি করেছেন নাগরিকরা। 

রাজ্যে নাইট কার্ফুতে শিথিলতা! এবার রাত ৯টা থেকে ভোর ৫টা অবধি লাগু কার্ফু

এদিকে, রাজ্যের দুটি প্রথমসারির বাস মালিক সংগঠনের তরফে দাবি করা হয়েছে, পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর আবেদনকে মান্যতা দিয়ে আমরা পথে বাস নামালাম। 

নাইট কার্ফু বিধিতে শিথিলতা আনল রাজ্য। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের গাইডলাইন মেনে বাংলায় পালিত হবে নাইট কার্ফু। বৃহস্পতিবার এমন নির্দেশিকা জারি করেছে নবান্ন । এবার থেকে রাত ৯টা থেকে ভোর ৫টা অবধি রাজ্যে লাগু থাকবে এই লকডাউন। প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে পা রাখতে পারবেন না আবাসিকরা। এমনটাই জানিয়েছেন মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা।  জানা গিয়েছে, লকডাউন ৫, আদতে আনলক ১। অর্থাৎ এই দফায় ধীরে ধীরে স্বাভাবিক করা হবে নগর জীবন। সেই মোতাবেক কেন্দ্রীয় স্তরে একাধিক ক্ষেত্রে ছাড় ঘোষণা করা হয়েছে। এদিকে, জুন ১৫ পর্যন্ত রাজ্যে লকডাউন বাড়িয়েছে রাজ্য সরকার। সামাজিক-আর্থিক কর্মকাণ্ডে গতি আনতে শর্তাধীনে একাধিক ছাড় দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

নবান্নের ২ গাড়ির চালক করোনা পজিটিভ, স্যানিটাইজ করা হচ্ছে গোটা ভবন

এদিকে, রাজ্যের প্রশাসনিক ভবনেও এবার হামলা করলো করোনা ভাইরাস। জানা গেছে, নবান্নের ২ গাড়ির চালকের শরীরে করোনা  পজিটিভ ধরা পড়েছে। স্বভাবতই আতঙ্ক ছড়িয়েছে গোটা ভবন ও তার আশেপাশের এলাকায়। স্যানিটাইজ করা হচ্ছে গোটা ভবন, এই কারণেই বৃহস্পতি ও শুক্রবার বন্ধ থাকছে নবান্ন। আগামী কয়েকদিন তাই বাড়ি থেকেই রাজ্যের প্রশাসনিক কাজকর্ম পরিচালনা করবেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের প্রশাসনিক ভবনে পরিষেবার দায়িত্বে থাকা গাড়িগুলোর চালকদের মধ্যে যে ২ চালকের শরীরে কোভিড- ১৯ বাসা বেঁধেছে তা জানাজানি হওয়ার পরেই অন্য চালকদেরও শরীর থেকে নমুনা নিয়ে করোনা টেস্টের জন্যে পাঠানোর ভাবনাচিন্তা করা হচ্ছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। তবে করোনা আক্রান্ত চালকদের নাম-পরিচয় গোপন রাখা হয়েছে।

২৪ ঘণ্টায় আরও ৯,৩০৪ জনের শরীরে করোনার থাবা, মোট করোনা আক্রান্ত ২.১৬ লক্ষ

রাজ্য সচিবালয়ের ১৪ তলাতেই রয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কার্যালয়। ফলে জরুরি ভিত্তিতে আপাতত সেই ঘরও বন্ধ করে রাখা হয়েছে। বুধবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, "নবান্নের দুই গাড়ি চালকের করোনা ধরা পড়েছে। বাকি গাড়ি চালকদেরও টেস্ট করাতে বলা হয়েছে। আগামীকাল নবান্নে স্যানিটাইজেশন করা হবে"। এর আগে এপ্রিল ও মে মাসেও নবান্ন স্যানিটাইডজ করা হয়েছিল। 



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)