কুহেলী কাণ্ডে অভিযুক্ত ৩ চিকিৎসকের রেজিস্ট্রেশন বাতিল করল বেঙ্গল মেডিক্যাল কাউন্সিল

Kuheli Chakraborty death case: ডব্লিউবিএমসির আদেশ অনুসারে আগামী ৩ মাস রাজ্যের কোনও হাসপাতালে কাজ করতে পারবেন না দোষী সাব্যস্ত ৩ চিকিৎসক

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
কুহেলী কাণ্ডে অভিযুক্ত ৩ চিকিৎসকের রেজিস্ট্রেশন বাতিল করল বেঙ্গল মেডিক্যাল কাউন্সিল

Kuheli Chakraborty death case: ৪ বছরের শিশুকন্যার মৃত্যুর ঘটনায় চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ ওঠে (প্রতীকী)


কলকাতা: 

২০১৭-য় চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগে ইএম বাইপাসের লাগোয়া একটি বেসরকারি হাসপাতালে মৃত্যু হয় কুহেলী চক্রবর্তী নামে মাস চারেকের এক শিশুকন্যার (Kuheli Chakraborty)। ওই ঘটনার পর সন্তান হারানোর বেদনা বুকে নিয়েই ওই বেসরকারি হাসপাতালের চার চিকিৎসকের বিরুদ্ধে (Kuheli Chakraborty death case) রাজ্য (West Bengal) মেডিক্যাল কাউন্সিলের দ্বারস্থ হয়েছিলেন শিশুটির বাবা অভিজিৎ চক্রবর্তী এবং মা শালু চক্রবর্তী। শেষ পর্যন্ত হয়তো কিছুটা স্বস্তি পেলেন তাঁরা। কেননা অভিযুক্ত চার চিকিৎসকের মধ্যে সঞ্জয় মহাবর, সুভাষ তিওয়ারি ও বৈশালী রায় শ্রীবাস্তব, এই তিন চিকিৎসককে দোষী সাব্যস্ত করে তিন মাসের জন্য তাঁদের রেজিস্ট্রেশন বাতিল করার ঘোষণা করল রাজ্য মেডিক্যাল কাউন্সিল।

শিশুটিকে কোলোনোস্কপি করানোর জন্যে কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই পরীক্ষার জন্য দিনভর কুহেলী চক্রবর্তী নামের চার মাসের শিশুটিকে খালি পেটে রাখা হয়। কিন্তু সেদিন হাসপাতালে টেকনিশিয়ন না থাকায় ওই দিন পরীক্ষা করা সম্ভব হয়নি। পরের দিন আবার সাত ঘণ্টা পেট খালি রেখে ওই পরীক্ষা করা হয় শিশুটির। কুহেলী চক্রবর্তীর মায়ের অভিযোগ, পরীক্ষার জন্য অ্যানেস্থেসিয়া দেওয়ার পরে তাঁর মেয়ের আর জ্ঞান ফেরেনি। তখন তাঁকে ভেন্টিলেশনে দেওয়া হয়। পরের দিন সকালে হাসপাতালের তরফে জানানো হয় যে ছোট্ট শিশুকন্যাটি মারা গিয়েছে। এরপরেই ওই হাসপাতালের বিরুদ্ধে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ তুলে মামলা ঠোকেন শিশুটির অভিভাবক। সেই মামলারই দীর্ঘ শুনানির পর শুক্রবার ওই রায় ঘোষণা হয়।

রোগীমৃত্যুর জের! চিকিৎসককে পিটিয়ে মারল ক্ষুব্ধ জনতা

ডব্লিউবিএমসির আদেশ অনুসারে পরিষদের ওয়েবসাইট থেকে এই তিন চিকিৎসকের নাম মুছে ফেলা হবে এবং আগামী ৩ মাস তাঁদের রাজ্যের কোনও মেডিকেল হাসপাতালে কাজ করতে দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন এক উর্ধ্বতন কর্মকর্তা। যদিও এই রায়ের বিষয়ে কুহেলীর বাবা-মা অভিজিৎ ও শালু চক্রবর্তীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তাঁরা কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত সম্পর্কে অসন্তোষ প্রকাশ করেন এবং জানান যে তাঁরা সিদ্ধান্তটি পুনর্বিবেচনার জন্য ফের আবেদন করবেন।

চিকিৎসকদের উপরে হামলায় কড়া আইন আনতে মোদিকে চিঠি চিকিৎসকদের

অভিজিৎ চক্রবর্তী বলেন, "এই রায় দেখে মনে হচ্ছে যে চিকিৎসকদের যেন তিন মাসের ছুটিতে পাঠানো হল। আমরা সিদ্ধান্তটির পুনর্বিবেচনার জন্য আবেদন করব" ।

২০১৭ সালের ১৯ এপ্রিল, কলকাতার একটি প্রতিষ্ঠিত বেসরকারি হাসপাতালে শিশুটির মৃত্যুর পরে অভিভাবকরা চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ করেন এবং পশ্চিমবঙ্গ ক্লিনিকাল এস্টাব্লিশমেন্ট রেগুলেটরি কমিশন (ডব্লিউবিসিইআরসি) এবং ডব্লিউবিএমসি-র কাছে যান। ডব্লিউবিসিইআরসি হাসপাতালের কিছু গাফিলতির সন্ধান পায় বলে খবর। একটি সূত্র জানিয়েছে, শিগগিরই সেখানকার রায়ও বের হবে। ডব্লিউবিসিইআরসি ওই শিশুমৃত্যুর ঘটনায় তাঁর পরিবারকে ৩০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণও দেয়।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................