রাজীব কুমারের গ্রেফতারি থেকে সুরক্ষার মেয়াদ বাড়াল হাইকোর্ট

চিটফান্ড কেলেঙ্কারির তদন্তে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চেয়ে সিবিআইয়ের পাঠানো নোটিশ খারিজ করার আবেদন জানিয়ে মামলা করেছিলেন রাজীব কুমার (Rajeev Kumar)।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
রাজীব কুমারের গ্রেফতারি থেকে সুরক্ষার মেয়াদ বাড়াল হাইকোর্ট

চিটফান্ড কেলেঙ্কারির তদন্তে তাঁকে (Rajeev Kumar) জিজ্ঞাসাবাদ করতে চেয়ে নোটিশ পাঠায় সিবিআই। (ফাইল)


কলকাতা: 

কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের (Rajeev Kumar) গ্রেফতারী থেকে সুরক্ষার মেয়াদ এক সপ্তাহ বাড়াল কলকাতা হাইকোর্ট। চিটফান্ড কেলেঙ্কারির তদন্তে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চেয়ে নোটিশ পাঠায় সিবিআই (CBI)। তাঁর গ্রেফতারি বা কোনওরকম ব্যবস্থা নেওয়া, এক সপ্তাহ বা আগামী কোনও নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত স্থগিত থাকবে বলে জানিয়ে দিয়েছেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি মধুমন্তি মিত্র। সোমবার তাঁর সুরক্ষার মেয়াদ শেষ হয়। চিটফান্ড  কেলেঙ্কারির (Chit Fund Scam) তদন্তে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চেয়ে সিবিআইয়ের পাঠানো নোটিশ খারিজ করার আবেদন জানিয়ে মামলা করেছিলেন রাজীব কুমার (Rajeev Kumar)। মঙ্গলবার পর্যন্ত সেই মামলার শুনানির ওপর স্থগিতাদেশ দিয়েছেন বিচারপতি।

বেছে বেছে আমাকেই সমন পাঠাচ্ছে সিবিআই: হাইকোর্টে বললেন রাজীব কুমার

গত সপ্তাহের শুনানিতে কলকাতা হাইকোর্টে রাজীব কুমারের আইনজীবী অভিযোগ করেন, সারদা কেলেঙ্কারির তদন্তের দায়িত্বে রাজ্য সরকার গঠিত সিটের দায়িত্বে ছিলেন ১২১জন আধিকারিক। তারমধ্যে বেছে বেছে রাজীব কুমারকেই ডাকা হচ্ছে। বর্তমানে সিআইডির এডিজি পদে কর্মরত রাজীব কুমার। ২০১৩-এ প্রকাশ্যে আসে সারদা চিটফান্ড কেলেঙ্কারি, সেই সময় বিধাননগরের পুলিশ কমিশনার ছিলেন রাজীব কুমার (Rajeev Kumar)। এরসঙ্গেই সিটের তদন্তের দেখভালের দায়িত্বে ছিলেন তিনি।

২০১৪-এর ৯ মে, সারদাসহ সমস্ত চিটফান্ড কাণ্ডের (Chit Fund Scam) তদন্তের দায়িত্ব সিবিআইয়ের (CBI) হাতে তুলে দেওয়ার নির্দেশ দেয় সুপ্রিম কোর্ট।

চলতি সপ্তাহেই রাজীব কুমারের মামলার শুনানি হাইকোর্টে

৩০ মে রাজীব কুমারের গ্রেফতারি থেকে সুরক্ষা দেয় হাইকোর্টের অবকাশকালীন বেঞ্চ। ১০ জুলাই পর্যন্ত তাঁকে গ্রেফতার বা কোনওরকম ব্যবস্থা নেওয়া যাবে না বলে জানায় আদালত। পরে সেই সুরক্ষার মেয়াদ ২২ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানো হয়। রাজীব কুমারকে, চিটফান্ড কেলেঙ্কারির (Chit Fund Scam) তদন্তে তদন্তকারী আধিকারিকদের সঙ্গে সহায়তা করার নির্দেশ দেন। এর আগে হাইকোর্টে রাজীব কুমারের (Rajeev Kumar) আইনজীবী হাইকোর্টে বলেন, ইতিমধ্যেই তাঁকে ৩৯ ঘন্টা ৪৫ মিনিট জেরা করেছে সিবিআই, এবার “প্রতিহিংসা” চরিতার্থ করতে তাঁকে হেফাজতে নিতে চাইছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা।

২২ জুলাই পর্যন্ত গ্রেফতার করা যাবে না রাজীব কুমারকে,জানাল কলকাতা হাইকোর্ট

আরও বলা হয়, না সাক্ষী হিসেবে, না অভিযুক্ত হিসেবে, কোনওভাবেই সিবিআইয়ের (CBI) পেশ করা চার্জশিটে নাম নেই রাজীব কুমারের। ১৭ মে রাজীব কুমারকে দেওয়া সুরক্ষা প্রত্যাহার করে নেয় সুপ্রিম কোর্ট।

৫ ফেব্রুয়ারি রাজীব কুমারের (Rajeev Kumar) গ্রেফতারি বা কোনওরকম ব্যবস্থা নেওয়ার থেকে সুরক্ষা দেয় সুপ্রিম কোর্ট। পাশাপাশি কোনও “নিরপেক্ষ জায়গায়” তদন্তকারীদের সামনে হাজিরা দিয়ে তদন্ত সহযোগিতা করতে বলে। ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে পাঁচদিন তাঁকে শিলং-এ জেরা করে সিবিআই।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................