মায়ের মৃতদেহ অনেকদিন আগলে বসে থাকা সল্টলেকের যুবকের মানসিক চিকিৎসা শুরু হল

চিকিৎসকরা তাঁকে সম্পূর্ণ সুস্থ বলে ঘোষণা করার পরেই  তাঁর হাতে কৃষ্ণাদেবীর দেহ দাহ করার জন্য তুলে দেওয়া হবে বলে জানায় পুলিশ।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
মায়ের মৃতদেহ অনেকদিন আগলে বসে থাকা সল্টলেকের যুবকের মানসিক চিকিৎসা শুরু হল

পুলিশ তদন্ত করে তাঁর সম্বন্ধে  সমস্ত খুঁটিনাটি তথ্য সংগ্রহ করছে এখন


কলকাতা: 

সল্টলেকের বাড়িতে মায়ের মৃতদেহ বেশ কয়েকদিন ধরে আগলে রেখে বসেছিলেন বছর পঁয়ত্রিশের যুবক। কাউকে খবরও দেননি। বেশ কয়েকদিন ধরে অতি পচা দুর্গন্ধ পাওয়ার পর এলাকার বাসিন্দারাই খবর দেন পুলিশকে। পুলিশ এসে সোমবার ওই বাড়ির ভিতর থেকে উদ্ধার করে যুবকের মায়ের মৃতদেহ। শহরবাসীর মনে সাড়ে তিন বছর আগে রবিনসন স্ট্রিটের ঘটনার স্মৃতি ফিরিয়ে আনে এই চোখ কপালে উঠে যাওয়ার মতো ঘটনাটি। সেই যুবক মৈত্রেয় ভট্টাচার্যকেই পুলিশ মানসিক চিকিৎসার জন্য পাঠাল হাসপাতালে। তাঁর মা কৃষ্ণা ভট্টাচার্যের দেহের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসার পরে, তার মায়ের মৃত্যু 'অস্বাভাবিক' নয় সিদ্ধান্তে আসার পরেই, যুবককে হাসপাতালে পাঠায় পুলিশ। 

পুলিশ জানায়, তাদের হেফাজতে থাকার সময় মৈত্রেয়র মা কৃষ্ণা ভট্টাচার্য এবং বাবা ডঃ গোরাচাঁদ ভট্টাচার্যের ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, "আমার বাবা প্রেসিডেন্ট জর্জ বুশ আর মা রানি এলিজাবেথ"। থানায় তাঁকে ভাত আর মুরগির মাংস খেতে দেওয়া হলে তিনি চিকেন কাটলেট আর স্যান্ডউইচ খেতে চান। 

পুলিশ তদন্ত করে তাঁর সম্বন্ধে  সমস্ত খুঁটিনাটি তথ্য সংগ্রহ করছে এখন। মৈত্রেয়র চিকিৎসার জন্য তাঁর  অতীতটা জানা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেন চিকিৎসকরা। 

চিকিৎসকরা তাঁকে সম্পূর্ণ সুস্থ বলে ঘোষণা করার পরেই  তাঁর হাতে কৃষ্ণাদেবীর দেহ দাহ করার জন্য তুলে দেওয়া হবে বলে জানায় পুলিশ।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................