কী কাণ্ড! লকডাউনের মধ্যেই প্রেমিকের সঙ্গে পালাল মেয়ে, আদালতে গেলেন বাবা

Coronavirus Lockdown: কেরলে অন্য ধর্মের একটি ছেলের হাত ধরে পালালেন তরুণী, লকডাউন অমান্য করেছে মেয়ে, এই অভিযোগে মামলা করলেন বাবা

কী কাণ্ড! লকডাউনের মধ্যেই প্রেমিকের সঙ্গে পালাল মেয়ে, আদালতে গেলেন বাবা

Girl Ran Away With Boyfriend: লকডাউন উপেক্ষা করে পালালেন প্রেমিক যুগল

হাইলাইটস

  • লকডাউন অমান্য় করেই প্রেমিকের সঙ্গে পালালেন এক তরুণী
  • পরে পুলিশ তাঁদের ধরে আদালতের সামনে হাজির করে
  • লকডাউনের নিষেধাজ্ঞা না মানায় প্রেমিক যুগলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের

করোনার (Coronavirus) সংক্রমণ এড়াতে দেশ জুড়ে লকডাউন চলছে, তাতে কী? তার জেরে তো আর প্রেম থেমে থাকতে পারে না... কবির কথাকে একটু এদিক-ওদিক করে বলাই যায় লকডাউন (Coronavirus Lockdown) থাকুক না থাকুক, আজ বসন্ত। আর ভালবাসার এই সূত্র মেনেই কেরলের (Kerala) কোজিকোড জেলার কাছাকাছি থামারসেরি এলাকার বাসিন্দা এক তরুণী পালালেন (Girl Ran Away With Boyfriend) তাঁর প্রেমিকের সঙ্গে। এদিকে খবর জানাজানি হওয়ার পর রেগে আগুন তাঁর বাবা। কারণ একে তো মেয়ে পালিয়েছে, তার উপর আবার পালিয়েছে ভিনধর্মের এক তরুণের সঙ্গে। কোনও উপায়ান্তর না দেখে এবার তাই লকডাউনকেই হাতিয়ার করলেন মেয়ের বাবা। লকডাউনের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পালিয়েছে মেয়ে, এই অভিযোগে আদালতের দ্বারস্থ হলেন বছর একুশের তরুণীর বাবা। এরপরেই তদন্তে নামে পুলিশ। এদিক-ওদিক খোঁজার পর পাকড়াও করা হয় ওই প্রেমিক যুগলকে। পুলিশ জানিয়েছে, গত শনিবার নিজের ২৩ বছরের প্রেমিকের সঙ্গে বেপাত্তা হয়ে যান ওই তরুণী। 

১৫ অক্টোবর পর্যন্ত দেশের রেস্তোঁরা-হোটেল বন্ধ থাকবে? জেনে নিন বিস্তারিত

এদিকে ভিনধর্মের ছেলে হওয়ায় আগে থেকেই মেয়েটির পরিবার তাঁদের ওই প্রণয়-সম্পর্কের বিরুদ্ধে ছিল।পুলিশ ওই দু'জনকে ধরে ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে হাজির করে। কিন্তু দু'জনেই প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় তাঁদের ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় প্রশাসন। ওই তরুণীকে আদালতে হাজির করা হলে তিনি বলেন যে স্বেচ্ছায় প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে গেছেন। তবে আদালতের নির্দেশে পুলিশ COVID-19 এর সংক্রমণ বন্ধের যে লকডাউন জারি করা হয়েছে তা লঙ্ঘনের দায়ে প্রেমিক যুগলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ১৭ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা ভাইরাস। এই নিয়ে সব মিলিয়ে এদেশে মোট ১৬৬ জনের মৃত্যু হল ওই রোগে। প্রতিদিনই হু-হু করে বাড়ছে মারণ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের হিসাব অনুযায়ী, ভারতে মোট করোনা আক্রান্ত ৫,৭৩৪ জন। এই রোগের সংক্রমণের বাড়বাড়ন্ত রুখতে ২৪ মার্চ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দেশ জুড়ে লকডাউনের কথা বলেন। আপাতত আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত এর মেয়াদ থাকলেও পরিস্থিতি যা দাঁড়িয়েছে তাতে এখনই লকডাউনের নিষেধাজ্ঞা না তোলারই ইঙ্গিত দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। 

লকডাউনে বিয়ে! শ্রীঘরে যেতে হল বর-কনে সহ অতিথিদেরও

করোনার ভাইরাসের কারণে মহারাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে, সেখানে করোনার শিকার ৭২। এরপরেই, রয়েছে গুজরাট, সেখানে মারা গেছেন ১৬ জন, মধ্যপ্রদেশে মৃত্যু হয়েছে ১৩ জন এবং দিল্লিতে ৯ জন মারা গেছেন। পঞ্জাব ও তামিলনাড়ুতে ৮ জন করে মারা গেছেন, তেলেঙ্গানায় প্রাণ হারিয়েছেন ৭ জন।

Click for more trending news