কাশ্মীরে আসছেন গুলাম নবি আজাদ, ফেরানো হতে পারে বিমানবন্দর থেকেই

Kashmir Article 370: সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিতে প্রায় ৪০০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। দুই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি ও ওমর আবদুল্লাকে নজরবন্দি করে রাখা হয়েছে।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
কাশ্মীরে আসছেন গুলাম নবি আজাদ, ফেরানো হতে পারে বিমানবন্দর থেকেই

Article 370 Jammu and Kashmir: মনে করা হচ্ছে, গুলাম নবি আজাদকে হয়তো বিমানবন্দর থেকেই ফেরত পাঠানো হবে।


নয়াদিল্লি: 

কংগ্রেস সাংসদ গুলাম নবি আজাদ (Ghulam Nabi Azad) বৃহস্পতিবার জম্মু ও কাশ্মীরে (J&K) আসছেন। সোমবার রাজ্যসভায় রাজ্যের ৩৭০ ধারা (Article 370) বাতিল করে ‘স্পেশাল স্ট্যাটাস' তুলে নিয়ে তাকে দু'টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে বিভক্ত করার ঘোষণার আগেই রবিবার মধ্যরাত থেকে কার্যত তালাবন্দি কাশ্মীর। পথঘাট শুনশান। টহল দিচ্ছে সেনা। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যসভার বিরোধী নেতা গুলাম নবি আজাদ শ্রীনগরে এসে কংগ্রেস নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। কিন্তু মনে করা হচ্ছে, যেহেতু এখানে এখন প্রভূত কড়াকড়ি রয়েছে তাই তাঁকে হয়তো বিমানবন্দর থেকেই ফেরত পাঠানো হবে। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিতে প্রায় ৪০০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জম্মু ও কাশ্মীরের দুই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি ও ওমর আবদুল্লাকে নিজেদের বাসভবনে নজরবন্দি করে রাখা হয়েছে।

জম্মু-কাশ্মীরে লকডাউন সহ প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীদের গ্রেফতারের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে মামলা

গুলাম আজাদ সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘‘জম্মু ও কাশ্মীরের জনগণ বিষণ্ণ রয়েছেন। আমি সেখানে গিয়ে তাঁদের দুঃখের অংশীদার হতে চাই। ওদের সঙ্গে থাকতে চাই। সম্ভবত এই প্রথমবার সেখানকার ২২টি জেলাতেই কার্ফু চলছে। এমনটা আপনারা আগে শুনেছেন?''

বুধবার শ্রীনগরে গিয়েছেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল। সেখানে তাঁকে কাশ্মীরিদের সঙ্গে একসঙ্গে খাওয়া দাওয়া করতে ও কথা বলতে দেখা গিয়েছে রাস্তায়। গুলাম নবির দাবি, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হচ্ছে এটা বোঝাতেই তা করা হলেও পুরোটাই সাজানো। তিনি বলেন, ‘‘আপনি যে কাউকে টাকা দিয়ে এটা করাতে পারেন।''

দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভাগ হচ্ছে জম্মু ও কাশ্মীর

সরকারের জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে পদক্ষেপের ক্ষেত্রে নিজের দলেই বিভেদ দেখতে পেয়েছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি সংসদে এই পদক্ষেপের বিরাট নিন্দা করে একে ‘গণতন্ত্রের হত্যা' বলে দাবি করলেও কংগ্রেসেরই বহু নেতা এই পদক্ষেপকে সমর্থন করেছেন। তাঁদের মধ্যে অন্যতম জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া, জনার্দন দ্বিবেদি, দীপেন্দর হুডা এবং মিলিন্দ দেওরা।

মঙ্গলবার কংগ্রেসের কার্যকরী কমিটির বৈঠকে শীর্ষস্থানীয়দের কাছে কাশ্মীর নিয়ে বক্তব্য রাখেন গুলাম নবি আজাদ। ব্যাখ্যা করেন কেন তিনি এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে।

কংগ্রেস সংসদীয় দলীয় চেয়ারপার্সন সোনিয়া গান্ধি, রাহুল গান্ধি এবং প্রিয়ঙ্কা গান্ধি ভদঢ়া এই নিয়ে এখনও পর্যন্ত মন্তব্য করা এড়িয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু এই পদক্ষেপের পদ্ধতি নিয়ে সমালোচনা করেছেন তাঁরা।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................