‘বাংলা ভালোবাসা-ও না ভালো ভাষাও না? কী লজ্জা!’: কবীর সুমন

যে ভাষার জন্য সালাম বরকতেরা রক্ত দিলো, ৫২’সালের লড়াই, আমার ‘আমি’ জন্ম নিলো সে ভাষা আমার গানে তোমার পানে আমার অঙ্গীকার।

‘বাংলা ভালোবাসা-ও না ভালো ভাষাও না? কী লজ্জা!’: কবীর সুমন

‘বাংলা ভালোবাসা-ও না ভালো ভাষাও না? কী লজ্জা!’

কলকাতা:

বহুদিন পরে সোশ্যালে মুখর কবীর সুমন (Kabir Suman)। লজ্জায়, আত্ম ধিক্কারে ম্রিয়মাণ আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন এই শিল্পী। বাংলা ভাষাকে (Bengali Language) ভালোবেসে, ভাষার প্রতি একুশের বাঙালির ঘৃণামিশ্রিত অনুকম্পাকে তীব্র ব্যঙ্গ, ক্ষোভে কষাঘাত করে বৃহস্পতিবার ফেসবুকে লাইভ হন সুমন। তাঁর অভিব্যক্তি, তাঁর হতাশা যেন গরম শিসে হয়ে পুড়িয়েছে সেই সময় উপস্থিত সমস্ত দর্শক-শ্রোতার কান-মন। ভাষা দিবসের (International Mother Language Day) আগের দিন তাঁকে বেসরকারি এফএম চ্যানেল থেকে এক অল্পবয়সী আরজে ফোনে বিনীত অনুরোধ জানান, ‘বাংলা ভালোবাসাও না, বাংলা ভালো ভাষাও না'---এর ওপরে কিছু বলতে। অনেক বাঙালি তারকাই নাকি অনায়াসে তাঁদের মত জানিয়েছেন! কবীর সুমনও সেই অনুযায়ী তথাকথিত তারকা। তাই তিনিও যদি কিছু বলেন। এরপরেই আত্মগ্লানিতে ভেঙে পড়ে কবীর সুমন বলেন, ভাষা দিবসের দিন বাংলায় খেয়াল গাইবেন বলে রেওয়াজে বসেছিলেন তিনি। সেই সময় এই ফোন যেন তাঁর অস্তিত্ত্ব ধরে নাড়া দিল সজোরে। বাংলার পীঠস্থান বলে যে শহরকে নিয়ে এত গর্ব বাংলা, বাঙালির সেই শহরের বাঙালির মুখে এ কী কথা! লজ্জায় কোথায় মুখ লুকোবেন তিনি?

tjde57sg

ভাষাদিবসের সকালে কবীর সুমন নতুন করে স্বীকার করেন ভাষা আন্দোলনে শহিদ বাংলাদেশের আবদুল জব্বার, শফিউর রহমান, আবদুল সালামকে। ঋণ স্বীকার করেন তাঁদের, ৫২ বছর ধরে আগে বাংলা ভাষাকে নিজের রক্ত দিয়ে মায়ের সম্মান দেওয়ার জন্য।  

শহিদ স্মরণের আগে, ভাষা দিবসের আগের দিন এভাবেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন কবীর সুমন। জানান, সবার কাছে বিনীত অনুরোধ, মানব জাতির অস্তিত্বের পাশাপাশি বাংলা ভাষাকেও এভাবে সংকটে ফেলবেন না। তাঁর বিদ্রোহ, তাঁর কাছে যতবার এই ধরনের প্রশ্ন আসবে তিনি তার উত্তর দেবেন বেহাগ, জৌনপুরী রাগে বাংলায় খেয়াল রেওয়াজ করে।

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com