নাগরিকত্ব আইনের সমর্থক ও বিক্ষোভকারীদের মধ্যে সংঘর্ষ উত্তরপূর্ব দিল্লিতে : ১০টি তথ্য

জাফরাবাদে নাগরিকত্ব আইনের (Citizenship law) বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু হয়। আইনের পক্ষে এক বিজেপি নেতা সভা করার সিদ্ধান্ত নিলে ঝামেলার সূত্রপাত

Jaffarabad Protest: নাগরিকত্ব আইন প্রত্যাহারের দাবিতে শনিবার রাতে জাফরাবাদ মেট্রো স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় ধরনা শুরু করেন প্রায় ২০০ জন মহিলা।

নয়াদিল্লি: নাগরিকত্ব আইনের পক্ষে এবং তার বিরুদ্ধে বিক্ষোভকারীদের মধ্যে রবিবার বিকেলে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ল উত্তরপূর্ব দিল্লির মৌজপুরে। জাফরাবাদে নাগরিকত্ব আইনের (Citizenship law) বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু হয়। এদিন বিকেলে, স্থানীয় বিজেপি নেতা কপিল মিশ্র আইনের পক্ষে সভা করার সিদ্ধান্ত নিতে ঝামেলার সূত্রপাত। যদিও এখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে, তবে, বিক্ষোভকারীদের এখনও হঠানো যায়নি।

এখানে রইল ১০'টি তথ্য:

  1. ঘটনাস্থলের টেলিভিশন ফুটেজে দেখা গিয়েছে, পুলিশ ব্যারিকেড সংলগ্ন এলাকায় দাঁড়িয়ে রাস্তার ওপর দিয়েই, একে অপরের দিকে পাথর ছুঁড়ছে বিক্ষোভকারীরা।
     

  2. জানা গিয়েছে যে, এলাকায় পৌঁছায় পুলিশ এবং আধা সামরিকবাহিনী, ভিড় হঠাতে কাঁদানে গ্যা ছোঁড়ে তারা।
     

  3. নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভস্থলে প্রচুর সংখ্যক মহিলা থাকায়, সেখানে লাঠিচার্জ করেনি পুলিশ।
     

  4. নাগরিকত্ব আইন প্রত্যাহারের দাবিতে শনিবার রাতে জাফরাবাদ মেট্রো স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় ধরনা শুরু করেন  প্রায় ২০০ জন মহিলা। ব্যাপক সংখ্যক পুলিশের উপস্থিতিতে জাতীয় পতাকা হাতে নিয়ে “আজাদি” স্লোগান দেন বিক্ষোভকারীরা।
     

  5. রাতে ভিড় আরও বাড়ে যায়, বিক্ষোভ যোগ দেন বহু মহিলা এবং শিশুরাও হাজির হয় বিক্ষোভস্থলে। বিক্ষোভকারীদের একজন বলেন, “নাগরিকত্ব আইন, জাতীয় নাগরিকপঞ্জী থেকে আমরা স্বাধীনতা চাই”। বিক্ষোভের কারণে, সাময়িক স্থগিত রাখা হয় মেট্রো পরিষেবা।
     

  6. বিজেপি নেতা বিজয় গোয়েলকে উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা আইএএনএস জানিয়েছে, “এই বিক্ষোভ সংগঠিত করেছে বিরোধীরা, যারা প্রধানমন্ত্রী মোদিকে হারাতে পারছে না। আইনটি সংসদে পাস হয়েছে, এবং এর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করা বা প্রচার করা ভুল”।
     

  7. শাহিনবাগে মহিলাদের বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ার পর, যেসব জায়গায় মহিলারা আন্দোলন শুরু করেন, তাঁদের মধ্যে রয়েছে এই জাফরাবাদ।
     

  8. গত দুমাস ধরে শাহিনবাগের রাস্তার বিক্ষোভ, ধরনায় রয়েছেন শতাধিক মহিলা, যুব এবং বয়স্করা, দক্ষিণ-পূর্ব এবং নয়ডা সংযোগকারী রাস্তা বন্ধ বিক্ষোভের ফলে।
     

  9. শাহিনবাগের বিক্ষোভকারীদের কাছে পৌঁছাতে, বা তাঁদের সঙ্গে আলোচনার জন্য তিনজন মধ্যস্থতাকারী নিয়োগ করেছে সুপ্রিম কোর্ট।
     

  10. সেই মধ্যস্থতাকারীদের একজন, ওয়াজাত হাবিবুল্লাহ আদালতে হলফনামায় বলেন, এলাকায় আরও পাঁচটি বিকল্প রাস্তা রয়েছে, যেগুলি পুলিশ বন্ধ করে রেখেছে এবং বিক্ষোভকারীরা রাস্তা বন্ধ করে যাতায়াতের সমস্যা তৈরি করছে বলে যে অভিযোগ তোলা হয়েছে, তা সঠিক নয়। তিনি জানান, সুরক্ষার জন্য ওই জায়গাটি বেছে নিয়েছেন মহিলারা, তবুও তাঁরা নিয়মিত হুমকি পাচ্ছেন।



Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com