ভাল রয়েছেন পি চিদাম্বরম, জানাল এআইআইএমএস, অন্তবর্তী জামিনের আর্জি খারিজ হাইকোর্টের

INX Media Case: আইএনএক্স মিডিয়াকে বিদেশী বিনিয়োগ ছাড়পত্র দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে পি চিদাম্বরমের বিরুদ্ধে, ২১ অগস্ট তাঁকে গ্রেফতার করে সিবিআই

ভাল রয়েছেন পি চিদাম্বরম, জানাল এআইআইএমএস, অন্তবর্তী জামিনের আর্জি খারিজ হাইকোর্টের

৪ নভেম্বর পি চিদাম্বরমের জামিনের মূল মামলার শুনানি।

নয়াদিল্লি:

আইএনএক্স মিডিয়া (INX Media Case) কেলেঙ্কারিতে পি চিদাম্বরমের (P Chidambaram) অন্তবর্তী জামিনের আর্জি খারিজ করে দিল দিল্লি হাইকোর্ট। শুক্রবার  তাঁর স্বাস্থ্যপরীক্ষা করেন এআইআইএমএস এর মেডিক্যাল বোর্ড, তারপরেই তাঁরা জানিয়ে দেন পি চিদাম্বরমের “সুস্থ” থাকার স্পষ্ট লক্ষণ পাওয়া গিয়েছে, এরপরেই প্রবীণ কংগ্রেস নেতার জামিন খারিজ হয়ে যায়। আদালতের নির্দেশে এই মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়, তাঁরা শুধুমাত্র সুপারিশ করতে পারবেন, তিনি মিনারেল ওয়াটার এবং বাড়ির খাবার গ্রহণ  করতে পারবেন। রিপোর্ট পাওয়ার পরেই, মশা থেকে পি চিদাম্বরমকে সুরক্ষা এবং তাঁর আশপাশ পরিষ্কার রাখার জন্য তিহার জলে কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছে আদালত। ৪ নভেম্বর জামিনের মূল মামলার শুনানি।  

এইমসের কাছ থেকে চিদাম্বরমের স্বাস্থ্যপরীক্ষার রিপোর্ট তলব করল আদালত

২৮ অক্টোবর নয়াদিল্লির এআইআইএমএসে ভর্তি করা হয় পি চিদাম্বরমকে, পাকস্থলীতে সমস্যার জন্য চিকিৎসা করাতে হায়দরাবাদে যেতে চান তিনি এবং তারজন্য জামিনের আবেদন করেন। জামিনের আবেদনে, প্রবীণ কংগ্রেস নেতার যুক্তি, তাঁর অবস্থা ক্রমশ খারাপ হচ্ছে, এবং স্বচ্ছ পরিবেশে থাকা প্রয়োজন তাঁর। বৃহস্পতিবার আদালতে, পি চিদাম্বরমের রাজনৈতিক সহকর্মী এবং আইনজীবী কপিল সিব্বল আদালতে বলেন, “আমার অনুরোধ, এখনকার জন্য তাঁকে স্বচ্ছ পরিবেশে রাখা হোক। যদি এআইআইএমএস কর্তৃপক্ষ বলে, এর কোনও প্রয়োজন নেই, তাহলে আপনি তাঁকে ফিরিয়ে দিতে পারেন”।

কপিল সিব্বলের জবাবে, পি চিদাম্বরমকে একটি মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করতে বলে আদালত, এবং তাঁর শারিরীক অবস্থা নিয়ে রিপোর্ট দিতে বলে। পশ্চিমি সুবিধাযুক্ত শৌচাগার এবং প্রয়োজনীয় ওষুধ পান পি চিদাম্বরম।

পেটের যন্ত্রণা, এআইআইএমএসে ভর্তি করা হল পি চিদাম্বরমকে

২১ অগস্ট পি চিদাম্বরমকে গ্রেফতার করে সিবিআই। ২০০৭-এ কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী থাকাকালীন আইএনএক্স মিডিয়াকে ৩০৫ কোটি টাকা বিদেশী বিনিয়োগ পাওওয়ার জন্য অনুমোদন দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে পি চিদাম্বরমের বিরুদ্ধে। তিহার জেলে থাকাকালীন, ১৬ অক্টোবর, পি চিদাম্বরমকে গ্রেফতার করে, আর্থিক তছরূপ মামলার তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট।

গত সপ্তাহে, পি চিদাম্বরমের জামিন  মঞ্জুর করে সুপ্রিম কোর্ট, তাঁর পালিয়ে যাওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই., এই যুক্তিতে তাঁর জামিন মঞ্জুর করে শীর্ষ  আদালত, এমন একজন সাক্ষীকেও প্রভাবিত করার চেষ্টা করেছেন বলে কোনও “গুজব” নেই।

More News