পি চিদাম্বরমের জামিন নয়, সাক্ষীদের প্রভাবিত করতে পারেন, বলল দিল্লি হাইকোর্ট

INX Media Case: নির্দেশে দিল্লি হাইকোর্ট বলে, তথ্যপ্রমাণ নষ্ট করার কোনও সুযোগ নেই,তবে সম্ভাবনা রয়েছে, সাক্ষীদের প্রভাবিত করতে পারেন পি চিদাম্বরম

INX Media Case: গতমাস থেকেই তিহার জেলে রয়েছেন পি চিদাম্বরম

নয়াদিল্লি:

সাক্ষীদের প্রভাবিত করতে পারেন, বলে সোমবার আশঙ্কাপ্রকাশ করে আইএনএক্স মিডিয়া কেলেঙ্কারিতে প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী তথা পি চিদাম্বরমের (P Chidamabaram) জামিন না মঞ্জুর করল দিল্লি হাইকোর্ট (Delhi High Court)। তাঁকে সিবিআইয়ের জিজ্ঞাসাবাদ শেষ হওয়ায় গতমাস থেকেই তিহার জেলে রয়েছেন তিনি। নির্দেশে দিল্লি হাইকোর্ট বলে, তথ্যপ্রমাণ নষ্ট করার কোনও সুযোগ নেই,তবে সম্ভাবনা রয়েছে, সাক্ষীদের প্রভাবিত করতে পারেন পি চিদাম্বরম। আদালতে পি চিদাম্বরম দাবি করেন, প্রকৃতিগতভাবে এই তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ গুরুতর নয়, অভিযোগ অনুযায়ী, তা প্রমাণ হলে ৭ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে। গত অগস্টে তাঁকে গ্রেফতার করে সিবিআই, তদন্তকারী সংস্থার তরফে আদালতে বলা হয়, “সাজার সঙ্গে অপরাধের গুরুত্বের কোনও সম্পর্ক নেই...যে অপরাধ করা হয়েছে, সমাজ, অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা এবং দেশের অখণ্ডতার ওপর তার প্রভাবের ভিত্তি করে অপরাধের গুরুত্ব বিচার করা হয়”।

আইএনএক্স মামলায় প্রাক্তন-নীতি আয়োগ প্রধান সহ তিনজনের বিরুদ্ধে সিবিআইকে মামলা করার অনুমতি

২০০৭-এ কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী থাকাকালীন ওই সংস্থাকে বড় অঙ্কের বিদেশী লগ্নি পেতে অনুমোদন দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে। বিষয়টিতে, তাঁর ছেলে কার্তি চিদাম্বরমের বিরুদ্ধে ঘুষ নেওযার অভিযোগ তুলেছে সিবিআই।

আইএনএক্স মিডিয়ার সহপ্রতিষ্ঠাতা পিটার মুখোপাধ্যায় ও ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়, শিনা বোরা হত্যাকাণ্ডে জেলে রয়েছেন তাঁরা।

এই  মামলায় চিদাম্বরমের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের রাজসাক্ষী ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়, তাঁর মতামতের ওপর ভিত্তি করেই মামলা সাজিয়েছেন তদন্তকারীরা। 

একডজন অফিসার, ৬জন সচিব, এই প্রস্তাব খতিয়ে দেখে প্রস্তাব দেন। পি চিদাম্বরম এনিয়ে সর্বসম্মতভাবে সুপারিশ পাঠান বলে জানা গিয়েছে।

প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং বলেন বলেন, “যদি কোনও মন্ত্রী একটি সুপারিশ অনুমোদন করার জন্য দায়ী থাকেন, তাহলে পুরো ব্যবস্থাই ভেঙে পড়বে”।

More News