This Article is From Aug 21, 2019

"কোন্ আইনের অধীনে?":সিবিআইয়ের ২ ঘণ্টার নোটিসে প্রশ্ন চিদাম্বরমের আইনজীবীর

INX Media case: "যে আইনের ভিত্তিতে (সিবিআই) আমার ক্লায়েন্টকে ২ ঘণ্টার মধ্যে হাজিরা দেওয়ার নোটিস জারি করেছে তার উল্লেখ নেই" বললেন আইনজীবী অর্শদীপ সিং

INX মিডিয়া মামলায় পি চিদাম্বরমের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে

নয়াদিল্লি:

আইএনএক্স দুর্নীতি মামলায় (INX Media case) সিবিআইয়ের নোটিস নিয়ে এবার প্রশ্ন তুললেন পি চিদাম্বরমের আইনজীবী অর্শদীপ সিং। ওই কংগ্রেস সাংসদের (P Chidambaram) আইনজীবী কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থাকে (CBI) প্রশ্ন করেছেন,  যে কোন আইনের ভিত্তিতে দুর্নীতির মামলায় তাঁর ক্লায়েন্টকে ২ ঘণ্টার মধ্যে হাজির হওয়ার কথা বলা হয়েছে। মঙ্গলবার সিবিআই চিদাম্বরমের বাড়ির বাইরে একটি নোটিস দিয়ে তাঁকে "২ ঘণ্টার মধ্যে" হাজির হওয়ার নির্দেশ দেয়। আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় চিদাম্বরমের আগাম জামিনের আবেদন দিল্লি হাইকোর্ট খারিজ করার পরেই কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থাটি প্রাক্তন ওই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর (P Chidambaram) সন্ধানে নেমে পড়ে। সংবাদ সংস্থা এএনআই অনুসারে, চিদাম্বরমের আইনজীবী অর্শদীপ সিং খুরানা বলেছেন, "যে আইনের ভিত্তিতে (সিবিআই) আমার ক্লায়েন্টকে ২ ঘণ্টার মধ্যে হাজিরা দেওয়ার নোটিস জারি করেছে তার উল্লেখ নেই"।

গ্রেফতারি এড়াতে চিদাম্বরমকে সুরক্ষা নয়, প্রাক্তন মন্ত্রীর বাড়িতে সিবিআই গোয়েন্দারা

"তাঁকে (পি চিদাম্বরম) আজ (বুধবার) সকাল সাড়ে দশটায় সুপ্রিম কোর্টের কাছে এই আদেশের বিরুদ্ধে বিশেষ ছুটির আবেদন করার জন্য আদালতের তরফ থেকে অনুমতি দেওয়া হয়েছে। অতএব, আমি আপনাকে (সিবিআইকে) অনুরোধ করছি ততক্ষণ পর্যন্ত আমার ক্লায়েন্টের বিরুদ্ধে কোনও কড়া ব্যবস্থা না নেওয়ার জন্য। সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, আইনজীবী সিবিআইকে একটি চিঠিতে বলেছেন, সকাল সাড়ে দশটায় শুনানির অপেক্ষা করার জন্যে।

চিদাম্বরমের আইনজীবী বলেন, "তাছাড়াও, আমার ক্লায়েন্ট তাঁর প্রাপ্য আইনি অধিকারগুলি ব্যবহার করছেন এবং নিজের আগাম জামিন খারিজ সংক্রান্ত (আইএনএক্স মিডিয়া মামলায়) আদেশের বিরুদ্ধে জরুরি রেহাই চেয়ে ২০ আগস্ট সুপ্রিম কোর্টে আবেদনও করেন।"

প্রাথমিকভাবে সিবিআই এবং এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের দুটি দল দিল্লিতে পি চিদাম্বরমের বাড়িতে যায়, কিন্তু ওই কংগ্রেস নেতার সন্ধান পায়নি তাঁরা। পরে সিবিআইয়ের অন্য একটি দল তাঁর বাড়িতে নোটিসটি দিতে যায়।

সিবিআইয়ের ওই নোটিসে লেখা রয়েছে "দেখা যাচ্ছে যে আপনি (চিদাম্বরম) নিম্নে উল্লিখিত মামলার ঘটনা এবং পরিস্থিতি সম্পর্কে অবগত আছেন, যা আমি (সিবিআই) এখন ফৌজদারি কার্যবিধির ১২ নম্বর অধ্যায়ের অধীনে তদন্ত করছি, আপনাকে নোটিস দেওয়া হচ্ছে যে মামলার তদন্তের স্বার্থে এটি প্রাপ্তির দুই ঘণ্টার মধ্যে আমার (সিবিআই) সামনে উপস্থিত হতে হবে"।

আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় চিদম্বরমের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সিবিআইকে ছাড়পত্র দিল কেন্দ্র

আইএনএক্স দুর্নীতি মামলায় চিদাম্বরমের বিরুদ্ধে অভিযোগ অর্থমন্ত্রী থাকাকালীন ২০০৭ সালে তিনি মিডিয়া ব্যারন পিটার ও ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়ের আইএনএক্স মিডিয়া গোষ্ঠীকে বেআইনি ভাবে বিদেশি লগ্নি আনার ছাড়পত্র দেন। যার বিনিময়ে চিদাম্বরম পুত্র কার্তি ওই মিডিয়া সংস্থার থেকে বিপুল অর্থ ঘুষ নেন।

মঙ্গলবার দিল্লি হাইকোর্টের গ্রেফতারি এড়াতে (P Chidambaram arrest) আগাম জামিনের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারপতি সুনীল গৌর বলেন, এই মামলার মূল ষড়যন্ত্রকারী হলেন পি চিদাম্বরমই, তাই তাঁর আগাম জামিনের আবেদন নাকচ করে দেওয়া হল ।

"মামলার প্রধান বিষয়গুলি প্রমাণ করে যে আবেদনকারী (চিদাম্বরম), এই মামলার মূল ষড়যন্ত্রকারী,"  বলেন বিচারপতি গৌর।

মিঃ চিদাম্বরমের আইনী দল সুপ্রিম কোর্টে আজ (বুধবার) হাইকোর্টের আদেশকে চ্যালেঞ্জ করবে বলে মনে করা হচ্ছে।

যদিও এই ঘটনাকে প্রতিহিংসার রাজনীতি হিসাবেই ব্যাখ্যা করে চিদাম্বরমের পক্ষে সওয়াল করেছে কংগ্রেস।