P Chidambaram Arrest: পি চিদাম্বরমকে সোমবার পর্যন্ত সিবিআই হেফাজতে রাখার নির্দেশ আদালতের

INX Media case: ২০০৭ সালে অর্থমন্ত্রী থাকাকালীন P Chidambaram টেলিভিশন সংস্থা আইএনএক্স মিডিয়াকে বিদেশী বিনিয়োগের সুবিধা পাইয়ে দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

বুধবার সিবিআইয়ের আধিকারিকরা পি চিদাম্বরমকে নয়া দিল্লিতে তাঁর জোড়বাগের বাসভবন থেকে গ্রেফতার করেন। (পিটিআই)


নয়া দিল্লি: 

INX Media মামলায় বুধবার গভীর রাতে দক্ষিণ দিল্লিতে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী P Chidambaram-কে তাঁর বাড়ি থেকে নাটকীয়ভাবে গ্রেফতার করে কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা CBI, বৃহস্পতিবার দুপুরেই আদালতে তোলা হল তাঁকে, আর এদিনই সন্ধ্যায় তাঁকে সোমবার পর্যন্ত সিবিআই হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিল আদালত। সিবিআইয়ের সদর দফতরেই রাত কাটিয়েছেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী। বুধবার তাঁর বাড়ির পাঁচিল টপকে গ্রেফতার করা হয় চিদাম্বরমকে। পি চিদাম্বরমকে সিবিআই ভবনের "লক-আপ স্যুট 3" তে রাখা হয়। আশ্চর্যের কথা এই যে এই লক আপটি তাঁর উপস্থিতিতেই ২০১১ সালে উদ্বোধন করা হয়েছিল । কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালীন তিনি সেই সময় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি ছিলেন এবং তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংকে সঙ্গে নিয়ে সিবিআই ভবন এবং এর লক-আপের সুবিধাগুলি পরিদর্শন করেছিলেন।

সূত্র মারফৎ খবর, আজ (বৃহস্পতিবার) প্রথমে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করে সিবিআই, এবং তারপরেই পি চিদাম্বরমকে অবশেষে আদালতে তুলল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাটি এবং সেখানেই ৫ দিনের হেফাজত চাইল সিবিআই। সেইমতো সোমবার অর্থাৎ ২৬ তারিখ পর্যন্ত সিবিআই হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিল আদালত।আদালতেই ছিলেন চিদাম্বরমের স্ত্রী নলিনী ও পুত্র কার্তি।  

P Chidambaram-এর বিরুদ্ধে মামলা ইন্দ্রাণী মুখার্জীর বয়ানের ভিত্তিতেই গঠিত

পি চিদাম্বরমের বিরুদ্ধে অভিযোগ কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী থাকাকালীন ২০০৭ সালে বিদেশ থেকে ৩০৫ কোটি টাকার তহবিল পাওয়ার জন্য আইএনএক্স মিডিয়াকে ছাড়পত্র দিয়েছিলেন তিনি, বিনিময়ে তাঁর ছেলে কার্তি চিদাম্বরমের সংস্থাকে বিরাট অঙ্কের ঘুষ দেয় আইএনএক্স মিডিয়া।  ২০১৭ সালে, কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা সিবিআই একটি এফআইআর দায়ের করে তাঁর বিরুদ্ধে। প্রাক্তন মিডিয়া ব্যারন পিটার মুখার্জীর স্ত্রী ইন্দ্রাণী মুখার্জীর বয়ানের ভিত্তিতেই প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পি চিদাম্বরম এবং তাঁর পুত্র কার্তি চিদাম্বরমের বিরুদ্ধে মামলাটি সাজানো হয়েছে। বর্তমানে মেয়ে শীনা বোরাকে হত্যার অভিযোগে জেলে রয়েছেন ইন্দ্রাণী মুখার্জী। যদিও পি চিদাম্বরম নিজের বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে গোটা বিষয়টিকে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র হিসাবে অভিহিত করেছেন।

মঙ্গলবার চিদাম্বরমের বাড়িতে সিবিআই ও ইডি আধিকারিকরা হানা দিলেও তাঁর নাগাল পাননি তাঁরা। অথচ বুধবার সবাইকে অবাক করে দিয়ে আইনজীবী তথা কংগ্রেসে তাঁর সহকর্মী কপিল সিব্বল এবং অভিষেক মনু সিংভিকে সঙ্গে নিয়ে তিনি ৯০ মিনিটের এক সাংবাদিক সম্মেলন করেন চিদাম্বরম। এরপরেই তাঁকে গ্রেফতার করে সিবিআই। 

বুধবার সারাদিন, চিদাম্বরমের আইনজীবী কপিল সিবল এবং অভিষেক মনু সিংভি সুপ্রিম কোর্ট থেকে তাঁর অন্তর্বর্তীকালীন সুরক্ষার জন্য জরুরি ভিত্তিতে শুনানির চেষ্টা করলেও ব্যর্থ হন তাঁরা। শুক্রবার আদালত এই আবেদনটি গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

h0thgr0o

সাংবাদিক সম্মেলন করে চিদাম্বরম বলেন, "আমি জেনে খুব অবাক হয়েছি যে আমার বিরুদ্ধে আইনের হাত থেকে পালানোর মতো অভিযোগ আনা হয়েছে, অথচ দিনভর আইনের আশ্রয়ের সন্ধানেই আমি ব্যস্ত ছিলাম। শুক্রবার পর্যন্ত আমি আমার বিবেকের কাছে স্পষ্ট থাকবো। আইনের অসম ব্য়বহার করা হলেও আমি আইন মেনেই চলব"।

P Chidambaram -এর সমর্থনে কংগ্রেস ও গান্ধি পরিবার, কেন্দ্রকে তীব্র আক্রমণ

সাংবাদিক সম্মেলনের পরেই পি চিদাম্বরকে তাঁর বাসভবন থেকে গ্রেফতার করে সিবিআই। গ্রেফতারির পর তাঁকে রাখা হয় সিবিআইয়ের লক আপে। 

তবে প্রবীণ কংগ্রেস নেতা পি চিদাম্বরমের পাশে দাঁড়িয়েছে তাঁর দল ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস। তাঁর বিরুদ্ধে রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতেই হেনস্থা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধি। চিদাম্বরমের সমর্থনে টুইট করেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধিও।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................